এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > একুশের নির্বাচনে গেরুয়া শিবিরকে আরও শক্তিশালী করতে রাজ্যে আসছেন শাহ-মোদী জুটি

একুশের নির্বাচনে গেরুয়া শিবিরকে আরও শক্তিশালী করতে রাজ্যে আসছেন শাহ-মোদী জুটি



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – বাংলার দরজায় কড়া নাড়ছে একুশের বিধানসভা নির্বাচন। ইতিমধ্যেই বাংলার রাজনৈতিক দলগুলির প্রস্তুতি তুঙ্গে। একদিকে যেমন শাসক শিবির বাংলার মসনদের দখল ধরে রাখতে মরিয়া। তেমনি অন্যদিকে বিরোধী শক্তি বিজেপি একুশের বিধানসভা নির্বাচনে বাংলা দখল করতে মরিয়া। বিশেষজ্ঞদের মতে, একুশের নির্বাচনের দিনক্ষণ ঘোষণা আর মাত্র সময়ের অপেক্ষা। হয়তো কয়েকদিনের মধ্যেই ঘোষণা হয়ে যাবে নির্বাচনের দিনক্ষণ। আর এবার জানা যাচ্ছে নির্বাচনের দিন ঘোষণা হলেই রাজ্যজুড়ে বিজেপি তাঁদের প্রচার পর্ব আরো কয়েকগুণ বাড়িয়ে তুলবে। সূত্রের খবর, রাজ্য জুড়ে প্রায় 15 টি সভা করবেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

এমনিতেই অবশ্য এখন প্রায়শই দেখা যাচ্ছে রাজ্যে সর্বভারতীয় বিজেপি নেতাদের। পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও বেশ ঘন ঘন রাজ্যে আসছেন এবং বিজেপির প্রচার চালাচ্ছেন। তবে ভোটের দিন ঘোষণা হলে এই আনাগোনার সংখ্যা যে আরো বাড়বে সে তা নিশ্চিত হওয়া যাচ্ছে বিজেপি সূত্রে। জানা যাচ্ছে, রীতিমতো পরিকল্পনা করে রাজনীতির ময়দানে ঝাঁপিয়ে পড়তে চলেছে গেরুয়া শিবির। একদিকে যেমন প্রধানমন্ত্রী তথা সর্বভারতীয় বিজেপি নেতা নরেন্দ্র মোদি বাংলার ময়দানে ঝড় তুলবেন, সেরকমই অন্যদিকে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বাংলার মসনদ দখলে নতুন নতুন অস্ত্র শানাবেন শাসকদলের বিরুদ্ধে।

অন্যদিকে জানা গিয়েছে, অমিত শাহ এবং নরেন্দ্র মোদী উত্তরবঙ্গ ও দক্ষিণবঙ্গ মিলিয়ে মোট 15 টি সভা করবেন রাজ্যে। কোথায় কোথায় তাঁরা জনসভা করবেন তার তালিকা ইতিমধ্যেই প্রস্তুত হয়ে গিয়েছে বলে জানিয়েছেন বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসু। তবে শুধুমাত্র নরেন্দ্র মোদী বা অমিত শাহই নন, বিজেপির সর্বভারতীয় স্তরের অন্যান্য প্রথম সারির নেতারা বঙ্গ রাজনীতিতে ঝড় তুলতে আসছেন বলে জানা গেছে। তাঁদের মধ্যে যোগী আদিত্যনাথ, রাজনাথ সিং, স্মৃতি ইরানির নাম আলাদা করে বলা যায়। গেরুয়া শিবির সূত্রে জানা গিয়েছে, একদিকে যেমন চলবে জনসভা, অন্যদিকে তারই সঙ্গে চলবে কর্মীসভা। অন্যদিকে রাজ্যের বেশ কয়েকটি জেলায় বিজেপি প্রচারে জোর দিচ্ছে।

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

তাদের মধ্যে অন্যতম হল মালদা, নদিয়া, দক্ষিণ 24 পরগনা। প্রচারের ব্যাপারটি ইতিমধ্যেই ঠিক করে দিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। বুথ ভিত্তিক প্রচার শুরু করে দিয়েছে বিজেপি। প্রচারের কাজে বুথ কর্মীদের ব্যবহার করার নির্দেশ দিয়েছেন অমিত শাহ। সেই অনুযায়ী বিজেপির ভোট কম সেখানে রাজ্যের নিচুতলার কর্মীদের ব্যবহার করা হচ্ছে বলে জানা গিয়েছে। পাশাপাশি রাজ্যের সমস্ত স্তরের সঙ্গে জনসংযোগ বাড়ানোর নির্দেশ দিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সহ সর্বভারতীয় বিজেপি সভাপতি জেপি নাড্ডা।

বিশেষজ্ঞদের মতে, একুশের বিধানসভা নির্বাচন বর্তমানে রীতিমতো প্রেস্টিজের লড়াই হিসেবে পরিণত হয়েছে। বাংলার মসনদ কে দখল করবে তাই নিয়ে চলছে লড়াই এবং ভোট যত কাছে আসবে ততই এই লড়াই যে আরো বাড়বে সে ব্যাপারে নিশ্চিত রাজনৈতিক মহল। তবে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ রাজ্যের প্রচারে এসে গেরুয়া শিবিরকে আরও কতটা শক্তি জোগাতে পারেন, এখন সে দিকেই নজর থাকবে ওয়াকিবহাল মহলের।

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!