এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > বিজেপি > এ বছরেই দায়িত্ব থেকে সরে যেতে পারেন দিলীপ ঘোষ, স্থলাভিষিক্ত হতে পারেন এই হেভিওয়েট

এ বছরেই দায়িত্ব থেকে সরে যেতে পারেন দিলীপ ঘোষ, স্থলাভিষিক্ত হতে পারেন এই হেভিওয়েট



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – চলতি বছরেই বিজেপির রাজ্য সভাপতির দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি নিতে পারেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ, এমন একটা খবর ভেসে আসছে গেরুয়া সূত্রে। জানা গেছে, এ বছরের নভেম্বর মাসে তাঁর রাজ্য সভাপতি পদের মেয়াদ শেষ হতে চলেছে। তাই পদ থেকে সরে যাবেন তিনি। তাঁর স্থলে আসতে পারেন বোলপুরের বিজেপি প্রার্থী ডঃ অনির্বাণ গাঙ্গুলী। এছাড়াও এই পদে আসার সম্ভাবনা রয়েছে রায়গঞ্জের বিজেপি সাংসদ ও প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী দেবশ্রী চৌধুরীর, ইংলিশ বাজারের বিজেপি বিধায়ক শ্রীরূপা মিত্র চৌধুরীর। তবে, অনির্বাণ বাবুর পাল্লা এদিক থেকে অনেকটাই ভারী।

এই তিনজনের মধ্যে ডঃ অনির্বাণ গাঙ্গুলী অনেকটা এগিয়ে আছেন। কারণ হিসেবে দলের অন্যতম শিক্ষিত মুখ তিনি। দিন দিন বাড়ছে তাঁর জনপ্রিয়তা। সুবক্তা হিসেবেও তাঁর জনপ্রিয়তা ব্যাপক। দলের কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের সঙ্গে তাঁর ভালো রকম যোগাযোগ রয়েছে। আবার বিজেপির নীতিনির্ধারন কমিটির সদস্যও তিনি। অনেকেই মনে করছেন, বিজেপির রাজ্য সভাপতি পদে তিনিই যোগ্য ব্যক্তি। তাঁকে নিয়ে লড়াই করলে আপামর জনগণের মনে দাগ কাটতে পারবে বিজেপি।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

প্রসঙ্গত, বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের সময়ে বিজেপির যথেষ্ট সাফল্য এসেছে। ২০১৫ সালে তিনি দায়িত্ব নেওয়ার পর এখন রাজ্যের প্রধান বিরোধীদল হয়ে উঠেছে বিজেপি লোকসভা, বিধানসভাতে আসন বেড়েছে বিজেপির। কিন্তু এ বছরই মেয়াদ শেষ হতে চলেছে তাঁর। তবে অনেকে বলছেন যে, তাঁর দ্বিতীয় টার্ম শুরু হয়েছিল ২০১৯ সাল থেকে। তাই ২০২২ সাল পর্যন্ত তিনি সভাপতির পদে থাকতেই পারেন।

তবে, সম্প্রতি বিজেপি নেতা কর্মীদের একাংশ রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের উপর তেমন একটা সন্তুষ্ট নন। জানা যাচ্ছে, তাঁর তীক্ন বক্তব্যের কারণে তার ওপর ক্ষুব্ধ কিছু ব্যক্তি। তাই অনেকে সভাপতি বদলের দাবি জানিয়েছেন। বিজেপি নেতা তথাগত রায় তাঁদের মধ্যে একজন। এ কারণেই বিজেপির রাজ্য সভাপতির দায়িত্ব থেকে অপসারণ করা হতে পারে দিলীপ ঘোষকে। তাঁর স্থলে আসতে পারেন নতুন মুখ। যাদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি সম্ভাবনা রয়েছে ডঃ অনির্বাণ গাঙ্গুলীর।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!