এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > দীর্ঘ নাটকীয় টানাপোড়েনের পর কি সমাপ্ত হতে চলেছে নারদ মামলা? যবনিকা-পতন নিয়ে আলোচনা!

দীর্ঘ নাটকীয় টানাপোড়েনের পর কি সমাপ্ত হতে চলেছে নারদ মামলা? যবনিকা-পতন নিয়ে আলোচনা!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট –  মে মাসের 17 তারিখ থেকে নারদ মামলা নিয়ে তাদের সক্রিয়তা শুরু করেছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে তৃনমূল কংগ্রেস তৃতীয়বার রাজ্যের ক্ষমতা দখল করার পরেই নারদ কান্ডে তৎপর হতে দেখা যায় সিবিআইকে। যেখানে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মন্ত্রিসভার গুরুত্বপূর্ণ সদস্য ফিরহাদ হাকিম এবং সুব্রত মুখোপাধ্যায়কে গ্রেপ্তার করে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। এছাড়াও গ্রেফতার করা হয়েছিল মদন মিত্র এবং রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী শোভন চট্টোপাধ্যায়কে। আর তারপর দীর্ঘ টানাপোড়েনের পর অবশেষে বেশকিছু আইনি জটিলতা কাটিয়ে শেষ পর্যন্ত জয় পেয়েছেন চার হেভিওয়েট।

বর্তমানে জামিনে মুক্ত হয়েছেন তারা। তবে এখনও পর্যন্ত নারদ মামলা চলছে। প্রভাবশালীদের কথা তুলে ধরে এই মামলা যাতে অন্য রাজ্যে নিয়ে যাওয়া যায়, তার জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। তবে ধীরে ধীরে নারদ মামলার যবনিকা পতন হতে পারে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। এক্ষেত্রে বুধবার নারদ মামলার শুনানি কোন পথে এগোয়, তা নিয়ে গুঞ্জন শুরু হয়েছে নানা মহলে।

মূলত, চার হেভিওয়েট জামিন পেয়ে যাওয়াতে কিছুটা হলেও চাপে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। তবে বর্তমানে ব্যাঙ্কশাল কোর্ট থেকে এই মামলা অন্যত্র স্থানান্তরিত করা হবে কিনা, সেই নিয়ে শুনানি শুরু হয়েছে। মঙ্গলবার পর্যন্ত এই ব্যাপারে শুনানি হলেও, কোনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে আসতে পারেননি বিচারপতিরা। সেদিক থেকে বুধবার এই মামলার ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হতে পারে।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

একাংশ বলছেন, অন্য মামলা যত তাড়াতাড়ি এগোনো উচিত, সেদিক থেকে গুরুত্বপূর্ণ হলেও এই মামলা খুব ধীর গতিতে এগোচ্ছে। তাই কিছুটা হলেও দেরি হচ্ছে এই নারদ মামলার শুনানিতে।তবে বুধবার যদি এর চূড়ান্ত শুনানি নাও হয়, তাহলে চলতি সপ্তাহে এই ব্যাপারে আদালতের পক্ষ থেকে চূড়ান্ত আভাস পাওয়া যেতে পারে।

পর্যবেক্ষকরা বলছেন, যে করেই হোক, দ্রুত যাতে নারদ মামলার শুনানি হয়, এখন সেটাই চাইছেন সকলে। যে কোনো একটি সিদ্ধান্তে আসুক আদালত। তাহলেই পরিষ্কার হয়ে যাবে, গোটা পরিস্থিতি কোথায় গিয়ে দাঁড়াবে। কেননা দীর্ঘদিন ধরে চলা এই নারদ মামলা নিয়ে সম্প্রতি সক্রিয়তা শুরু করেছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। চার হেভিওয়েট গ্রেফতার হওয়ার পরে রীতিমত টালমাটাল পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল বঙ্গ রাজনীতিতে।

তবে অবশেষে সেই চার হেভিওয়েট জামিনে মুক্ত হয়ে যাওয়ার পর কিছুটা হলেও স্বস্তি পায় রাজ্যের শাসক দল। চাপে পড়ে যায় কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। তবে এবার ব্যাঙ্কশাল কোর্ট থেকে সেই মামলা অন্যত্র যাবে, নাকি সমাপ্তি হবে নারদ মামলার, এখন সেটাই নজরকাড়া বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। সব মিলিয়ে গোটা পরিস্থিতি কোথায় গিয়ে দাঁড়ায়, বুধবারের শুনানি পর্বের পর কি উঠে আসে, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!