এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > নদীয়া-২৪ পরগনা > দাড়িভিট কাণ্ড নিয়ে নতুন করে ঝড় তুলছে হিন্দু সংহতি মঞ্চ! পুলিশের বাধায় উত্তপ্ত পরিস্থিতি?

দাড়িভিট কাণ্ড নিয়ে নতুন করে ঝড় তুলছে হিন্দু সংহতি মঞ্চ! পুলিশের বাধায় উত্তপ্ত পরিস্থিতি?



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – গত ২০১৮ সালের ২০ সে সেপ্টেম্বর উত্তর দিনাজপুর জেলার দাড়িভিট বিদ্যালয়ে বাংলা ভাষার শিক্ষক নিয়োগকে কেন্দ্র করে তুমুল অশান্তির সৃষ্টি হয়। শেষ পর্যন্ত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে গুলি চালায় পুলিশ। পুলিশ- নতার খণ্ডযুদ্ধে রাজেশ সরকার ও তাপস বর্মন নামে দুই ছাত্রের মৃত্যু হয়। পুলিশের গুলিতে এই দুই ছাত্রের মৃত্যুকে কেন্দ্র করে শোরগোল পড়ে যায় রাজনৈতিক মহলে। বাংলার পরিবর্তে স্কুলে উর্দু ভাষার শিক্ষক নিয়োগকে কেন্দ্র করে তৃণমূল সরকারের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ এনেছিল রাজ্য বিজেপি। বিজেপির পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছিল যে, বাংলার পরিবর্তে উর্দু শিক্ষক নিয়োগ করে বাংলা ভাষাকে অসম্মান করেছে তৃণমূল সরকার। পুলিশের গুলিতে নিহত দুই ছাত্র রাজেশ সরকার ও তাপর বর্মনকে ভাষা শহীদের সম্মান দেওয়া হয়েছিল রাজ্য বিজেপির পক্ষ থেকে। এই দুই ছাত্র মৃত্যুর ঘটনার এখনো তদন্ত চলছে।

এই ঘটনার দু’বছর পর গতকাল এই ঘটনার প্রতিবাদে বনগায় একটি বাইক মিছিল উদ্যোগ নেয় হিন্দু সংহতি মঞ্চ। দাড়িভিট স্কুলে ছাত্র মৃত্যুর প্রতিবাদ জানাতে করা এই বাইক মিছিলকে শেষ পর্যন্ত পুলিশের বাধার সম্মুখীন হতে হয়। বিনা অনুমতিতে বাইক মিছিল করার অভিযোগে ৬ টি বাইক পুলিশ বাজেয়াপ্ত করে সেইসঙ্গে আটক করা হয় হিন্দু সংহতি মঞ্চের ২৪ জন সদস্যকে। গতকাল রবিবার দুপুর বেলায় বনগাঁর জোড়া ব্রিজ এলাকা থেকে তাদেরকে আটক করে বনগাঁ থানায় নিয়ে যাওয়া হয়।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

এই ঘটনায় গতকাল শোরগোল ওরে যায় জোড়া ব্রিজ এলাকায়। আবার হিন্দু সংহতি মঞ্চের ২৪ জন সদস্যকে বনগাঁ থানায় আটক করা হলে, তাদের মুক্তির দাবিতে বনগাঁ থানার সামনে বিক্ষোভে নামেন হিন্দু সংহতি মঞ্চের বেশ কিছু সদস্য। তবে, শেষপর্যন্ত পুলিশ কিছু সময় পর আটকে রাখা হিন্দু সংহতি মঞ্চের সদস্যদেরকে ছেড়ে দেয়।

গতকালের, এই ঘটনা প্রসঙ্গে হিন্দু সংহতি মঞ্চের শীর্ষ নেতারা জানিয়েছেন, ” উত্তর দিনাজপুরের দাড়িভিটের দুজন বাঙালি হিন্দু স্কুল ছাত্রের পুলিশের গুলিতে মৃত্যুর প্রতিবাদ ও মাতৃভাষার সম্মান রক্ষার্থে প্রকৃত ভাষা দিবস পালন করতে হিন্দু সংহতি মঞ্চের পক্ষ থেকে একটি বাইক ব়্যালির আয়োজন করা হয়েছিল। এদিন শতাধিক সদস্য বনগাঁ রেল স্টেশন সংলগ্ন আর এস মাঠ থেকে বাইকে করে আংরাইলের দিকে যাচ্ছিল। জোড়া ব্রিজ এলাকায় পুলিশ তাঁদের আটকায়। পুলিশ কোনও অনুমতিপত্র না থাকায় সংহতি মঞ্চের কর্মকর্তাদের আটক করে বনগাঁ থানা নিয়ে আসে।”

অন্যদিকে এই ঘটনা সম্পর্কে হিন্দু সংহতি মঞ্চের জনৈক নেতা অরূপকান্তি পাল জানিয়েছেন, শাসকদল তৃণমূল যদি মিছিল, মিটিং, ব়্যালি করে তবে পুলিশ তাদের কোনো বাধা দেয় না। কিন্তু তাঁরা থানায় বিষয়টি পূর্বে জানানো সত্বেও তাদের মিছিল আটকে দিয়েছে পুলিশ।

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!