এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মেদিনীপুর > এবার রাজ্য বিজেপি সভাপতির অভিযোগের তীর সরাসরি রাজ্যের পুলিশের দিকে

এবার রাজ্য বিজেপি সভাপতির অভিযোগের তীর সরাসরি রাজ্যের পুলিশের দিকে



বরাবরই দেখা গেছে রাজ্য প্রশাসনের ওপর অত্যন্ত অখুশি থাকেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি ও সাংসদ দিলীপ ঘোষ। এর আগেও তিনি বিভিন্ন মন্তব্য করেছেন প্রশাসনকে ঘিরে। তবে এদিন তিনি পশ্চিমবঙ্গের প্রশাসনকে রীতিমতন হুশিয়ারি দিলেন। এদিন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ পুলিশকে রীতিমতন চ্যালেঞ্জের মুখে ফেলে দিয়েছেন। দিলীপ ঘোষ জানিয়েছেন, এবার থেকে যদি পুলিশি অত্যাচার বন্ধ না হয় তাহলে রাজ্যের প্রতিটি জায়গায় প্রতিটি থানা এবং এসপি অফিস বিজেপি কর্মী এবং নেতাদের দ্বারা ঘেরাও করা হবে।

আরো একবার পশ্চিমবঙ্গের পুলিশকে রীতিমত হুঁশিয়ারি দিলেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ। এদিন তিনি অভিযোগ করেছেন, রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় একনাগাড়ে বিজেপি কর্মীদের ওপর অত্যাচার হয়ে চলেছে এবং দিনদিন অত্যাচার এই অত্যাচারের পরিমাণ ক্রমশ বেড়ে উঠছে। এবার যদি এই পুলিশের অত্যাচার বন্ধ না হয়, তাহলে রাজ্য বিজেপি কর্মীরা পশ্চিমবঙ্গের সবকটি থানা এবং এসপি অফিস ঘেরাও করবে। এদিন মেদিনীপুরের একটি কর্মী সভা থেকে দিলীপ ঘোষ বিজেপি কর্মীদের এই মর্মে বার্তা দেন।

এদিন মেদিনীপুরের কর্মীসভা থেকে দিলীপ ঘোষ রাজ্য পুলিশের ওপর ক্ষোভ উগরে দিয়ে আরো বলেন, যেসব মহিলারা থানায় অভিযোগ জানাতে যাচ্ছে, তাঁদের ওপরেও হামলা করা হচ্ছে। অন্যদিকে, দিলীপ ঘোষের পুলিশের দিকে অভিযোগের আঙুল তুলে বলেন পশ্চিমবঙ্গের পুলিশ নিজেদের ওপর আস্থা হারিয়েছে। যে কারণে তাঁরা শান্তি স্থাপনের চেষ্টায় পুরোপুরি ব্যর্থ। আর তারপরেই দিলীপ ঘোষ এদিন রাজ্য পুলিশকে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, পরিস্থিতি বদল না হলে এবার ঘেরাওয়ের মুখোমুখি হতে হবে পুলিশ প্রশাসনকে।

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

এদিন দিলীপ ঘোষ এনআরসি, সিএএ এবং দিল্লির শাহীনবাগ নিয়ে দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির হয়ে বলেন, শাহীনবাগের মতন বিক্ষোভ আজ দেশের সর্বত্র। তবে দিলীপ ঘোষ মোদি সরকারের উপর আস্থা রেখে বলেন, নরেন্দ্র মোদী সবার কথা শুনবেন। ভারতবর্ষে এখনো গণতন্ত্র বিরাজ করছে। তবে দিলীপ ঘোষ এদিন পশ্চিমবঙ্গের উল্লেখ করে বলেন, এ রাজ্যে গণতন্ত্র নেই। কারণ হিসেবে দিলীপ ঘোষ জানান, পশ্চিমবঙ্গে বিজেপিকে রোড শো এবং সভা করতে দিতে পশ্চিমবঙ্গ সরকার নানা রকম বাধা সৃষ্টি করছে।

অন্যদিকে, রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ইতিমধ্যে অভিযোগ করেছেন দেশজুড়ে গণতন্ত্রের বড়ই অভাব। কিন্তু এদিন দিলীপ ঘোষ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই অভিযোগকে সম্পূর্ণ উড়িয়ে দিয়েছেন। অন্যদিকে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে, পশ্চিমবঙ্গে যত দিন যাচ্ছে ততই কাছে আসছে আগামী দিনের নির্বাচনসমূহ অর্থাৎ পুরনির্বাচন এবং বিধানসভা নির্বাচন। তার আগে রাজ্য বিজেপি সভাপতির অভিযোগ নিঃসন্দেহে পশ্চিমবঙ্গের রাজনৈতিক ক্ষেত্রে অন্য মাত্রা যোগ করতে চলেছে। আপাতত পশ্চিমবঙ্গের রাজনৈতিক পরিস্থিতি কোন দিকে মোড় নিচ্ছে, সেদিকে লক্ষ্য রাখবে ওয়াকিবহাল মহল।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!