এখন পড়ছেন
হোম > অন্যান্য > করোনা ভ্যাক্সিনের দাম কত হতে চলেছে? আপনার পকেট থেকে কত খসবে? কত টাকা ভর্তুকি দেবে কেন্দ্র?

করোনা ভ্যাক্সিনের দাম কত হতে চলেছে? আপনার পকেট থেকে কত খসবে? কত টাকা ভর্তুকি দেবে কেন্দ্র?



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – ভ্যাকসিন আবিষ্কারের পথে চোখ ফেলে বসে রয়েছে বিশ্ববাসী। কবে আসবে করোনা ভ্যাকসিন এই খবরে সামনে এসেছে নানা সম্ভাব্য তথ্য। তার মধ্যে প্রথমত দেখা গেছে বিশ্বে যে সমস্ত ভ্যাকসিন নিয়ে ট্রায়াল চলছিল, তার মধ্যে ভারতের কোভ্যাকসিনের ট্রায়াল নিয়ে সবথেকে বেশি আশাবাদী রয়েছে কেন্দ্র।

আর এই প্রসঙ্গে বারবার বলা হয়েছিল সামনের বছর মার্চ মাসের মধ্যে সাধারণ মানুষের কাছে করোনা ভ্যাকসিনের পৌঁছে যাওয়ার কথা। তবে এক্ষেত্রে করোনা ভ্যাকসিনের উৎপাদন, বন্টন এবং তার সংরক্ষণের ক্ষেত্রে নানা পদক্ষেপের কথা সামনে এসেছিল কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে।

সেক্ষেত্রে স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষবর্ধন থেকে শুরু করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে দফায় দফায় বৈঠক করতে শোনা গিয়েছিল। সেই সময় করোনার ভ্যাকসিনের আসার পর সারাদেশে তা বিনামূল্যে বিতরণের কথাই বলা হয়। সেই সঙ্গে ভৌগলিক অবস্থান হিসেবে বণ্টনের প্রক্রিয়া আলাদা করতে হবে সেই সিদ্ধান্তও জানিয়ে দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী।

তবে এরপরে সম্প্রতি সামনে এসেছে করোনা ভ্যাকসিন সংক্রান্ত নতুন খবর। সেখানে জানা গেছে করোনা ভ্যাকসিন এর এক একটা ইনজেকশন ১৪৭ টাকা দিয়ে প্রত্যেকে দেশবাসীকে কিনতে হবে। এছাড়া করোনার ভ্যাকসিন নিয়ে আলাদা করে ৫০০ বিলিয়ন টাকা কেন্দ্রীয় সরকার ভর্তুকি দেবে বলে জানা গেছে।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

তবে এই কথার সত্যতা এখনো জানা যায়নি। আর এই নিয়েই শুরু হয়েছে জল্পনা। বস্তুত, প্রথমে বিনামূল্যে ভ্যাকসিন বিতরনের কথা বলা হলেও পরবর্তীকালে কেন টাকার পরিবর্তে ভ্যাকসিন দেশবাসীকে কিনতে হবে, এই নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন বিরোধীরা। সেই সঙ্গে এই কথার কোনো সত্যতা প্রমাণিত না হওয়ায় দেশবাসীর মধ্যে উদ্বেগ সৃষ্টি হচ্ছে, এমনই কটাক্ষ করেছেন বিরোধীরা।

সেই সঙ্গে শোনা গেছে, লকডাউনে সরকারের খাতে বিপুল ঘাটতি রয়েছে। কোষাগারের করুণ দশা সামাল দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে দেশবাসীর জন্য বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দেওয়ার কথা শুনে আগেই সন্দেহ প্রকাশ করেছিলেন কেউ কেউ। তবে এরপর ভর্তুকির কথা ওঠায় সরকারকে নিয়ে কটাক্ষ করেছেন বিরোধীরা।

তাদের কথায় এ সমস্ত কিছুই সরকারের ভোটের আগে প্রচার নীতি মাত্র। বিহারেও ভোটের আগে বিজেপি এভাবেই বিনামূল্যে করোনা ভ্যাকসিন দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন বলে জানা গিয়েছিল। পরবর্তীকালে দেশেও এখন ভর্তুকির কথা বলে বস্তুত ভোট নিয়ে মানুষকে বিভ্রান্ত করার প্রচেষ্টা চালাচ্ছে বিজেপি এমন বিতর্ক জুড়েছেন বিরোধীরা।

অন্যদিকে সরকারের কথার দ্বিমত নিয়ে কটাক্ষ করেছেন অনেকে। সেইসঙ্গে তামিলনাড়ু রাজ্যের সরকারও সেখানকার বাসিন্দাদের বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। তাই এসব কথার মধ্যে আদৌ কোনটা সত্যি আর কোনটা মিথ্যা এই কথার পরিপ্রেক্ষিতে রাজনৈতিক চাপানউতোর যে বেশ ভালোমতোই বেড়েছে সে কথাই মনে করছেন অনেক কূটনৈতিকরা।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!