এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > করোনা ওয়ার্ডে আসামীর সকলের সামনে মদ্যপান, প্রশ্নের মুখে সরকারি হাসপাতালের নিরাপত্তা ব্যবস্থা

করোনা ওয়ার্ডে আসামীর সকলের সামনে মদ্যপান, প্রশ্নের মুখে সরকারি হাসপাতালের নিরাপত্তা ব্যবস্থা



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – করোনা ওয়ার্ডে মদ্যপান, প্রশ্নের মুখে সরকারি হাসপাতালের নিরাপত্তা ব্যবস্থাসরকারি হাসপাতালে নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে ইতিপূর্বে বহুবার অভিযোগ উঠেছে এবার সরকারি হাসপাতালে ভর্তি থাকা করোনা আক্রান্ত এক আসামীকে সকলের সামনে মদ্যপান করতে দেখা গেল। সোশ্যাল মিডিয়ায় এই দৃশ্য ভাইরাল ঘটনাটি প্রশাসনের টনক নড়লো, সজাগ হলো পুলিশ প্রশাসন ও স্বাস্থ্য দফতর, মুখ্যমন্ত্রী দিলেন ঘটনার তদন্তের নির্দেশ।

প্রসঙ্গতপ, গতমাসে বিহারের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা রাষ্ট্রীয় জনতা দলের সুপ্রিমো লালুপ্রসাদ যাদবের জন্য বিলাসবহুল করোনা হাসপাতালে আয়োজন। একসঙ্গে অনেকগুলো হাসপাতাল ওয়ার্ড দখল ও সেইসঙ্গে হাসপাতালে আসা করোনা রোগীদের মাটিতে শুতে দেওয়া ইত্যাদি নিয়ে বিতর্ক ছড়িয়েছিল ঝাড়খণ্ডের হেমন্ত সোরেন সরকারের বিরুদ্ধে। এবার ঝাড়খন্ডের ধানবাদে ভারত কোকিং কোল লিমিটেড বা বিসিসিএল-এর সেন্ট্রাল হাসপাতালে করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি এক অভিযুক্তের মদ্যপানের ছবি সামনে এলো ।

প্রসঙ্গত, গতকাল রবিবার তোলাবাজির অভিজোগে পুলিশ বছর ৩০ এর শান্টু গুপ্ত নামের এক অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেছে। শান্টু গুপ্ত করোনা সংক্রামিত হওয়ায় তাকে ধানবাদের ভারত কোকিং কোল লিমিটেড বা বিসিসিএল-এর সেন্ট্রাল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

সোশ্যাল মিডিয়াতে  পোস্ট করা একটি ছবিতে দেখা যাচ্ছে অভিযুক্ত শান্টু গুপ্তর এক এক হাতে রয়েছে হাতকড়া, অন্যহাতে ঢালছে মদ । তার পাশে একটি টেবিলে সাজানো আছে অ্যালুমিনিয়াম ফয়েলে মোড়া বেশ কিছু খাবারের প্যাকেট। যার পাশে চেয়ারে বসে মদ্যপান করছে সে। এখানেই শেষ নয় অভিযুক্ত শান্টু গুপ্ত করোনা ওয়ার্ড এর  অন্য রোগীদের থেকে তোলাবাজি পর্যন্ত করেছে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় অভিযুক্ত শান্টু গুপ্তর এই ছবি দেখে ক্ষুব্ধ হয়েছেন অনেকেই । হাসপাতালের নিরাপত্তা ও সুরক্ষা ব্যবস্থার মধ্যে একজন আসামী কি করে এসব কান্ড করলো? মদের বোতলই বা কথা থেকে পেল? এই সবকিছু নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করে দিয়েছে। প্রসঙ্গত হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানায় যে, করোনা ওয়ার্ডে কিভাবে মদের বোতল এলো তা দেখে তারাও বিস্মিত হয়েছেন। হাসপাতালের চিকিৎসকের, কর্মীদের, নার্সদের চোখে ধুলো দিয়ে কিভাবে হাসপাতালের ভেতরে মদের বোতল পৌঁছলো তা নিয়ে অবাক সকলেই।

ঝাড়খন্ডের মুখ্যমন্ত্রী হেমন্ত সোরেন এই ঘটনার পূর্ণাঙ্গ তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন। এ প্রসঙ্গে ধানবাদ এর ডেপুটি কমিশনার উমাশঙ্কর সিংহ বলেছেন, ” মহকুমা শাসক ও এসডিপিও ঘটনার তদন্ত করছেন। তদন্তের রিপোর্ট মুখ্যমন্ত্রীকে পাঠানো হবে। ”

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!