এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > কংগ্রেস > দিল্লির কৃষি আন্দোলনের প্রবল উত্তাপ দেখা দিল রাজ্যসভায়

দিল্লির কৃষি আন্দোলনের প্রবল উত্তাপ দেখা দিল রাজ্যসভায়



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – দু’মাস ধরে চলছে কেন্দ্রের নয়া কৃষি আইনের বিরুদ্ধে বিক্ষুব্ধ কৃষকদের আন্দোলন। প্রজাতন্ত্র দিবসের দিন যা তীব্র আকার ধারণ করে। আবার, আগামী ৬ তারিখ রাস্তা অবরোধের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বিক্ষুব্ধ কৃষকরা। এবার কৃষক আন্দোলনের উত্তাপ এসে পড়ল রাজ্যসভায়। নয়া তিন কৃষি আইন নিয়ে আলোচনার দাবী জানিয়ে হই, হট্টগোল বাধিয়ে উত্তাল করে দিলেন রাজ্যসভা বিরোধী সাংসদেরা। বিরোধীদের গন্ডগোলের কারণে শেষ পর্যন্ত আজকের মতো অধিবেশন মুলতবি হলো রাজ্যসভায়।

আজ সকাল সাড়ে ৯টা থেকে রাজ্যসভায় অধিবেশন শুরু হয়েছিল। এরপর থেকে বারবার গন্ডগোলের কারণে তিনবার সাময়িকভাবে অধিবেশন মুলতবি করে দেয়া হয়। শেষে ১২ টার সময় আবার অধিবেশন বসার কথা ছিল। কিন্তু বিরোধীদের প্রচন্ড বিক্ষোভের ফলে শেষ পর্যন্ত আজকের মতো অধিবেশন মুলতবি হয়ে যায়। সিপিআইএমের রাজ্যসভার সাংসদ এলামারম করিম জানালেন যে, কৃষকদের আন্দোলন স্থলে জল ও বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। সেখানে দ্রুত জল ও বিদ্যুৎ সংযোগ ফিরিয়ে দেওয়ার দাবি করেছেন তিনি।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

আজ রাজ্যসভায় কংগ্রেস,তৃণমূল, আরজেডি, ডিএমকে সহ বিভিন্ন বিরোধী দলের পক্ষ থেকে একটি মুলতবি প্রস্তাব দেয়া হয়েছিল। বিরোধীদের দাবি ছিল, রাজ্যসভায় কৃষক আন্দোলন নিয়ে দ্রুত আলোচনা করা হোক। তবে, বিরোধীদের এই দাবি খারিজ করে দিয়েছেন উপরাষ্ট্রপতি ভেঙ্কাইয়া নাইডু। এ প্রসঙ্গে উপরাষ্ট্রপতি জানান যে, বাজেট অধিবেশনের শুরুতে রাষ্ট্রপতি কৃষক আন্দোলন ও কৃষি আইনের কথা তাঁর ভাষণে এনেছিলেন।

অন্যদিকে, আগামীকাল রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আলোচনা চলবে। সে সময়ে সমস্ত বিরোধী দল এই বিষয়ে তাদের বক্তব্য পেশ করতে পারবে। কিন্তু এরপরও বিরোধীরা দ্রুত কৃষক আন্দোলন নিয়ে আলোচনার দাবী জানাতে থাকেন। এ বিষয়ে স্লোগান দিতেও শুরু করেন তাঁরা। এরপর বেশকিছু বিরোধী সাংসদ রাজ্যসভা থেকে ওয়াকআউট করেন।

পরে তাঁরা রাজ্যসভায় ফিরে আসেন। কিন্তু, তাঁরা ওয়েলে নেমে আবার বিক্ষোভ দেখতে শুরু করেন। তাদের বিক্ষোভের কারণে, কিছু সময়ের জন্য অধিবেশন মুলতবি করে দেন উপরাষ্ট্রপতি। বিরোধী সাংসদদের বারবার বিক্ষোভের ফলে শেষ পর্যন্ত আজকের মত রাজ্যসভার অধিবেশন মুলতুবি করে দিতে বাধ্য হন উপরাষ্ট্রপতি ভেঙ্কাইয়া নাইডু।

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!