এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > একুশের যুদ্ধ জয়ে শেষমেশ মুকুল-লাইনেই ভরসা কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের? সামনে এল বড়সড় নতুন ইঙ্গিত!

একুশের যুদ্ধ জয়ে শেষমেশ মুকুল-লাইনেই ভরসা কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের? সামনে এল বড়সড় নতুন ইঙ্গিত!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – 2021 এর বিধানসভা নির্বাচন যত এগিয়ে আসছে, ততই নিজেদের সাংগঠনিক জোর বাড়ানোর ক্ষেত্রে তৎপরতা দেখাচ্ছে রাজ্যের সমস্ত রাজনৈতিক দল। তবে সেক্ষেত্রে অবশ্য গেরুয়া শিবির যে বেশ কয়েক কদম এগিয়ে রয়েছে, তা এক বাক্যে স্বীকার করে নিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। 2019 এর লোকসভা নির্বাচনে রাজ্যজুড়ে 18 টি আসন জিতে যথারীতি আত্মবিশ্বাসে টগবগ করে ফুটছে গেরুয়া শিবির। সেই সূত্রে বিধানসভার নির্বাচনে বিজেপি শিবির থেকে জোর দিয়ে বলা হয় 190 টি আসনেই তাঁরা জিততে চলেছে।

এই নিয়ে সম্প্রতি বঙ্গ বিজেপি শিবিরের সাথে বিজেপি কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের পাঁচদিনব্যাপী বৈঠক হল। তবে এই বৈঠকে প্রথমেই তাল কাটে মুকুল রায় প্রসঙ্গে। তবে শেষমেশ মুকুল রায়ের কথাকেই প্রাধান্য দিয়ে গেরুয়া শিবির মেনে নিয়েছে 190 টি আসন জিতে বিধানসভার মসনদ দখল করা বাংলায় মোটেই সহজ কাজ নয়। সেক্ষেত্রে বাধা হয়ে দাঁড়াবে দক্ষিণবঙ্গে বিজেপির সাংগঠনিক দুর্বলতা। আর তাই এবার বাংলা জুড়ে নিজেদের সংগঠনকে আরো জোরদার করে তুলতে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের সান্নিধ্যে ব্লু প্রিন্ট তৈরি করল বিজেপি।

2019 এর লোকসভা নির্বাচনের পর থেকেই দেখা গেছে, উত্তরবঙ্গে বিজেপি যথেষ্ট শক্তিশালী কিন্তু দক্ষিণবঙ্গের ক্ষেত্রে ছবিটা পুরো অন্য। জঙ্গলমহল বাদ দিয়ে দক্ষিণবঙ্গের অন্য জায়গায় বিজেপির সাংগঠনিক জোর যথেষ্ট দুর্বল। আর সেখানেই মাত দিতে পারে তৃণমূল বলে মনে করা হচ্ছে। অন্যদিকে সংখ্যালঘু ভোট বিজেপির আরেকটি দুর্বলতম জায়গা। আর সে জায়গায় তৃণমূল বিশাল মাইলেজ পাচ্ছে বলে মনে করছে বিজেপি শিবির।  আপাতত বিজেপির লক্ষ্য, তৃণমূল শিবিরের ভোটব্যাঙ্ক অর্থাৎ সংখ্যালঘু ভোটে ফাটল ধরানো।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

সূত্রের খবর, দক্ষিণবঙ্গে বিজেপির সাংগঠনিক দুর্বলতা এতদিনেও কাটাতে না পারায় যথারীতি কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব উষ্মা প্রকাশ করেছে রাজ্য বিজেপির ওপর। আপাতত বিধানসভা নির্বাচন হতে আর মাত্র কয়েক মাস বাকি। তার মধ্যে গেরুয়া সংগঠন মজবুত করার পথে হাঁটতে চলেছে বঙ্গ বিজেপি শিবির। জানা গেছে, সোমবার দিল্লিতে কলকাতা উত্তর, ব্যারাকপুর, বসিরহাট এবং মথুরাপুর লোকসভা কেন্দ্রের সাংগঠনিক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা হয় এবং সেখানেই হতাশা ব্যক্ত করে বিজেপি।

দক্ষিণবঙ্গের এই নড়বড়ে পরিস্থিতির কারণে 2021 এর বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির ভিত নড়ে যেতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। তাই এখন থেকেই সাবধানী পদক্ষেপ নিতে প্রস্তুত বিজেপি। এ প্রসঙ্গে রাজ্য বিজেপি সভাপতি জানিয়েছেন, কোন কেন্দ্রে কি দুর্বলতা তা জেনে নিয়ে এবার অ্যাকশন প্ল্যান তৈরি করে রাজনৈতিক ময়দানে নামতে চলেছে রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব। সেই অনুযায়ী সবাইকে বার্তা দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।এই মুহূর্তে বাংলার রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড শুধুমাত্র 2021 এর বিধানসভা নির্বাচনকে ঘিরেই হয়ে চলেছে বলে মত রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের।

সে ক্ষেত্রে তৃণমূল শিবির ইতিমধ্যেই সাংগঠনিক পরিবর্তনের মধ্যে দিয়ে কিছুটা ধাক্কা দিয়েছে বিজেপিকে বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহলের একাংশ। এই পরিস্থিতিতে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের বৈঠকে বাংলার বিজেপি মহল নতুন করে আবার উদ্দীপিত হল বলে মনে করা হচ্ছে। আপাতত 2021 এর বিধানসভা নির্বাচনে বাংলার মসনদ দখল করার জন্য বিজেপি এবার নতুন কোন অ্যাকশন প্ল্যান ব্যবহার করে সে দিকেই এখন নজর রাখবে রাজ্যের ওয়াকিবহাল মহল।

আপনার মতামত জানান -

ট্যাগড
Top
error: Content is protected !!