এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > কংগ্রেস > একের পর এক ভরাডুবির কারণে সমালোচনা, তবুও থামতে, না রাহুল! ফের তীব্র আক্রমণ মোদিকে!

একের পর এক ভরাডুবির কারণে সমালোচনা, তবুও থামতে, না রাহুল! ফের তীব্র আক্রমণ মোদিকে!



আপনাদের সুবিধার্থে খবরের শেষে বিধানসভা ২০২১ উপলক্ষে আমাদের করা সর্বশেষ সমীক্ষার প্রতিটির লিঙ্ক দেওয়া আছে।

আপনার মতামত জানান -

প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – 2014 সালে কেন্দ্রে বিজেপি সরকার গঠন হওয়ার পর থেকেই ক্রমশ অস্তিত্ব সংকটে ভুগতে শুরু করেছে কংগ্রেস নেতৃত্ব। একের পর এক রাজ্যে ভরাডুবির সম্মুখীন হয়েছে তারা। কিন্তু তা সত্ত্বেও হাল ছাড়তে নারাজ রাহুল গান্ধী। মাঝেমধ্যেই বিরোধীদের পাশাপাশি দলের অন্দরে সেই রাহুলবাবুর নেতৃত্ব নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। মাঝে বেশ কিছুদিন মায়ের হাতে সমস্ত দায়িত্ব দিয়ে কার্যত অন্তরালে চলে গিয়েছিলেন তিনি।

কিন্তু আবার রাজনীতির ময়দানে সক্রিয় হতে দেখা গেল রাহুল গান্ধীকে। যেখানে দলের ভরাডুবি নিয়ে পর্যালোচনা করা তো দূরের কথা, উল্টে প্রধান প্রতিপক্ষ নরেন্দ্র মোদিকেই কার্যত কড়া ভাষায় আক্রমণ করলেন তিনি। সূত্রের খবর, এবার চীনকে সামনে রেখে মোদির জনপ্রিয়তা এবং চীনের প্রতি অবস্থান নিয়ে সরব হলেন এই হেভিওয়েট কংগ্রেস নেতা।

প্রসঙ্গত, চীনের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে যে, ডেকোলাম লাগোয়া ভুটানে জোর করে একটি গ্রাম তৈরি করা হচ্ছে। পাশাপাশি গ্রামের মধ্যে 9 কিলোমিটার রাস্তা তৈরি হয়েছে বলে খবর। স্বাভাবিকভাবেই চীনের হাতে নবনির্মিত এই গ্রামের ছবি প্রকাশ্যে আসার সাথে সাথেই নানা মহলে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। আর এবার সেই গ্রামের ছবি টুইটারে পোস্ট করে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে সরব হলেন রাহুল গান্ধী।

যেখানে তিনি দাবি করেন যে, শুধুমাত্র জনসংযোগ আর সংবাদমাধ্যমে চীন বিরোধী লম্বা-চওড়া ভাষণ দিয়ে কোনো কাজ হবে না। এদিকে চীনের আগ্রাসন নিয়ে ভারতের সঙ্গে কুটনৈতিক বোঝাপড়ার ব্যাপারেও প্রশ্ন তুলতে দেখা যায় রাহুল গান্ধীকে। স্বাভাবিকভাবেই বেশ কিছুদিন নীরবতা পালন করার পর আবার রাহুল গান্ধী ময়দানে নেমে যেভাবে চীন নিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে কার্যত তুলোধোনা করলেন, তাতে তার ভূমিকা নিয়ে আবার অনেকে প্রশ্ন তুলতে শুরু করেছেন।


ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

বিশ্লেষকদের একাংশ বলছেন, রাহুল গান্ধীর বিজেপি বিরোধী এই মন্তব্য নিঃসন্দেহে কংগ্রেস নেতাকর্মীদের উজ্জীবিত করবে। কিন্তু রাজনৈতিক দলগুলো কতটা ভালো কাজ করল এবং কতটা মানুষের মনে জায়গা করে নিল, তার প্রমাণ মেলে ভোটের ফলাফলে‌। বিগত দিনে এবং সাম্প্রতিক কালে কংগ্রেসের ভোটের ফলাফল খুব একটা ভালো নয়। দিনকে দিন তাদের সংগঠন কার্যত বিভিন্ন রাজ্যের ভেঙে পড়তে শুরু করেছে।

যার ফলে সাম্প্রতিককালে বিহারেও খুব একটা ভালো ফল করতে পারেনি তারা। তাই এই পরিস্থিতিতে প্রধানমন্ত্রীর বিরোধিতা না করে রাহুল গান্ধীকে নিজেদের দলের সংগঠন পুনরুদ্ধার করার জন্য আরও বেশি করে মনোযোগী হওয়া দরকার বলে দাবি করছেন একাংশ। সব মিলিয়ে গোটা পরিস্থিতি কোথায় গিয়ে দাঁড়ায়, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

একনজরে দেখে নিন আমাদের সর্বশেষ বিধানসভা ২০২১ ওপিনিয়ন পোল –

# মুর্শিদাবাদ জেলার ওপিনিয়ন পোল – দ্বিতীয় পর্ব – 

# মুর্শিদাবাদ জেলার ওপিনিয়ন পোল – প্রথম পর্ব – 

# মালদহ জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# উত্তর দিনাজপুরে জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# জলপাইগুড়ি ও কালিম্পঙ জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# আলিপুরদুয়ার ও দার্জিলিং জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# কুচবিহার জেলার ওপিনিয়ন পোল –

আপনার মতামত জানান -
আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!