এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > “দিদি ও টিএমসির খামখেয়ালিপনা চলতে দেব না।” – শিলিগুড়ির জনসভা থেকে হুঁশিয়ারি প্রধানমন্ত্রীর

“দিদি ও টিএমসির খামখেয়ালিপনা চলতে দেব না।” – শিলিগুড়ির জনসভা থেকে হুঁশিয়ারি প্রধানমন্ত্রীর



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – আজ শিলিগুড়িতে জনসভা করছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এই জনসভা থেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে একাধিক হুঁশিয়ারি দিলেন তিনি। আজ সকালে কোচবিহারের শীতলকুচিতে রাজনৈতিক সংঘর্ষে এক যুবকের মৃত্যু হয়। এরপর কেন্দ্রীয় বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় তৃণমূলের অভিযোগ, বিনা প্ররোচনায়ই গুলি চালিয়েছে কেন্দ্রীয় বাহিনী। এবার, এ ঘটনা প্রসঙ্গে তৃণমূলকে কাটগড়ায় তুললেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তিনি জানালেন, মুখ্যমন্ত্রী ও তৃণমূলের খামখেয়ালিপনা আর চলতে দেওয়া হবে না।

শিলিগুড়ির জনসভা থেকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী জানালেন যে, বিজেপির পক্ষে জনসমর্থন দেখে মুখ্যমন্ত্রী ও তৃণমূলের গুন্ডারা মরিয়া হয়ে উঠেছেন। গদি হারাচ্ছেন দেখেই এই স্তরে নেমে গিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। প্রধানমন্ত্রী জানালেন, কোচবিহারে যে ঘটনা ঘটেছে, তা দুঃখজনক। নিহতদের জন্য তিনি শোক প্রকাশ করছেন। তাদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানালেন তিনি।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

এরপর মুখ্যমন্ত্রীকে সতর্ক করে প্রধানমন্ত্রী জানালেন, মুখ্যমন্ত্রী ও তৃণমূলের গুন্ডাদের উদ্দেশ্যে তিনি বলতে চান যে, তাদের খামখেয়ালিপনা আর চলতে দেয়া হবে না। নির্বাচন কমিশনকে তিনি জানিয়েছেন, কোচবিহারের ঘটনায় যারা দোষী, তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হোক। হিংসা, নিরাপত্তা বাহিনীর ওপর আক্রমণের পরিকল্পনা, নির্বাচনে বাধা দান এসব বাঁচাতে পারবেনা মুখ্যমন্ত্রীকে। প্রধানমন্ত্রী জানান, মুখ্যমন্ত্রীর ১০ বছরের কুকর্ম থেকে তাঁকে রক্ষা করতে পারবে না হিংসা।

প্রধানমন্ত্রী জানালেন, বাংলায় বিজেপির জয় নিশ্চিত। প্রথম তিন দফায় বিজেপি ব্যাপক জয় করে নিয়েছে। মুখ্যমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে তিনি জানালেন যে, মুখ্যমন্ত্রী তিনি শুনে রাখুন, বাংলার মানুষ বাংলাতেই থাকবে, চলে যেতে হবে তাঁর সরকারকে। বাংলার মানুষ তাঁর জমিদারি নয়, তাঁকে এবার সরতে হবে। প্রধানমন্ত্রী জানালেন, এবার মুখ্যমন্ত্রী একা যাবেন না। তাঁর সঙ্গে চলে যাবে সিন্ডিকেট, তোলাবাজি। তাঁর সঙ্গে বিদায় নেবে উত্তরবঙ্গের বিভেদকারী শক্তি ও তোষণের রাজনীতি।

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!