এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > বামফ্রন্ট > এবার লকেট চট্টোপাধ্যায়কে নিজে সাংসদ এলাকায় ঢোকা থেকে আটকাতে বড়সড় হুমকি! জানুন বিস্তারিত

এবার লকেট চট্টোপাধ্যায়কে নিজে সাংসদ এলাকায় ঢোকা থেকে আটকাতে বড়সড় হুমকি! জানুন বিস্তারিত



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – কেন্দ্র সরকার আনীত নয়া কৃষি বিলের বিরুদ্ধে দেশজুড়ে ক্ষোভ- বিক্ষোভ, চাপান-উতোর অব্যাহত। পাঞ্জাবে বেশ কিছু কৃষক সংগঠন ইতিমধ্যেই হুঁশিয়ারি দিয়েছে যে, কেন্দ্রীয় সরকারের নয়া কৃষিবিল সে রাজ্যের যে সমস্ত সাংসদ সমর্থন জানিয়ে রাজ্যে ফিরবেন, তাঁদেরকে তারা গ্রামে ঢুকতে দেবেন না। এরপর অকালি দলের সাংসদ ও সেইসঙ্গে কেন্দ্রীয় খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ মন্ত্রী হরসিমরত কউর বাদল পদত্যাগ করেছেন।

এই ঘটনার পর এবার রাজ্যের সিপিআই (এমএল) লিবারেশন এবার একটি বিশেষ পরিকল্পনা নিল। প্রসঙ্গত, সিপিআই (এমএল) লিবারেশন দলটিও কেন্দ্রীয় সরকারের নয়া কৃষি বিলের ঘোর বিরোধী। এই দল সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে, হুগলি জেলায় কোন কর্মসূচি নিয়ে বিজেপি সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায় যখনই প্রবেশ করবেন, তখনই তাঁকে কালোপতাকা দেখিয়ে, তাঁর কুশপুতুল দাহ করে, তাঁকে অবরুদ্ধ করে দেবে এই দল। এ প্রসঙ্গে সিপিআই (এমএল) লিবারেশন দলের রাজ্য নেতা সজল অধিকারী জানিয়েছেন, ” চাষিকে ভাতে মারার কেন্দ্রীয় সরকারের নয়া কৃষি বিল আমরা মানি না। বহুজাতিক সংস্থাগুলিকে মুনাফা লোটার সুযোগ করে দেওয়া হচ্ছে। এর ফলে এ রাজ্যে কৃষিপণ্যের বিপণন ব্যবস্থা ভেঙে পড়বে। বাজার, কিসান মান্ডির কোনও ভূমিকা থাকবে না। হুগলির সাংসদ জেলায় ঢুকলেই আমরা তাঁকে অবরুদ্ধ করে দেব। যতদিন না নয়া বিল প্রত্যাহার করা হয়, আমাদের আন্দোলন চলবে। ’’

অন্যদিকে কেন্দ্রের নয়া কৃষি বিলের প্রতিবাদ জানিয়ে আগামী ২৫ শে সেপ্টেম্বর রাজ্যের সমস্ত জাতীয় সড়ক অবরোধের সিদ্ধান্ত নিল বামপন্থী কৃষক সংগঠনগুলি। এ প্রসঙ্গে ফরওয়ার্ড ব্লক দলের রাজ্য সম্পাদক নরেন চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছেন যে, সমস্ত বাম মনোভাবপন্ন দলগুলি কেন্দ্রের নয়াকৃষি কৃষি বিলের প্রতিবাদে এদিন রাস্তায় নামতে চলেছে। রাজ্যের সমস্ত জাতীয় সড়ক এদিন অবরোধ করা হবে। কেন্দ্রের প্রতি তাঁর অভিযোগ, এই নতুন কৃষি আইন প্রবর্তিত হলে রাজ্যের কৃষি বিপণন ব্যবস্থা সম্পূর্ণ ভেঙে পড়বে। বহুজাতিক সংস্থাগুলিকে মুনাফা লাভের সুযোগ করে দিচ্ছে কেন্দ্র সরকার।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

আবার, এ প্রসঙ্গে হাওড়া জেলা বামফ্রন্টের আহ্বায়ক ও সেইসঙ্গে সিপিএমের জেলা সম্পাদক বিপ্লব মজুমদার জানিয়েছেন যে, সম্প্রতি হাওড়া জেলার বিভিন্ন ব্লকে নয়া কৃষি বিলের বিরুদ্ধে আন্দোলন করেছেন তাঁরা। এবার সারা দেশজুড়ে জাতীয় সড়ক অবরোধের বিশেষ করে কর্মসূচি পালনের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তাঁরা। বিভিন্ন স্থানে জাতীয় সড়ক অবরোধ করা হবে সেদিন। ফরওয়ার্ড ব্লক নেতা ফরিদ মোল্লা ও এই দলের কৃষক সংগঠন অগ্রগামী কিসানসভার জেলা সম্পাদক অসিত কুমার সাউ এ বিষয়ে অনুরূপ বক্তব্য রেখেছেন।

তবে বিজেপি সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায় সিপিআই (এমএল) লিবারেশন দলের হুঁশিয়ারিকে তেমন গুরুত্ব দিতে নারাজ। এ প্রসঙ্গে তাঁর বক্তব্য, ” তৃণমূল, সিপিএম, লিবারেশনের মতো দলগুলো কৃষিক্ষেত্রে দালাল আর ফড়েদের রাজত্ব বজায় রাখতে মরিয়া। কারণ ওরাই তো নেতাদের পকেট ভরায়। লিবারেশন তো ও সব বলবেই। চাষির অধিকার সুরক্ষিত করতে এবং চাষি যাতে ফসলের ভাল দাম পান, তা নিশ্চিত করতে কেন্দ্রের বিজেপি সরকার বদ্ধপরিকর।’’

 

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!