এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > সময় এলেই মানুষ ছু্ঁড়ে ফেলে দেবে-শুভেন্দু অধিকারীকে পাল্টা তীব্র চ্যালেঞ্জ দিলীপ ঘোষের

সময় এলেই মানুষ ছু্ঁড়ে ফেলে দেবে-শুভেন্দু অধিকারীকে পাল্টা তীব্র চ্যালেঞ্জ দিলীপ ঘোষের



পঞ্চায়েত নির্বাচন পর্বে শাসকদল তথা বিরোধীদের নানা তর্জন গর্জন শোনা গেছে।  জিততে মরিয়া ছিল শাসকদল সহ বিরোধীরাও। পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগে শাসকদলের দাপুটে নেতা শুভেন্দু অধিকারী রাজ্যকে বিরোধীশূন্য করার হাক দিয়েছিলেন। ভোট মিটে গেছে কয়েক সপ্তাহ হল। তবুও তৃণমূল নেতার মুখের বুলি পাল্টালো না। এদিন মালদহ জেলায় শাসকদলের বিজয়ী প্রার্থীদের সম্মাননা সভায় হাজির ছিলেন জেলার পর্যবেক্ষক তথা  পর্যবেক্ষক মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। সেখানেই বক্তব্যে প্রকাশ করলেন বিরোধীদের প্রতি ক্ষোভ। জানালেন মুর্শিদাবাদের মতো মালদহও কৌশল করে দখল করে নেবে তৃণমূল। জানান যে মালদহের দুটি লোকসভা আসনই দখলে নেবেন তাঁরা। এবং ৫৫% আসন সহজেই করায়ত্ত করবে তৃণমূল। দ্বিতীয় স্থানে কে আসবে তাঁর দায়িত্ব ছাড়লেন কংগ্রেস,বিজেপি এবং সিপিএমের ঘাড়ে। আরো জানান যে জেলার প্রথম সারির নেতারা দলে দলে এসে জোড়াফুল শিবিরের টিকিট কাটবেন। তিনি আরো তোপ দেগে বলেন যে পঞ্চায়েত নির্বাচন ইতিমধ্যেই ৭০% আসনে জয় দেখিয়েছে ঘাসফুল শিবিরের। বাকি ৩০% ও তাঁরা দখলে নিয়ে নেবে। এরই ভিতর অনেক বিরোধী পার্টির বরিষ্ঠ নেতারা নাকি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়নের জোয়ারে ভাসতে তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

শুভন্দু বাবুর এই বিরোধীশূন্য তত্ত্বের বিরুদ্ধে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে মন্তব্যে সরব হলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।  তিনি জানালেন খুনের রাজনীতি দিয়ে মানুষের মনে জায়গা পাওয়া যায় না। সময় এলে মানুষই বোঝাবে সেটা। ভোট কেটে গেলেও দখলদারী মানসিকতা থেকে মুক্তি পাননি শুভেন্দুবাবু। এর সাংঘাতিক মূল্য চোকাতে হবে আগামী দিনে তৃণমূলকে। শুভেন্দু বাবু যে নির্বিরোধী দল গড়ার কথা বলছেন সেটা সভ্য সমাজে চলে না। পুরুলিয়ায় হেরে গিয়ে সন্ত্রাসের রাজনীতির কথা বলছেন। মালদায় হেরে গিয়ে এবার জোর করে আসন দখলের কথা বলছেন। এগুলো কোনো অভিজ্ঞ রাজনীতিবিদ এর পরিচয় নয়। ক্ষমতা থাকলে তিনি যেন  রাজনৈতিকভাবে লড়ে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা লাভ করে দেখান। পঞ্চায়েত ভোট মিটে গেলোও রাজ্যের শীর্ষনেতাদের পারস্পরিক বাক্যবান ছোঁড়া কিছুতেই কমছে না। এর জেরে স্বাভাবিকভাবেই উত্তপ্ত হয়ে আছে রাজ্য রাজনৈতিকমহল।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!