এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > নদীয়া-২৪ পরগনা > এবার তৃণমূল নেতার নামে অশ্লীলতার অভিযোগ, চাঞ্চল্য এলাকায়

এবার তৃণমূল নেতার নামে অশ্লীলতার অভিযোগ, চাঞ্চল্য এলাকায়



দিনের পর দিন প্রযুক্তি উন্নততর দিকে এগিয়ে চলেছে। বিজ্ঞানের এক একটা আবিষ্কার আমাদের চমকে দিচ্ছে। এত কিছুর মাঝেও এক জায়গায় কিছুতেই এগোনো যাচ্ছে না। আর তা হলো, মহিলাদের নিরাপত্তা ব্যবস্থা। যখনই কোন মহিলা কোন পুরুষের পছন্দকে গুরুত্ব না দিয়ে নিজের মতন এগিয়ে চলেছেন, তখনই তাকে আঘাত করার জন্য বিভিন্নভাবে প্রযুক্তিকে ব্যবহার করা চলছে ইদানিং। সম্প্রতি উত্তর 24 পরগনার বেলগাছিয়ার এক তৃণমূল নেতার নামে এহেন অভিযোগ উঠেছে। এক যুবতীকে নানাভাবে হেনস্তা করার জন্য ব্যবহার করেছেন তিনি প্রযুক্তিকে।

এদিন উত্তর 24 পরগনার বেলগাছিয়ার এক তৃণমূল নেতা শাহাদাত হোসেনের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ উঠেছে। অভিযোগ করা হচ্ছে, এক যুবতীকে বেশ কিছুদিন ধরেই উত্ত্যক্ত করে চলেছেন তিনি। দিনের পর দিন ওই যুবতীকে বিভিন্ন ধরনের অশ্লীল মেসেজ পাঠাচ্ছেন তিনি। এমনকি ঐ যুবতীর ভিডিও ফেসবুকে ভাইরাল করে দেওয়ার হুমকিও দিয়ে চলেছেন। একই সঙ্গে জোর করে তুলে নিয়ে গিয়ে বিয়ে করার হুমকিও দিয়েছেন যা অত্যন্ত ভয়ঙ্কর অভিযোগ। এই ঘটনা সামনে আসার সাথে সাথেই রাজনৈতিক মহলে তীব্র সমালোচনা শুরু হয়েছে।

সম্প্রতি ওই যুবতী অভিযোগ করেন শাহাদাত হোসেন নামের বেলগাছিয়ার এক তৃণমূল নেতা বহুদিন ধরেই তাঁকে উত্যক্ত করার জন্য মোবাইলে বিভিন্ন অশ্লীল মেসেজ পাঠাচ্ছেন। এমনকি অশ্রাব্য গালিগালাজ করে ভিডিও পাঠিয়ে হুমকিও দিয়েছেন। শুধু তাই না, দিনের-পর-দিন উত্ত্যক্ত করার মাত্রা বাড়িয়ে চলেছেন। এই ঘটনায় উক্ত যুবতী এবং তার পরিবার যথেষ্টই ভয় পেয়ে যায়। ওই যুবতী অভিযোগ করেছেন, অভিযুক্ত তৃণমূল নেতা শাহাদাত হোসেন তাঁকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে রেখেছেন।


দেশে যে কোনো দিন ব্যান হয়ে যেতে পারে হোয়াটস্যাপ। তাই এখন থেকে আমরা শুধুমাত্র টেলিগ্রাম ও সিগন্যাল অ্যাপে। প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার নিউজ নিয়মিতভাবে পেতে যোগ দিন –

টেলিগ্রাম গ্রূপটাচ করুন এখানে

সিগন্যাল গ্রূপটাচ করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

ওই তরুণী আরো অভিযোগ জানিয়েছেন, শাহাদাত হোসেন নিজেকে রাজ্যসভার সাংসদ শান্তনু সেনের ঘনিষ্ঠ বলে দাবি করে সমস্ত কান্ড ঘটিয়ে চলেছে। উক্ত যুবতী পুলিশের ভয় দেখালে তাঁকে বলা হয়, পুলিশ ওই তৃণমূল নেতার কিছুই করতে পারবেনা। এই ঘটনায় যুবতীসহ তাঁর পরিবারের সদস্যরাও অত্যন্ত ভয় পেয়ে যান। অন্যদিকে, শাহাদাত হোসেন নামে ওই তৃণমূল নেতাকে তৃণমূলের অনুষ্ঠান মঞ্চে স্বমহিমায় উপস্থিত থাকতে দেখা গিয়েছে। এদিন নির্যাতিতা যুবতী অভিযোগ করেছেন আতঙ্কিত হয়ে তিনি উল্টোডাঙা থানায় অভিযোগ জানালেও এখনো পর্যন্ত অভিযুক্তকে ধরার ব্যাপারে পুলিশ কোন রকম ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি।

অন্যদিকে, এই ঘটনা সামনে আসার সাথে সাথে বিরোধীরা তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন। শাসকদলের বিরুদ্ধে এই ঘটনা প্রসঙ্গে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে কিছু কিছু ব্যাক্তি শাসকদলের আশ্রয় নিয়ে বিভিন্ন অনৈতিক কাজ করে চলেছেন প্রতিনিয়ত। শাসকদলের উচিত এ ধরনের ব্যক্তিদের খুঁজে বার করে তাঁদের চরম শাস্তি দেওয়া। অন্যদিকে, রাজনৈতিক মহলের একাংশের মতে পুরসভার নির্বাচনের প্রাক্কালে এ ধরনের ঘটনা খুব স্বাভাবিকভাবেই শাসক দল তৃণমূলকে চরম অস্বস্তির সামনে দাঁড় করালো। আপাতত সম্পূর্ণ বিষয়টির ওপর নজর রাখবে ওয়াকিবহাল মহল।

আপনার মতামত জানান -

ট্যাগড
Top
error: Content is protected !!