এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > নদীয়া-২৪ পরগনা > নির্বাচনের মুখে বিজেপি কর্মীদের ওপর দাপুটে তৃণমূল নেতার ছেলের অমানবিক অত্যাচারের অভিযোগ

নির্বাচনের মুখে বিজেপি কর্মীদের ওপর দাপুটে তৃণমূল নেতার ছেলের অমানবিক অত্যাচারের অভিযোগ



লোকসভা ভোটকে ঘিরে যখন উত্তপ্ত রাজ্য রাজনীতি, ঠিক তখনই এবার তৃণমূল কর্মীর দ্বারা নির্যাতনের শিকার হলেন বিজেপি কর্মী। জানা গেছে, সোমবার বনগাঁ পুরসভার 21 নম্বর ওয়ার্ড এলাকার ঢাকাপাড়া লালপোলে বাসন্তী পূজা উপলক্ষে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান চলছিল। আর এই অনুষ্ঠান শেষ হয়ে যাওয়ার পরে সেখানে বন্ধু বান্ধবীদের নিয়ে এক জায়গায় বসে গল্প করছিলেন বিজেপি কর্মী নীতিশ বিশ্বাস এবং রনি বাড়ুই। আর এই সময় হঠাৎই স্থানীয় তৃণমূল কাউন্সিলর সুমতি পোদ্দারের ছেলে মোহন পোদ্দার তার দলবল নিয়ে সেই নীতিশদের ওপর চড়াও হয় বলে অভিযোগ।

জানা গেছে, প্রথমেই মোহন পোদ্দার এসে সেই বিজেপি কর্মীকে হুমকি দেন, “এলাকায় থেকে বিজেপি করছিস। তোকে এখানে থাকতে দেব না।” আর এরপরই সেই বিজেপি কর্মী নীতিশ বিশ্বাসের হাতে সিগারেটের ছ্যাকা দিয়ে তাদের বেধড়ক মারধর করে বলে খবর।

এদিকে এই ঘটনায় গোটা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে বনগাঁ থানার পুলিশ উপস্থিত হয়ে প্রথমেই সেই আহত বিজেপি কর্মীদের উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়। এদিকে এই ঘটনা নিয়ে ইতিমধ্যেই তৃণমূলের বিরুদ্ধে সুর চড়িয়েছে উত্তর 24 পরগনা জেলা বিজেপির সহ সভাপতি দেবদাস মন্ডল। এদিন তিনি বলেন, “ওই যুবকরা এলাকায় বিজেপি করছে। তাই তৃণমূল তাদের উপর এই ধরনের হামলা শুরু করেছে।”

অন্যদিকে এই ঘটনাটিকে সম্পূর্ণ রূপে অস্বীকার করেছে অভিযুক্ত মোহন পোদ্দারের বাবা স্থানীয় তৃণমূল কাউন্সিলর সুমতি পোদ্দার। এদিন তিনি বলেন, “কাউকে কোনো মারধোর করা হয়নি। আমার বাড়ির সামনে কিছু লোক জটলা করছিল। তাই তাদের সরে যেতে বলা হয়েছে। এটি কোনো রাজনৈতিক বিষয় নয়। আসলে ভোটের মুখে এভাবেই রাজনৈতিক ফায়দা তোলার চেষ্টা করছে বিজেপি।” তবে যে যাই বলুক না কেন, লোকসভা নির্বাচনে মরসুমে এবার বিজেপি কর্মীদের ওপর তৃণমূলের কাউন্সিলরের ছেলের অমানবিক অত্যাচারের ঘটনায় সরগরম বনগাঁ।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!