এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > দলবদলের হাত ধরে শেষবেলায় বড় ভাঙন গেরুয়া শিবিরে, রাজনৈতিক মহলে তীব্র সমালোচনা

দলবদলের হাত ধরে শেষবেলায় বড় ভাঙন গেরুয়া শিবিরে, রাজনৈতিক মহলে তীব্র সমালোচনা



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – আর হয়ত কিছুক্ষণ পরেই প্রকাশিত হবে তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা। কিন্তু তার আগেই বড় চমক। রাজনৈতিক তৎপরতার পাশাপাশি রাজ্যে চলছে দলবদলের তৎপরতা। আর সেই দলবদলের হাত ধরেই এবার গেরুয়া শিবির থেকে তৃণমূলে পা দিলেন হেভিওয়েট বিজেপি নেতা উজ্জ্বল চৌধুরী। খুব স্বাভাবিকভাবেই এই ঘটনায় শুরু হয়েছে তীব্র জল্পনা রাজনৈতিক মহলে। মনে করা হচ্ছে, এই দলবদল তৃণমূলের পক্ষ থেকে গেরুয়া শিবিরে বড় ধাক্কা।

এদিন তৃণমূল ভবনে রাজ্যের মন্ত্রী শশী পাঁজার হাত থেকে তৃণমূলের পতাকা হাতে তুলে নেন বিজেপি থেকে আসা নেতা উজ্জ্বল। প্রসঙ্গত, এই উজ্জ্বল চৌধুরী বিজেপির এস সি মোর্চার রাজ্য সহ-সভাপতি। পাশাপাশি মালদার জেলা পরিষদের সদস্যও তিনি। অন্যদিকে জল্পনা তুঙ্গে উঠেছে, উজ্জ্বল চৌধুরীর টিকিট পাওয়া নিয়ে। শোনা যাচ্ছে, উজ্জ্বল চৌধুরীকে মালদা না হলেও উত্তরবঙ্গের কোন আসনে দেখা যেতে পারে। প্রার্থী তালিকা ঘোষণা ঘোষণার পূর্বে উজ্জল চৌধুরি এই যোগদান রাজনীতিতে যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলে দেখা করা হচ্ছে।


ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

খুব স্বাভাবিকভাবেই মালদার বুকে বিজেপির ঘরে ভাঙন ধরানো হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। অন্যদিকে মালদার বিজেপির জেলা সভাপতি গোবিন্দ চন্দ্র মন্ডল উজ্জ্বল চৌধুরীর দল ছাড়াকে কোনোভাবেই মানতে পারছেন না বলে জানিয়েছেন। পাশাপাশি উজ্জ্বল চৌধুরি এদিন তৃণমূলে যোগ দিয়ে জানিয়েছেন, গেরুয়া শিবিরে থেকে তিনি কাজ করতে পারছিলেন না। তাই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে উন্নয়নের কাজে সামিল হওয়ার জন্যই তৃণমূলে এসেছেন।

প্রসঙ্গত, একুশের নির্বাচনের ভোটের সায়াহ্নে এসে গেরুয়া শিবিরের এই ভাঙন যথেষ্ট অস্বস্তিতে ফেলেছে রাজ্য বিজেপিকে বলে মনে করা হচ্ছে। একুশের লড়াই যখন তুঙ্গে, তখন মালদার বিজেপির ঘরে এই ভাঙন খুব স্বাভা্বিকভাবেই গেরুয়া শিবিরের অন্দরেও ব্যাপক গুঞ্জনের সৃষ্টি করেছে। এই যোগদান তৃণমূলের আত্মবিশ্বাস অনেকটাই বাড়িয়ে দিল বলে দাবি রাজনৈতিক মহলের অনেকেরই। আপাতত এই ধাক্কা সামলে বিজেপি তাঁদের লড়াইতে কতটা টিকে থাকতে পারে, সেটাই এখন দেখার।

 

আপনার মতামত জানান -

ট্যাগড
Top
error: Content is protected !!