এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > দলনেত্রীর আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে ধর্ম আর উৎসব নিয়ে বড় পন্থা নুসরতের, এবার নিলেন কোন পদক্ষেপ?

দলনেত্রীর আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে ধর্ম আর উৎসব নিয়ে বড় পন্থা নুসরতের, এবার নিলেন কোন পদক্ষেপ?



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট বর্তমান রাজনৈতিক আবহে ধর্মীয় রাজনীতির বাহুলতা দেখা যাচ্ছে বেশি। সাধারণ মানুষও রীতিমত দিশাহারা এই প্রকার রাজনীতিতে বলে মনে করা হচ্ছে।  এই রকম পরিস্থিতিতে অবস্থার কিছুটা বদল আনার চেষ্টা করলেন সেলিব্রিটি সাংসদ নুসরাত জাহান। নুসরত জাহান একজন জাঁদরেল সুন্দরী নায়িকা হিসেবে পরিচিত টলিউডে। এহেন সুন্দরী নায়িকা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত ধরে প্রবেশ করেন বাংলার রাজনীতিতে।

পরবর্তীতে বসিরহাটের সেলিব্রিটি সাংসদ হিসেবেও পরিচিত হন তিনি। নুসরত জাহান ধর্মের দিক থেকে একজন মুসলিম। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যেভাবে ধর্মনিরপেক্ষতার প্রচার করে থাকেন, সেই প্রচারে সারা দিয়ে নুসরত জাহান নিজেও একইভাবে এবার ধর্মনিরপেক্ষতার প্রচারের স্বার্থে পদক্ষেপ নিলেন। সম্প্রতি লোকনাথ বাবার জন্মদিনে নুসরত জাহান পৌঁছে গেলেন উত্তর 24 পরগনার কচুয়ায়। কচুয়া লোকনাথ বাবার জন্মস্থান।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

এই জায়গাটি একটি প্রসিদ্ধ তীর্থস্থান হিসেবেও বাংলায় পরিচিত। কচুয়াতে গিয়ে লোকনাথ বাবাকে প্রণাম জানান নুসরত জাহান। এর আগেও নুসরত জাহানকে দুর্গাপুজো, ঈদ, রথ ইত্যাদি উৎসবে সম্প্রীতির বার্তা দিতে দেখা গেছে। নুসরত জাহান বরাবরই বলে এসেছেন, ঈশ্বর এক এবং অদ্বিতীয়। এবং এদিন কচুয়া থেকে নুসরত জাহান জানালেন, কোন ধর্মেই ভেদাভেদ ও হানাহানির কথা বলা হয়নি। নুসরাত বরাবরই বিতর্কে থেকেছেন। সাম্প্রতিককালে তিনি গেরুয়া শিবিরের বিরুদ্ধে বহু জায়গায় চড়া সুরে আক্রমণ শানান।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোডী যখন টীকটক্সহ একগুচ্ছ চীনা অ্যাপ বন্ধ করে দেন তখনও টিকটকের স্বার্থে মুখ খোলেন তিনি। যা নিয়ে বিতর্কও কম হয়নি। সম্প্রতি নুসরত রাজ্যসভার মুখপত্র হিসেবেও মনোনীত হয়েছেন। তবে বিশেষজ্ঞদের মতে, নুসরত যেভাবে তৃণমূল দলনেত্রীর আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে প্রচার চালাচ্ছেন, তা যে একুশের বিধানসভার নির্বাচনের কথা ভেবেই হচ্ছে তা নিশ্চিন্তে বলা যায়। তবে ধর্মনিরপেক্ষতার যে বার্তা নুসরত বলছেন, তা যে যথেষ্ট প্রশংসাজনক, তা নিয়ে কোন দ্বিমত নেই কারোর।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!