এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > দলের সঙ্গে দূরত্ব কি ক্রমশ বাড়ছেই? শুভেন্দু-অনুগামীদের সমান্তরাল কর্মসূচি নিয়ে তীব্র জল্পনা

দলের সঙ্গে দূরত্ব কি ক্রমশ বাড়ছেই? শুভেন্দু-অনুগামীদের সমান্তরাল কর্মসূচি নিয়ে তীব্র জল্পনা



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট –আশা করা হয়েছিল, তিনি দলে কোনো গুরুত্বপূর্ণ জায়গা পাবেন। কিন্তু তেমন ভাবে তাকে কোনো জায়গা দেওয়া হয়নি। শুধুমাত্র কোর কমিটির সদস্য করা হয়েছে। উল্টে যে সমস্ত জেলা তার হাতে ছিল, সেই সমস্ত জেলা থেকে পর্যবেক্ষক পদ সরিয়ে দিয়ে শুভেন্দু অধিকারীর ডানা অনেকটাই ছেটে দিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস বলে দাবি করেন সমালোচক মহলের একাংশ। পরবর্তী সময়কালে সেইভাবে দল অথবা সরকারের তেমন কোনো কর্মসূচিতে উপস্থিত হতে দেখা যায়নি রাজ্যের পরিবহনমন্ত্রীকে। আর‌ এরপর থেকেই তীব্র জল্পনা তৈরি হয়েছে যে, তাহলে কি এবার নিজের মত করে কোনো রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত নিতে চলেছেন শুভেন্দু অধিকারী?

বর্তমানে এই জল্পনা রাজনীতিতে চরম আকার ধারণ করেছে। আর তারই মাঝে শুভেন্দু অধিকারীর অনুগামীদের সমান্তরাল কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে তৃণমূলে নানা গুঞ্জন তৈরি হতে শুরু করল। সূত্রের খবর, এবার সুবর্ণরেখা নদীর জলে প্লাবিত রামনগর 1 ব্লকের বাঁধিয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের বেশ কয়েকটি গ্রামের দুর্গতদের জন্য ত্রাণ পাঠালেন শুভেন্দু অধিকারী। যেখানে ত্রান এবং ত্রিপল দিয়ে শুভেন্দুবাবুর ছবি সহ পোস্টার ঝুলিয়ে “আমরা দাদার অনুগামী” লেখা টি শার্ট পড়ে তৃণমূল কর্মীরা তা বিলি করেন। আর তৃণমূল কর্মীদের এই উদ্যোগ দেখে নতুন করে জল্পনা তৈরি হয়েছে।

যেখানে তৃণমূলে শেষ কথা বলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, সেখানে শুভেন্দু অধিকারীর ছবি থাকলেও, কেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি নেই! তা নিয়ে তৈরি হয়েছে প্রশ্ন। তাহলে কি দলের সঙ্গে দূরত্ব তৈরি করছেন শুভেন্দুবাবু? আর তাই দুর্গত মানুষদের কাছে ত্রাণ পাঠিয়ে নিজের অনুগামীদের দিয়ে এই কাজ করলেন তিনি? একাংশের মতে, শুভেন্দুবাবু এভাবে মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে পরোক্ষে দলকে বার্তা দিতে চাইছেন যে, তিনি এবার অন্য কোনো পদ্ধতি অবলম্বন করছেন। যদিও বা এই ব্যাপারে শুভেন্দু অধিকারীর তরফ থেকে এখনও কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। কেননা তাঁর শেষ করা মন্তব্য অনুযায়ী জানা গেছে, তিনি তৃণমূলে আছেন এবং তৃণমূলেই থাকবেন।

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

তবে মুখে এক কথা বললেও, কাজে যেভাবে নিজের অনুগামীদের দিয়ে দুর্গত মানুষদের পাশে দাড়িয়ে নিজের মত করে কর্মসূচি চালাচ্ছেন শুভেন্দু অধিকারী, তাতে নিঃসন্দেহে গুঞ্জন বাড়ছে। এদিন এই প্রসঙ্গে রামনগর 2 ব্লক তৃণমূলের সাধারণ সম্পাদক গৌতম জানা এবং জেলা পরিষদের সদস্য সুরঞ্জনা মাইতি বলেন, “দুর্গতরা সহযোগিতা চেয়ে আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছিল। সেকথা জানার পর শুভেন্দুবাবু তাদের পাশে দাঁড়ানোর নির্দেশ দেন। তাই দাদার অনুগামী হিসেবে দুর্গতদের ত্রাণ এবং ত্রিপল দিয়েছি।”

আর এখানেই প্রশ্ন, দাদার অনুগামী লেখা পোস্টারে কোনো অসুবিধে না থাকলেও, কেন সেখানে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি বা তার কোনো নাম থাকল না! যেখানে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তৃণমূল শেষ কথা বলে দাবি করেন সকলেই, সেখানে ত্রান বিলির সময় শুভেন্দু অধিকারীর ছবি থাকলেও, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি না থাকায় এখন নতুন করে জল্পনা তৈরি হয়েছে। সব মিলিয়ে শুভেন্দুবাবুর অনুগামীদের মানুষের পাশে দাঁড়ানোর এই নতুন পদ্ধতি অধিকারী পরিবারের সম্রাটের রাজনৈতিক ভবিষ্যৎকে কোথায় নিয়ে গিয়ে দাঁড় করায়, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!