এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > দুই বন্ধু তারকা এবার তৃণমূল বিজেপির হাত ধরে মুখোমুখি, লড়াই জমে ওঠার ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে

দুই বন্ধু তারকা এবার তৃণমূল বিজেপির হাত ধরে মুখোমুখি, লড়াই জমে ওঠার ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – রাজনীতিতে তারকা সমাবেশ দেখা গেছে দীর্ঘদিন ধরেই। রাজ্যের তৃণমূল সরকার আসার পর টালিগঞ্জের তারকাদের ঢল নামে শাসক দলে যা এখনো বর্তমান। তৃণমূল তারকাদের মধ্যে অন্যতম ছিলেন রাজ চক্রবর্তী এবং রুদ্রনীল ঘোষ। তাঁদের বন্ধুত্ব রাজনীতির আঙিনা থেকে নয়, দুজনের বন্ধুত্ব তখন থেকে যখন টালিগঞ্জে জায়গা তৈরি করার জন্য স্ট্রাগল করছিলেন। কিন্তু আজ রাজনীতির প্যঁচপয়জারে এই দুই তারকার বন্ধুত্বে চির ধরতে শুরু করেছে। বিধানসভা নির্বাচনের ঠিক আগে আগে রুদ্রনীল ঘোষ তৃণমূল ছেড়ে যোগ দিলেন গেরুয়া শিবিরে। অতএব রাজ চক্রবর্তী এবং রুদ্রনীল ঘোষ এবার মুখোমুখি বিপরীত রাজনৈতিক দলের হাত ধরে।

পাশাপাশি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রার্থী তালিকায় এবার দেখা গেছে একঝাঁক নতুন মুখ। যাদের মধ্যে অনেকেই টালিগঞ্জের তারকা। রুদ্রনীল ঘোষের কাছে তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা নিয়ে জানতে চাওয়া হলে তিনি জানান, রাজনীতিতে নতুন মুখ আসলেও সমাজের গ্রহণযোগ্যতা না থাকলে ভোটের প্রার্থী হিসেবে দাঁড়ানো উচিত নয়। পাশাপাশি রুদ্রনীল জানিয়েছেন, বিভিন্ন এলাকায় যারা এতদিন জনগণের জন্য কাজ করেছেন তাঁরা এবার টিকিট পেলেননা। সেক্ষেত্রে নতুন মুখ মানুষ কিভাবে মেনে নেবে, তা নিয়ে প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে। পাশাপাশি এই তালিকার ফলে তৃণমূলের যে বিপর্যয় হবে সে ব্যাপারে নিশ্চিত রুদ্র এবং এই বিপর্যয়ের দায় চাপিয়েছেন রুদ্র তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঘাড়ে।


ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

প্রসঙ্গত শুক্রবার তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা প্রকাশ হবার পরেই দেখা গেছে তৃণমূলের অন্দরে ব্যাপক ক্ষোভ। ইতিমধ্যেই হাওড়া থেকে জটু লাহিড়ী টিকিট না পেয়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। পাশাপাশি শীতল সর্দার, রবীন্দ্রনাথ ভট্টাচার্যসহ টিকিট না পাওয়ার জন্য ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। ইতিমধ্যে জানা গিয়েছে এই শীতল সর্দার, সোনালী গুহ বিজেপিতে যাচ্ছে্ন। এ প্রসঙ্গে রুদ্রনীল প্রশ্ন তুলেছেন, যদি দু’বছর ধরে রিসার্চ করে প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করা হয়, তাহলে চতুর্দিকে এত বিক্ষোভ হচ্ছে কেন? এ প্রসঙ্গে রুদ্রনীল দলের মধ্যে সমন্বয়ের অভাব রয়েছে বলে দাবি করেছেন। অন্যদিকে রাজনীতির ময়দানে এবার প্রথম প্রার্থী হিসেবে আসতে চলেছেন রুদ্রনীলের বন্ধু পরিচালক রাজ চক্রবর্তী।

তা নিয়েও রুদ্রনীল সুস্পষ্ট বার্তা দিয়েছেন। বন্ধুত্বের চির ধরার প্রশ্ন উঠতে রুদ্র জানান, রাজনৈতিক মতাদর্শ না মিললেও বন্ধুত্বে ফাটল ধরার কোন প্রশ্ন নেই। একে অপরের বিরুদ্ধে হয়তো ভিন্নমত পোষণ হবে, কিন্তু তাতে পছন্দের অমিল হওয়ার কোনো প্রশ্ন নেই। তবে রাজনীতির ময়দানে যুদ্ধ হবার ইঙ্গিত দিয়েছেন রুদ্রনীল। এ প্রসঙ্গে পরিচালক রাজ চক্রবর্তীর কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি এ ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করেননি। সময় যতই বাড়ছে, ততোই বাংলার আকাশে রাজনৈতিক উত্তাপ বেড়ে চলেছে। আর তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা প্রকাশ হওয়ার পর বেশ কয়েক গুণ এই উত্তাপ বেড়ে গিয়েছে। রাজনৈতিক মহল কিন্তু তৃণমূলের বিপর্যয়ের ব্যাপারটি পুরোপুরই উড়িয়ে দিচ্ছেননা। দল ভাঙার প্রবণতা কিন্তু বৃদ্ধি পাচ্ছে।

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!