এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > কৃষ্ণনগরের পর এবার আরও বড় দায়িত্বে লোকসভার সাংসদ তথা হেভিওয়েট তৃণমূল নেত্রী

কৃষ্ণনগরের পর এবার আরও বড় দায়িত্বে লোকসভার সাংসদ তথা হেভিওয়েট তৃণমূল নেত্রী



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – একুশে জুলাই এর মঞ্চ থেকে দাঁড়িয়ে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রবল আত্মবিশ্বাস এর সঙ্গে জানিয়েছিলেন, 2021 এর বিধানসভা নির্বাচনে বাংলার মসনদে আবার আসতে চলেছে তৃণমূল দল। আর এদিন তৃণমূল নেত্রী তাঁর আত্মবিশ্বাসকে অটুট রাখতে তৃণমূলের সাংগঠনিক স্তরে নিয়ে এলেন ব্যাপক পরিবর্তন। মূলত এবার প্রচুর নতুন মুখ দেখা যাচ্ছে তৃণমূলের সাংগঠনিক স্তরে। মনে করা হচ্ছে, তৃণমূল নেত্রী 2021 এর ব্যাটন তুলে দিলেন এবার তরুণ নেতাদের হাতে।

তরুণ নেতা নেত্রীদের মধ্যে অন্যতম হলেন কৃষ্ণনগরের সাংসদ মহুয়া মৈত্র। এতদিন পর্যন্ত তিনি কৃষ্ণনগর এলাকার সাংগঠনিক জেলা সভাপতির দায়িত্বে ছিলেন। আর এবার তাঁকে সম্পূর্ণ নদীয়া জেলার তৃণমূল সভাপতি করা হল। এ প্রসঙ্গে মহুয়া মৈত্র জানিয়েছেন, নদীয়া জেলা সাংগঠনিক জেলা হিসবে আগে দুই ভাগে বিভক্ত ছিল। একদিকে রানাঘাট সাংগঠনিক জেলা এবং অন্যদিকে কৃষ্ণনগর সাংগঠনিক জেলা। তবে এবার সম্পূর্ণ জেলার দায়িত্ব তুলে দেওয়া হল মহুয়া মৈত্রর হাতে।

তবে দায়িত্ব পেয়ে অত্যন্ত খুশি হয়েছেন মহুয়া মৈত্র। আর নতুন দায়িত্ব পেয়ে মহুয়া মৈত্র জানালেন, নদীয়া জেলায় আগে আটটি বিধানসভা ছিল। কিন্তু বর্তমানে অবিভক্ত নদীয়া জেলায় 18 টি ব্লক ও মিউনিসিপালিটি, এবং 17 টি বিধানসভার দায়িত্ব পেয়েছেন তিনি। আর এই দায়িত্ব তিনি যে যথেষ্ট দায়িত্বশীলতার সঙ্গে পালন করবেন প্রত্যেকের সহযোগিতায় তা আশ্বাস দিয়েছেন। অন্যদিকে তৃণমূল জেলা সংগঠনে এবার একটি নতুন পদ সৃষ্টি হয়েছে যার নাম ‘চেয়ারম্যান’ এবং নদীয়া জেলার চেয়ারম্যান পদে নিয়ে আসা হয়েছে তৃণমূল নেতা উজ্জ্বল বিশ্বাসকে।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

আপাতত নদীয়া জেলার দায়িত্ব ন্যস্ত করা হয়েছে যৌথভাবে মহুয়া মৈত্র এবং উজ্জল বিশ্বাসের ওপর বলে জানা গেছে। এ প্রসঙ্গে মহুয়া মৈত্র আরও জানিয়েছেন, এতদিন পর্যন্ত তিনি সাংগঠনিক উচ্চস্তরে থেকে রাজনীতি করেছেন। কিন্তু তাঁকে এবার মাটির কাছাকাছি নেমে রাজনীতি করতে হবে। এবং তার জন্য তিনি সমগ্র দক্ষিণ নদীয়ায় সাংগঠনিক জোর বাড়াবেন বলেও জানিয়েছেন। এবার দেখার, কৃষ্ণনগরের পর মহুয়া মৈত্র নতুন দায়িত্ব পেয়ে কিভাবে সংগঠনকে আরো মজবুত করে তোলেন।

বিশেষজ্ঞদের মতে, তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় 2021 এর বিধানসভা লড়াই জিততে এবার ভরসা রেখেছেন তাঁর তরুণ তুর্কীদের ওপর। রাজনৈতিক মহলের একাংশের মতে, 2021 এর বিধানসভা নির্বাচনের কথা মাথায় রেখেই তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর ঘুঁটি সাজিয়ে নিলেন আজ। মূলত গেরুয়া শিবিরকে টেক্কা দিতেই এই ব্যাপক রদবদল বলে মনে করা হচ্ছে। আর এবার দেখার তৃণমূল নেত্রীর তরুণ তুর্কীদল আগামী দিনের বিধানসভার মসনদ দখলে তৃণমূলকে এগিয়ে দিতে পারে কিনা!

আপনার মতামত জানান -

ট্যাগড
Top
error: Content is protected !!