এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > এবার তৃণমূলের ঘাড়ে নিঃশ্বাস ফেলে পশ্চিমবঙ্গকে টার্গেট করল আপ! জোর জল্পনা!

এবার তৃণমূলের ঘাড়ে নিঃশ্বাস ফেলে পশ্চিমবঙ্গকে টার্গেট করল আপ! জোর জল্পনা!



রাজনীতিতে সব সম্ভব। কখন কে কার বিরোধী, আর কে কার পক্ষে থাকবে, তা বলতে পারবেন না কেউ। জাতীয় রাজনীতিতে বিজেপিকে কুপোকাত করতে, তৃণমূল নেত্রী তথা বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর সাথে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী তথা আম আদমি পার্টির নেতার সুসম্পর্কের কথা কারোরই অজানা নয়। সম্প্রতি দিল্লি বিধানসভা নির্বাচনে ভোটের ফলাফল বেরোনোর সাথে সাথে জয়ের জন্য সেই দিল্লির অরবিন্দ কেজরিওয়ালকে অভিনন্দন জানিয়েছেন তৃণমূল নেত্রী তথা বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।কিন্তু এবার সেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের রাজ্যেই কি পা রাখতে চলেছে আম আদমি পার্টি!

জানা গেছে, আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে বাংলায় লড়াইয়ের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে দিল্লির শাসক দল। যা নিয়ে এখন নানা মহলে ছড়িয়ে পড়েছে জল্পনা। অনেকে বলছেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি কুপোকাত করতে তৈরি। কিন্তু সেদিক থেকে মমতা বন্দোপাধ্যায়ের বন্ধু অরবিন্দ কেজরিওয়ালের দল পশ্চিমবঙ্গে লড়াইয়ের জন্য যদি তৈরি হয়, তাহলে সেই লড়াই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গেও অরবিন্দ কেজরিওয়ালকে করতে হবে। সেদিক থেকে ভোট কাটাকাটিতে বিজেপির অনেকটাই সুবিধা হবে বলে মত রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের।


দেশে যে কোনো দিন ব্যান হয়ে যেতে পারে হোয়াটস্যাপ। তাই এখন থেকে আমরা শুধুমাত্র টেলিগ্রাম ও সিগন্যাল অ্যাপে। প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার নিউজ নিয়মিতভাবে পেতে যোগ দিন –

টেলিগ্রাম গ্রূপটাচ করুন এখানে

সিগন্যাল গ্রূপটাচ করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

কিন্তু যখন বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলো হাতে হাত বাঁধার চেষ্টা করছে এবং বিজেপিকে কুপোকাত করার চেষ্টা করছে, তখন পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি বিরোধী রাজনৈতিক দল তৃণমূল কংগ্রেসের অস্বস্তি বাড়িয়ে এখানে কি আম আদমি পার্টি দেবে! এদিন এই প্রসঙ্গে পশ্চিমবঙ্গের আম আদমি পার্টি রাজ্য ইউনিটের সম্পাদক জর্জ গোমস বলেন, “সংগঠন নেই বলে শুধু অজুহাত দিলে চলে না। লোকবল, অর্থবল নেই এসব বললে হয় না। আমরা মনে করি, পশ্চিমবঙ্গের জনগণের প্রতি আমাদের দায়বদ্ধতা আছে। দিল্লির ভোটের ফলাফলে তা আরও বাড়ল। সেজন্য আমরা কিছু আউটলাইন পরিকল্পনা করেছি।যদিও সেগুলি প্রাথমিক স্তরে আছে। সব ঠিক মত চললে আমরা 2021 এর বিধানসভায় প্রতিদ্বন্দিতায় যেতে পারব। এবছর পৌরসভা লড়ব। আমাদের প্রথম লক্ষ্য হাওড়া পৌরসভা। পাশাপাশি যে পৌরসভাগুলোতে লড়াই করা সম্ভব, সেখানে আমরা প্রার্থী দেব।”

কিন্তু যেখানে জাতীয় রাজনীতিতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে সখ্যতা রয়েছে অরবিন্দ কেজরিওয়ালের, সেখানে সেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের রাজ্যে এসে লড়াই করার ব্যাপারে কি রাজি হবেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী! এদিন এই প্রসঙ্গে আম আদমি পার্টির পশ্চিমবঙ্গে ইউনিটের সম্পাদক জর্জ গোমস বলেন, “অরবিন্দ কেজরিওয়ালের সঙ্গে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বোঝাপড়া রয়েছে, তা সঠিক নয়। কিন্তু যারা ধর্মীয়, সংকীর্ণ এবং সংখ্যাগুরু ভোটের রাজনীতি বা শর্টকাট রাজনীতিতে বিশ্বাস করে, আমরা তাদের সঙ্গে থাকতে পারি না। এদের বাদ দিয়ে বাকি নেতৃত্বের সঙ্গে অরবিন্দ কেজরিওয়ালের সম্পর্ক ভালো‌। ইস্যুভিত্তিক সমর্থন হতেই পারে।” রাজনৈতিক মহলে গুঞ্জন, যদি পৌরসভা ভোটে সত্যি সত্যি আম আদমি পার্টি প্রার্থী দেয়, তাহলে তারা কিছু ভোট নিজেদের দিকে টানবে। আর পরবর্তীতে পৌরসভার পর যদি বিধানসভাতেও এই আম আদম পার্টির লড়াইয়ের জন্য প্রস্তুত হয়, তাহলে ভোট কাটাকাটিতে তৃণমূলের অস্বস্তি অনেকটাই বাড়বে বলে মত রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের। এখন গোটা পরিস্থিতি কোথায় গিয়ে দাঁড়ায়, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!