এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > দিলীপকে ‘তাড়িয়ে’ মুখ্যমন্ত্রী মুখ মুকুলকে করার বড়সড় দাবি উঠে গেল ‘জয় শ্রীরাম’-কে সাক্ষী করে

দিলীপকে ‘তাড়িয়ে’ মুখ্যমন্ত্রী মুখ মুকুলকে করার বড়সড় দাবি উঠে গেল ‘জয় শ্রীরাম’-কে সাক্ষী করে



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট –সম্প্রতি বিজেপিতে দিলীপ ঘোষ বনাম মুকুল রায়ের দ্বন্দ্ব চরম আকার ধারণ করেছে বলে নানা মহলে জল্পনা ছড়াতে শুরু করে। বিজেপির কেন্দ্রীয় কমিটির বৈঠকে উপস্থিত হলেও বিজেপি কত আসন পাবে, তা নিয়ে দিলীপ ঘোষের মন্তব্যে খুব একটা খুশি ছিলেন না। যার পরিপ্রেক্ষিতে তিনি নিজের মত করে বিজেপি কেন্দ্রীয় নেতৃত্বকে কত আসন বাংলা থেকে পাওয়া যাবে, তা জানানোর পরেই মুকুল রায়ের বিরুদ্ধে ক্ষুব্ধ হয় দিলীপ ঘোষের গোষ্ঠীরা।

আর এর পরবর্তী সময়কালে সেই বৈঠক ছেড়ে বেরিয়ে চোখের অপারেশনের জন্য তিনি কলকাতায় চলে এলেন বলে জানিয়ে দেন মুকুল রায়। তবে এই সমস্ত কিছু খবর কতটা সত্য, তা নিয়ে অনেকের মনেই সন্দেহ রয়েছে। একইভাবে মুকুল রায়ও কলকাতায় ফিরে জানিয়ে দিয়েছিলেন, তার সঙ্গে কারও কোনো দ্বন্দ্ব নেই। তিনি বিজেপিতে আছেন এবং বিজেপিতে থাকবেন।

আর মুকুল রায়ের সঙ্গে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের সম্পর্ক নিয়ে যখন রাজনৈতিক মহলে গুঞ্জন ছড়াতে শুরু করেছে, ঠিক তখনই সোশ্যাল মিডিয়ায় বিজেপির একটি পোস্ট রীতিমতো বিতর্ক তৈরি করল। যেখানে মুকুল রায়কে মুখ্যমন্ত্রী করার দাবি জানিয়ে “দিলীপ ঘোষকে বিজেপি থেকে তাড়ানো হোক” বলে দাবি করলেন এক বিজেপি কর্মী। আর এই পোস্ট এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গেছে।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

কি আছে সেই পোস্টে –  বিজেপি পার্টি ব্যারাকপুর কেন্দ্র নামে একটি পেজে মুকুল রায়ের ছবি দিয়ে লেখা রয়েছে, “মুকুলদাকে মুখ্যমন্ত্রী চাই। দিলীপ ঘোষকে বিজেপি থেকে তাড়ানো হোক। জয় শ্রীরাম।” আর বিজেপির ফেসবুক পেজে এই ধরনের পোস্ট এখন রীতিমত অস্বস্তিতে ফেলেছে ভারতীয় জনতা পার্টিকে।অনেকে বলছেন, বিজেপির মত সাংগঠনিক শৃঙ্খলা পরায়ন দলে যেভাবে রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে হলেন এক বিজেপি কর্মী, তাতে দিলীপবাবুর অস্বস্তি ক্রমশ বাড়ছে।

কেননা কিছুদিন আগেই খবর পাওয়া গিয়েছিল যে, বিজেপির কেন্দ্রীয় বৈঠকে রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের বিরুদ্ধে একাধিক বিজেপি সাংসদ অভিযোগ জানিয়েছিলেন। দলে কাজ করতে তারা স্বাধীনতা পাচ্ছেন না বলে সরব হয়েছিলেন। আর এর পরিপ্রেক্ষিতে দিলীপ ঘোষের উপর প্রবল চাপ সৃষ্টি হয়েছিল বলে খবর। আর এবার বিজেপির পেজে যেভাবে এক বিজেপি কর্মী মুকুল রায়কে মুখ্যমন্ত্রী করার দাবি জানিয়ে দিলীপ ঘোষকে বিজেপি থেকে তাড়ানোর দাবি তুললেন, তাতে রীতিমত‌ শোরগোল তৈরি হল গেরুয়া শিবিরের অন্দরমহলে। তাহলে কি বিজেপি কর্মীদের মধ্যে এখন দিলীপ ঘোষের বিরুদ্ধে ক্ষোভ বাড়ছে?

দিনকে দিন কর্মীরা মুকুল রায়ের অনুগামী হয়ে উঠছেন! আর তাই এখন দিলীপ ঘোষকে সরানোর দাবি জানিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতেও মুকুল রায়কে মুখ করে প্রচার করার কথা উঠে আসছে কর্মীদের মধ্যে থেকে? বিশেষজ্ঞরা বলছেন, তৃণমূল থেকে বিজেপিতে যোগদানের পর মুকুল রায় বিজেপিকে যেভাবে সাফল্য পাইয়ে দিয়েছেন, তা সত্যিই বলার অপেক্ষা রাখে না। কিন্তু তারপরেও অত্যন্ত ধৈর্য ধরে থাকা সত্ত্বেও তাকে এখনই পর্যন্ত বিজেপি কোনো গুরুত্বপূর্ণ পদ দেয়নি। তাই এবার যেভাবে মুকুল রায়কে মুখ্যমন্ত্রী মুখ করার কথা বলে সোশ্যাল মিডিয়ায় বিজেপি কর্মীদের পক্ষ থেকে পোস্ট করা হল, তাতে দলের সর্বস্তরের কর্মীদের মধ্যে মুকুল রায়ের গুরুত্ব অনেকটাই বৃদ্ধি পাচ্ছে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!