এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > এবার আপের লক্ষ্য সারাদেশে পরিধি বাড়ানো। লক্ষ্য সফল করতে ইতিমধ্যে আপের ফোন নং এসে গেছে

এবার আপের লক্ষ্য সারাদেশে পরিধি বাড়ানো। লক্ষ্য সফল করতে ইতিমধ্যে আপের ফোন নং এসে গেছে



আগামীকাল অর্থাৎ রবিবার রামলীলা ময়দানে জনতার মাঝখানে থেকে মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেবেন বলে খবর অরবিন্দ কেজরিওয়াল। দিল্লি বিধানসভা নির্বাচনে আম আদমি পার্টি বিরোধী দল বিজেপিকে সম্পূর্ণরূপে ধরাশায়ী করেছে বিপুল ভোটে। দিল্লিতে উন্নয়নের ডঙ্কা বাজিয়ে আপ তাঁর ঝুলিতে ভোট সংগ্রহ করেছে। তবে রাজনৈতিক মহলের খবর, বিধানসভা নির্বাচনে জিতে আপ এবার ব্যাপকভাবে দেশজুড়ে নিজেদের পরিধি বাড়ানোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। এর সঙ্গে যুক্ত হয়েছে আরেকটি রাজনৈতিক জল্পনা, যেখানে বলা হচ্ছে আপ এবার সদস্য সংগ্রহ অভিযানে নামছে।

এবারের দিল্লি বিধানসভা নির্বাচনে অরবিন্দ কেজরিওয়ালের দল পর পর তিনবার বিধানসভা নির্বাচন জিতে হ্যাটট্রিক করলেন। যেখানে বিজেপি শিবিরের পক্ষ থেকে প্রায় 48 টি আসনের দাবি করা হয়েছিল, সেখানে প্রায় ঝড়ের বেগে বিজেপির এই মনোরথ শুরুতেই থামিয়ে দেয়। মাত্র 7 টি আসন নিয়ে বিজেপিকে সন্তুষ্ট হতে হয়। অন্যদিকে, বিজেপি দিল্লীর আপ সরকারকে ফেলার জন্য পুরো ক্যাবিনেটকে কাজে লাগিয়ে দিয়েছিল। কিন্তু তাঁরাও এসে কিছু করতে পারেননি। অন্যদিকে, আগামীকাল রয়েছে অরবিন্দ কেজরিওয়ালের শপথ। আর তার মাঝেই উঠেছে রাজনৈতিক গুঞ্জন। খবর, আমআদমি পার্টির পক্ষ থেকে এবার সারাদেশে তাঁদের পরিধি বাড়ানোর জন্যও সদস্য সংগ্রহ অভিযান শুরু হচ্ছে। এ কথা জানাচ্ছেন স্বয়ং আপের বিদায়ী মন্ত্রী গোপাল রাই।

এদিন সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকার এর মধ্যে দিয়ে দিল্লির বিদায়ী মন্ত্রী গোপাল রাই জানিয়েছেন, সারা দেশের জন্য আপ একটি নম্বর চালু করেছে। নম্বরটি হলো 9871010101। এই নাম্বারে যদি মিসকল দেওয়া হয়, তাহলে এই দেশের মানুষ আম আদমি পার্টির সহযোদ্ধা হতে পারবেন। আম আদমি পার্টির তরফ থেকে বলা হয়েছে, ‘দেশ গড়ার অভিযানে’ সামিল করার জন্যই সাধারণ মানুষকে ডাক দেওয়া হচ্ছে। অন্যদিকে এদিন গোপাল রায় আরও জানিয়েছেন, এবার আপের নতুন সিদ্ধান্ত, পাঞ্জাব সহ বেশ কয়েকটি রাজ্যে তাঁরা আলাদাভাবে লড়াই করবে।


ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

অন্যদিকে সূত্রের মাধ্যমে জানা গেছে, রবিবার মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে অরবিন্দ কেজরিওয়ালের শপথ এর পাশাপাশি আপের জাতীয় কর্মসমিতির বৈঠক হতে পারে। আর এই কর্মসমিতির বৈঠকে সারাদেশ জুড়ে আপের কর্মকাণ্ডের পরিধি বাড়ানোর ব্যাপারটি নিয়ে আলোচনা হবে বলে জানা গেছে। এ প্রসঙ্গে গোপাল রাই আরও জানিয়েছেন, ‘রবিবারের মিটিংয়ের প্রধান এজেন্ডা হবে সারা দেশে প্রচুর পরিমাণে স্বেচ্ছাসেবক এবং পার্টি ক্যাডার নিয়োগ করা, যাতে রাষ্ট্রীয় স্তরে আমাদের সাংগঠনিক কাঠামো বৃদ্ধি পায়।’ অন্যদিকে গোপাল রাই বিজেপির বিরুদ্ধে এদিন তীব্র সমালোচনা করেন।

উল্লেখ্য, বিজেপি এবার দিল্লি বিধানসভা নির্বাচনে সম্পূর্ণ মেরুকরণের রাজনীতি প্রয়োগ করে নির্বাচন জেতার কথা ভেবেছিলেন। আর এই চিন্তাভাবনাকে আপ মন্ত্রী ‘নেগেটিভ’ আখ্যা দিয়েছেন। অন্যদিকে, এদিন আমআদমি পার্টির পক্ষ থেকে গোপাল রাই জানান, দিল্লি থেকে আপ লড়াই শুরু করবে দেশের সর্বত্র। এবং তাঁরা সব সময় পজিটিভ ন্যাশনালিজম এর জন্যই লড়াই করবে। অন্যদিকে এদিন তিনি দাবি করেন, দিল্লিতে আপ এর বিধানসভা নির্বাচনের সফলতা সারাদেশের কাছে উদাহরণ হয়ে থাকবে।

অন্যদিকে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা আগেই দাবি করেছিলেন, দিল্লি বিধানসভা নির্বাচনে আপ যেভাবে জয়লাভ করেছে পরবর্তীতে তাঁরা দেশের অন্যত্র তাঁদের পরিধি যে বাড়াবে সে বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই। এ দিন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের অনুমান সঠিক প্রমাণ করে আপ তাঁদের পরবর্তী সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে বলে মনে করা হচ্ছে। অন্যদিকে, দিল্লিতে শুধুমাত্র উন্নয়নের ওপর জোর দিয়ে যেভাবে অরবিন্দ কেজরিওয়াল আম আদমি পার্টির ধ্বজা উত্তরণ করলেন, তা সারা দেশের কাছে উদাহরণ হয়ে থাকবে বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহলের একাংশ। উল্লেখ্য, দিল্লি বিধানসভায় 70 টি আসনের মধ্যে 62 টি আসনেই অরবিন্দ কেজরিওয়ালের দল ব্যাপক ভোটে জয়লাভ করেছে।

আপনার মতামত জানান -

ট্যাগড
Top
error: Content is protected !!