এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > দাদার অনুগামী অতীত এবার মীরজাফর আখ্যায়িত রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়, ঘরে-বাইরে পুড়ছে মুখ

দাদার অনুগামী অতীত এবার মীরজাফর আখ্যায়িত রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়, ঘরে-বাইরে পুড়ছে মুখ



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – বিধানসভা নির্বাচনের কয়েক মাস আগে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করেছিলেন রাজ্যের প্রাক্তন বনমন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। তৃণমূলের বিরুদ্ধে দীর্ঘ সময় ধরে একাধিক তোপ দেগেছিলেন তিনি। কিন্তু নির্বাচনে পরাজয়ের পর দলের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক আর তেমন নেই। দলের সভা সমিতি থেকে নিজেকে দূরে রেখেছেন তিনি। গতকাল হেস্টিংসে বিজেপির ভোট পরবর্তী সাংগঠনিক বৈঠকে তিনি যোগদান করেননি।

গতকাল সন্ধ্যায় এক টুইট করেছেন তিনি। যেখানে তিনি জানিয়েছেন যে, নির্বাচিত সরকারের সমালোচনা করে বারবার দিল্লি যাওয়া, ৩৫৬ ধারার ভয় দেখানো মানুষ ভাল ভাবে নেবেন না। তাঁর এই টুইটের পর তাঁর তৃণমূলে যোগদানের জল্পনা তীব্র আকার ধারণ করতে থাকে। কিন্তু, আজ তাঁর বিরুদ্ধে মীরজাফর লেখা পোস্টার দিতে দেখা গেল তৃণমূলকে।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

তৃণমূল ছাড়ার পূর্বে যখন তিনি দলের প্রতি একাধিক বেসুরো মন্তব্য করেছিলেন, সে সময় তাঁকে নিয়ে বহু পোস্টার দেখা গিয়েছিল বিভিন্ন স্থানে। যেখানে লেখা ছিল, আমরা দাদার অনুগামী। এবার তাঁর নামে মীরজাফর লেখা পোস্টার পাওয়া গেল তাঁর এলাকাতেই। আজ সকালে ডোমজুড়ের সলপ এলাকায় বহু পোস্টার পাওয়া গেলো। তৃণমূল কর্মীদের একাংশ এই পোস্টার দিয়েছেন। পোস্টারে জানানো হয়েছে, বাংলায় ও ডোমজুড় এলাকায় মীরজাফরদের কোন স্থান নেই। মুখ্যমন্ত্রীর কাছে আবেদন জানানো হয়েছে, রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়কে যেন কোনভাবেই দলে না ফেরানো হয়।

একাধিক পোস্টারে তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হয়েছে যে, মন্ত্রিত্ব পাওয়ার পর কোটি কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। শেষ পর্যন্ত দলের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছেন তিনি। আবার রাজ্যের মন্ত্রী অরূপ রায়, ডোমজুড়ের বিধায়ক কল্যান ঘোষ তাঁকে তৃণমূলে ফেরাবার বিরোধীতা করেছেন। যদিও পোস্টারের বিষয়ে এখনো পর্যন্ত কোনো বক্তব্য রাখেন নি রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে এই পোস্টার স্পষ্ট ভাবে বুঝিয়ে দিল যে, নির্বাচনের পূর্বে থেকে তৃণমূল ছেড়ে চলে যাওয়া, তৃণমূলের বিরুদ্ধে বারবার বিরোধিতা করা, এবার পরাজয়ের পর আবার তৃণমূলে ফেরার চেষ্টাকে কখনোই সমর্থন করছে না তাঁর পূর্ব দল তৃণমূল।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!