এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > নির্বাচনে জিততে বড় প্রতিশ্রুতি হেভিওয়েট মন্ত্রীর, জোর চাঞ্চল্য!

নির্বাচনে জিততে বড় প্রতিশ্রুতি হেভিওয়েট মন্ত্রীর, জোর চাঞ্চল্য!



নির্বাচন কাছে এলেই ধরাকে সরা জ্ঞান করেন নেতা মন্ত্রীরা। ভোটে জিততে বড় বড় প্রতিশ্রুতি দিয়ে সাধারণ মানুষের মন জয়ের চেষ্টা করেন তারা। আর এবার ফালাকাটা বিধানসভা উপনির্বাচনে জয়লাভ করার জন্য জনতা জনার্দনের কাছে বড়সড় প্রতিশ্রুতি দিয়ে রাখলেন রাজ্যের হেভিওয়েট মন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, কিছুদিন আগেই প্রয়াত হয়েছেন ফালাকাটার তৃণমূল বিধায়ক অনিল অধিকারী। তবে এবার সেই কেন্দ্র ধরে রাখতে সেখানে গিয়ে বড়সড় প্রতিশ্রুতি দিয়ে বসলেন রাজ্যের হেভিওয়েট মন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়।

সূত্রের খবর, বুধবার ফালাকাটায় একটি মিছিলের পর পথসভায় উপস্থিত হন রাজ্যের এই হেভিওয়েট মন্ত্রী। আর সেখানেই বক্তব্য রাখতে গিয়ে উপনির্বাচনে জিতলে ছয় মাসের মধ্যে ফালাকাটাকে পৌরসভা করে দেওয়া হবে বলে জানিয়ে দেন তিনি। আর বিধানসভা উপনির্বাচনে জয়লাভ করতে ফালাকাটা পৌরসভা করে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় সাধারণ মানুষের মন জয় করার চেষ্টা করলেন বলেই মনে করছে একাংশ। ইতিমধ্যেই এই বিষয়ে তৃণমূলকে কটাক্ষ করতে শুরু করেছে বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলো।

এদিন এই ব্যাপারে জেলা বিজেপির সহ-সভাপতি নারায়ন মণ্ডল বলেন, “আমাদের দল রাজ্যে ক্ষমতায় নেই। তাই এই প্রতিশ্রুতি আমরা দিতে পারি। তৃণমূল তো রাজ্যের ক্ষমতাতেই আছে। তাহলে ভোটে জেতার পর শাসকদল পৌরসভা বা মহকুমা করার কথা বলছে কেন! আসলে ফালাকাটা পৌরসভা বা মহাকুমা কোনোটাই হবে না। এটা উপনির্বাচনে জেতার জন্য মিথ্যা প্রতিশ্রুতি।” একইভাবে এই ব্যাপারে তৃণমূলকে কটাক্ষ করেছে সিপিএমও‌।

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

এদিন এই প্রসঙ্গে জেলা সিপিএমের সম্পাদক মৃণাল কান্তি রায় বলেন, “রাজ্যের বর্তমান শাসকদল এর আগেও ফালাকাটাকে দুবার পৌরসভা করার জন্য প্রতিশ্রুতি দিয়ে ভোটে জিতেছিল। কিন্তু পৌরসভা হয়নি। আসলে পৌরসভার মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দিয়ে ফালাকাটা বিধানসভার উপনির্বাচনের জিততে চাইছে তৃণমূল। কিন্তু মানুষ এসব মিথ্যা প্রতিশ্রুতিতে আর গলবে না।” তবে বিরোধীরা যে কথাই বলুন না কেন, স্বয়ং বনমন্ত্রীর এহেন প্রতিশ্রুতিতে এখন যে রীতিমতো আশায় বুক বাঁধছেন ফালাকাটার মানুষ, তা স্থানীয়দের কথা থেকেই পরিষ্কার হয়ে গেছে।

এদিন এই প্রসঙ্গে ফালাকাটা ব্যবসায়ী সমিতির সম্পাদক নান্টু তালুকদার বলেন, “পঞ্চায়েত সমিতির পক্ষে আর ফালাকাটা শহরের নাগরিক পরিষেবা দেওয়া সম্ভব নয়। তাই ফালাকাটাকে দ্রুত পৌরসভা ঘোষণা করা হোক। বনমন্ত্রীর ঘোষণার পর এবার মনে হচ্ছে ফালাকাটা পৌরসভা হচ্ছেই। আমরা এই ঘোষণায় খুশি।” তবে জনসাধারণ মুখে মন্ত্রীর কথায় খুশি হলেও, বিরোধীরা যেভাবে এই ব্যাপারটিকে ভাওতা বলে প্রচার করতে শুরু করেছে, তাতে শেষপর্যন্ত ফালাকাটা বিধানসভা উপনির্বাচনে জয় কাদের দিকে আসে, সেদিকেই নজর সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!