এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > বিজেপি > বিজেপি সাংসদের রাজ্য ভাগের দাবি নিয়ে দলের অভিমত কি?স্পষ্ট করলেন দিলীপ ঘোষ

বিজেপি সাংসদের রাজ্য ভাগের দাবি নিয়ে দলের অভিমত কি?স্পষ্ট করলেন দিলীপ ঘোষ



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – সম্প্রতি বিজেপির দুজন সাংসদ রাজ্য ভাগের দাবি তুলেছেন, যারা হলেন বিজেপি সাংসদ জন বার্লা ও সৌমিত্র খাঁ। আলিপুরদুয়ারের বিজেপি সাংসদ জন বার্লা দাবি করেছেন যে, উত্তরবঙ্গকে একটি আলাদা রাজ্য বা একটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হিসেবে ঘোষণা করা হোক। আবার, গতকাল বিষ্ণুপুরের বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ দাবি করেছেন যে, জঙ্গল মহলকে একটি আলাদা রাজ্য হিসেবে ঘোষণা করা হোক। বিজেপির দুই সাংসদের রাজ্য ভাগের দাবি নিয়ে সরব হয়ে উঠেছে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল, এই ইস্যুতে বিজেপিকে কোণঠাসা করার চেষ্টা চলছে। এই পরিস্থিতিতে এ প্রসঙ্গে বক্তব্য রাখলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

গতকাল বীরভূম জেলার সিউড়িতে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ জানালেন যে, পশ্চিমবঙ্গকে একটি রাজ্য হিসেবেই দেখে বিজেপি। রাজ্যভাগ বিজেপি সমর্থন করে না। গোটা পশ্চিমবঙ্গের একসঙ্গে উন্নয়ন ও অগ্রগতি চায় বিজেপি। কিন্তু রাজ্যে অরাজকতা চলছে। তাই বিভিন্ন প্রান্তে এরকম দাবি উঠতে শুরু করেছে। এ প্রসঙ্গে দিলীপ ঘোষ আরও জানিয়েছেন যে, বঙ্গভঙ্গের দাবি কেউ করেননি। সবাই অভিযোগ করেছেন যে, বঞ্চনা করা হচ্ছে। কলকাতা বাদ দিয়ে জঙ্গলমহল, উত্তরবঙ্গের মানুষকে স্বাধীনতার পর থেকে সকলে বঞ্চিত করে রেখেছেন। এ কারণেই আজ তাঁরা নিজেদের মুক্তি ও অধিকারের জন্য বিরোধী দলকে ভোট দিয়েছেন।

সেখানকার মানুষের যে ক্ষোভ, প্রতিনিধি হিসেবে সে কথা তাঁরা বলেছেন। রাজ্য সরকারের প্রতি মানুষের যে বিশ্বাস, আস্থা নেই, তা স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছে। রাজ্য সরকার তাঁদের ক্ষোভ প্রশমিত করে, সেখানকার মানুষের অধিকার ফিরিয়ে দিক। তৃণমূলের বিরুদ্ধে কটাক্ষ করে তিনি বলেছেন যে, ভোটের আগে এঁটো কাটা ছড়িয়ে দিয়ে, এখন বলা হচ্ছে যে, পয়সা নেই। বারবার বঞ্চনা করা হয়েছে, এর বিরুদ্ধে মানুষ এখন সরব হয়েছেন। অন্যদিকে, সম্প্রতি বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে প্রত্যাবর্তন করেছেন সপুত্র মুকুল রায়। বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ এ প্রসঙ্গে জানান, মুকুল রায় তৃণমূলে ফিরে যাওয়ায় বিজেপির রাহুমুক্তি হয়েছে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!