এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > বিজেপি > দুপুরেই রাজ্যে জেপি নাড্ডা, দলীয় কর্মীদের পাশে থাকতে বড় পদক্ষেপ!

দুপুরেই রাজ্যে জেপি নাড্ডা, দলীয় কর্মীদের পাশে থাকতে বড় পদক্ষেপ!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – তৃণমূলের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছিল, বিজেপি যদি রাজ্যের ক্ষমতা দখল করে, তাহলে বর্তমানে ভোট প্রচার করতে আসা প্রধানমন্ত্রী থেকে শুরু করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, এমনকি বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতাদের আর রাজ্যে আসতে দেখা যাবে না। এক্ষেত্রে তারা বাইরে থেকে বাংলা পরিচালনা করবেন। হয়ত বা তৃণমূলের সেই কথায় বিশ্বাস করেছিলেন সাধারন মানুষ। আর সেই কারণে বিজেপির পক্ষ থেকে নরেন্দ্র মোদী থেকে শুরু করে অমিত শাহ, এমনকি জেপি নাড্ডারা বারবার রাজ্যে এসে প্রচার করলেও তেমনভাবে সাড়া মেলেনি। ভোটের ফলাফলে ইতিমধ্যেই তা স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে।

যেখানে দু’শোর বেশি আসন দখলের স্বপ্ন দেখা ভারতীয় জনতা পার্টি 77 টি আসন দখল করে কিছুটা হলেও হতাশ হয়ে পড়েছেন। অন্যদিকে দু’শোর বেশি আসন দখল করে তৃতীয়বার রাজ্যের ক্ষমতায় বসতে চলেছে তৃণমূল কংগ্রেস। আর ফলাফল প্রকাশ হওয়ার পর থেকেই বিভিন্ন জায়গায় রাজনৈতিক সংঘর্ষের ঘটনার খবর সামনে আসতে শুরু করেছে।

তবে ভোটের প্রচারে তৃণমূলের পক্ষ থেকে বিজেপির বহিরাগত নেতারা ভোটে জিতে গেলে আর বাংলার দিকে নজর দেবে না বলে যে অভিযোগ করা হয়েছিল, তা যে কিছুটা হলেও ভিত্তিহীন হতে চলেছে, তা বলাই যায়। বলা বাহুল্য, এমনিতেই নির্বাচনে খারাপ ফলাফল করার কারণে কিছুটা হলেও হতাশ বিজেপি নেতা কর্মীরা। তবে রাজ্যে বিরোধী দলের আসন দখল করেছে ভারতীয় জনতা পার্টি।

তাই সামনের দিনে লড়াইয়ে যাতে নেতা কর্মীরা হতাশ হয়ে পড়েন এবং দলীয় নেতাকর্মীরা যাতে তৃণমূলের আক্রমণের ভয়ে পিছু হটে না যান, তার জন্য এবার রাজ্যে আসতে চলেছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা। সূত্রের খবর, আজ দুপুর দেড়টা নাগাদ কলকাতা বিমানবন্দরে নামবেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি। আর সেখান থেকেই সরাসরি ফলাফল বেরোনোর পর যে সমস্ত দলীয় কর্মীরা মারা গিয়েছেন, তাদের বাড়িতে গিয়ে নিহতদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করবেন তিনি।

জানা গেছে, প্রথমে দুপুর তিনটে নাগাদ দক্ষিণ 24 পরগনার সোনারপুরে নিহত দলীয় কর্মীর বাড়িতে যাবেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি। সেখানে তার পরিবারের সঙ্গে দেখা করে বেলা সাড়ে চারটার সময় তিনি বেলেঘাটায় উপস্থিত হবেন। আর সেখানেও নিহত দলীয় কর্মীর পরিবারের সঙ্গে দেখা করবেন জেপি নাড্ডা।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

অর্থাৎ নির্বাচনে পরাজয় হলেও, দলের নেতা-কর্মীদের প্রতি যেভাবে আক্রমণ নেমে আসছে, তাতে বিরোধী শক্তি হিসেবে যাতে তৃণমূলের ওপর আরও চাপ বাড়ানো যায়, তার জন্য প্রথম থেকেই কৌশল নিতে শুরু করল ভারতীয় জনতা পার্টি। আর সেই কারণেই দলের নিহত নেতাকর্মীদের পরিবারের পাশে থাকতে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি তড়িঘড়ি রাজ্যে আসতে চলেছেন বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

পর্যবেক্ষকরা বলছেন, ভোটের ফলাফল প্রকাশের পর বিজেপি নেতা কর্মীরা যথেষ্ট হতাশ। তবে যে সমস্ত জায়গায় তৃণমূল কংগ্রেস জয়লাভ করেছে, সেখানে বিজেপি নেতা কর্মীদের ওপর হামলার ঘটনা ঘটতে শুরু করেছে। যার পরিপ্রেক্ষিতে আগামীকাল বুধবার গোটা দেশজুড়ে ধর্না কর্মসূচি নিয়েছে ভারতীয় জনতা পার্টি। যেখানে বাংলায় ক্ষমতা দখলের পর থেকেই তৃনমূল তাদের জঘন্য রাজনীতি শুরু করেছে বলে তুলে ধরার চেষ্টা করবে গেরুয়া শিবির।

তবে দলীয় নেতাকর্মীদের উজ্জীবিত করা এবং তাদের পাশে থাকা এখন প্রধান কাজ বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতাদের। তাই ভোটের ফলাফল বের হওয়ার পর থেকেই যেভাবে নেতা কর্মীরা আক্রান্ত এবং নিহত হচ্ছেন, তাতে সেই সমস্ত নেতাকর্মীদের পাশে থাকতে এবার রাজ্যে আসতে চলেছেন জেপি নাড্ডা। আজ দিনভর নিহত নেতাকর্মীদের পরিবারের পাশে থেকে এবং দলীয় নেতাকর্মীদের চাঙ্গা করতে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি কি বার্তা দেন, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!