এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > এবার শিক্ষক-শিক্ষিকাদের বদলির সমস্যা মেটাতে রাজ্য সরকারের নতুন পদক্ষেপ

এবার শিক্ষক-শিক্ষিকাদের বদলির সমস্যা মেটাতে রাজ্য সরকারের নতুন পদক্ষেপ



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্টদীর্ঘদিন ধরেই রাজ্যের শিক্ষক বদলি নিয়ে একটা জল্পনা চলছিল। পাশাপাশি বদলি নিয়ে ব্যাপক অসামঞ্জস্যতাও চোখে পড়ছিল। তাই শিক্ষক বদলি নিয়ে এবার নতুন পদক্ষেপ রাজ্য সরকারের। কার্যত বদলি সংক্রান্ত সমস্যা মেটাতে এবার একটি নতুন প্রকল্পের উদ্বোধন হলো আজ। কার্যত নবান্ন থেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই নতুন প্রকল্প প্রকাশ্যে আনলেন। জানা গিয়েছে, এই প্রকল্পের নাম রাখা হয়েছে উৎসশ্রী। কার্যত এই প্রকল্পের মাধ্যমে বদলি প্রক্রিয়া অনেক সহজ হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

সরকারি সূত্রে জানা যাচ্ছে, এই প্রকল্পের মাধ্যমে শিক্ষকরা চাইলে নিজের জেলায় বা বাড়ির কাছেই বদলির আবেদন করতে পারেন। বৃহস্পতিবার নবান্ন থেকে সাংবাদিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি জানিয়েছেন, মন্ত্রিসভার বৈঠকে আগেই এই প্রকল্পের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। সেই অনুযায়ী একটি নতুন পোর্টাল চালু করা হলো। যেখানে সমস্ত শিক্ষক-শিক্ষিকারা নিজের জেলায় বাড়ির কাছে যারা বদলি চান, তাঁরা আবেদন করতে পারেন। তবে এ ক্ষেত্রে সমস্যা থাকছে। সে কথা উল্লেখ করেন মুখ্যমন্ত্রী নিজেই।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

তিনি জানান, একটা স্কুলের সবাই যদি নিজের জেলায় বদলি হয়ে যান সেক্ষেত্রে স্কুলের শিক্ষা ব্যবস্থায় সমস্যা হতে পারে। তাই পোর্টালের মাধ্যমে যেমন স্কুলের দিকটাও নজরে রাখা হবে, ঠিক সেভাবেই শিক্ষক-শিক্ষিকার বদলির আবেদনের কথাও যথাযথভাবে বিচার করা হবে। কার্যত সমস্ত আবেদন খতিয়ে দেখে শিক্ষাদপ্তর বদলির সিদ্ধান্ত নেবে। এর আগেও বদলির ব্যাপারে মিউচুয়াল ট্রান্সফার করার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছিল। সেক্ষেত্রেও শিক্ষক-শিক্ষিকাদের আবেদন করতে হতো।

এবার নতুন পদ্ধতিতে বদলি সমস্যা অনেকটাই কাটবে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। আর সেই ক্ষেত্রে রাজ্য সরকারের উৎসশ্রী কতটা সফল হয়, সেটাই এখন দেখার। কার্যত তৃণমূল সরকার ছাত্র-ছাত্রীদের পরিপ্রেক্ষিতে বেশ কয়েকটি প্রকল্প চালু করেছে। এবার শিক্ষক-শিক্ষিকাদের জন্য নতুন প্রকল্প হাজির করা হয়েছে। তবে এই প্রকল্পের মাধ্যমে শিক্ষক শিক্ষিকারা কতটা উপকার পা সেটার দিকেই নজর রাখা হবে। কারণ প্রকল্পের মাধ্যমে উপকার হলে তবেই সেই প্রকল্প জনপ্রিয়তা পাবে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!