এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > আরেক প্রাক্তন তৃণমূল বিধায়ক কি এবার বিজেপির পথে? জল্পনা চরমে

আরেক প্রাক্তন তৃণমূল বিধায়ক কি এবার বিজেপির পথে? জল্পনা চরমে



নোয়াপাড়া উপনির্বাচনে টিকিট পান নি তৃণমূলের প্রাক্তন বিধায়ক মঞ্জু বসু, বদলে টিকিট পেয়েছেন দলের তরফে ভোটের দায়িত্ত্বে থাকা ভাটপাড়ার বিধায়ক অর্জুন সিংয়ের আত্মীয় সুনীল সিং। আর তারপর থেকেই দলীয় কোনো নির্বাচনী কাজে দেখা যাচ্ছে না সেখানকার প্রাক্তন তৃণমূল বিধায়ককে। এই প্রসঙ্গে জেলা সভাপতি জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক বারবার দাবি করেছেন ‘অন্য কাজে’ ব্যস্ত থাকায় মঞ্জু দেবী আসতে পারছেন না, কিন্তু তাঁর সঙ্গে কথা হয়েছে, মঞ্জুদেবী তৃণমূলের সঙ্গেই আছেন। কিন্তু এক ওয়েব পোর্টালকে এই প্রসঙ্গে আজ মঞ্জুদেবী জানিয়েছেন, উপনির্বাচনে আমাকে কিছু জানানো হয়নি দলের তরফে। প্রার্থী ঘোষণা থেকে শুরু করে নির্বাচনের যাবতীয় কাজ হয়ে গেল, আমি ডাক পেলাম না। দলের কর্মী হিসেবেও ডাক পাইনি, অথচ বিভিন্ন জায়গায় বলা হচ্ছে আমি যাইনি, এটা মিথ্যা কথা। একটা সৌজন্য অন্তত আশা করেছিলাম, এই অপমান আমার নয়, আমার স্বামীকে অপমান, শহীদ বিকাশ বসুকে অপমান।
তাৎপর্যপূর্ণ ভাবে ওই একই খবরে দাবি করা হয়েছে যে আজ বিধানসভার মুখ্য সচেতক তথা উত্তর ২৪ পরগনার তৃণমূলের পর্যবেক্ষক নির্মল ঘোষ, মঞ্জু দেবীর বাড়িতে গিয়ে দেখা করে আসেন। একে সৌজন্য সাক্ষাৎ হিসাবে তুলে ধরলেও, রাজনৈতিক মহলে এই নিয়ে জল্পনা ছাড়িয়েছে। অন্যদিকে বিজেপি নেতা মুকুল রায় গতকাল রাত্রে মঞ্জু দেবীর বাড়িতে গিয়ে দেখা করে আসেন। সেই ব্যাপারে মুকুলবাবুকে ‘দীর্ঘদিনের পারিবারিক বন্ধু’ বলে আখ্যা দিয়ে বিজেপিতে যোগদান প্রসঙ্গে মঞ্জুদেবী জানিয়েছেন, এই বিষয়ে কোনও কথা এখন বলতে চাই না, ভবিষ্যতের কথা ভবিষ্যৎ বলবে, এখন কিছু বলছি না। ফলে রাজনৈতিক জল্পনা চরমে পৌঁছেছে যে মঞ্জু বসু বিজেপিতে যোগ দিতে পারেন এবং নোয়াপাড়াতে তাঁকে প্রার্থী হিসাবে ঘোষণা করতে পারে বিজেপি। এখন দেখার সত্যিই এই জল্পনা বাস্তব রূপ পায় কিনা।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!