এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মেদিনীপুর > করোনা আক্রান্ত রাজ্যের হেভিওয়েট মন্ত্রী! আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়ালো প্রায় 5000! বাড়ছে আতঙ্ক!

করোনা আক্রান্ত রাজ্যের হেভিওয়েট মন্ত্রী! আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়ালো প্রায় 5000! বাড়ছে আতঙ্ক!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দিনকে দিন বাড়ছে। যা নিঃসন্দেহে চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে সকলের কাছে। ইতিমধ্যেই পূর্ব মেদিনীপুরের এগরার প্রবীণ তৃণমূল বিধায়ক সমরেশ দাস এই করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রয়াত হয়েছেন। আর এবার ভয়াবহ এই ভাইরাসে আক্রান্ত হলেন রাজ্যের জনস্বাস্থ্য কারিগরী দপ্তরের মন্ত্রী সৌমেন মহাপাত্র। শুধু তাই নয়, গোটা জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দেখলে অনেকেরই চোখ কপালে উঠে যাবে। জানা গেছে, রবিবার চন্ডিপুরের একটি নার্সিংহোমে এক রোগী এবং দুই কর্মীর করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া যায়।

বস্তুত, এখনও পর্যন্ত পূর্ব মেদিনীপুরের জেলার সদর শহর তমলুকে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন 111 জন ব্যক্তি। জানা যায়, চন্ডিপুর ব্রজলালচক গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার এক বাসিন্দা পেটের যন্ত্রণা নিয়ে দুই সপ্তাহ আগে চন্ডিপুর বাজারের একটি নার্সিংহোমে ভর্তি হয়েছিলেন। এক সপ্তাহ ধরে তার চিকিৎসা করার পরেও কোনোরূপ উন্নতি দেখা যায়নি। আর এর পরেই তার অস্ত্রোপচার করা হয়েছিল। কিন্তু তার আগে করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা সংগ্রহের রিপোর্ট পাঠানো হয়।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

বর্তমানে সেই রোগীর করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসার পর এখন তাকে চন্ডিপুরের করোনা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদিকে সেই করোনা আক্রান্ত রোগীর সংস্পর্শে আসা নার্সিংহোমের এক চিকিৎসক এবং এক কর্মীকে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। তাদের লালারসের নমুনা সংগ্রহ করে ইতিমধ্যেই কলকাতায় পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। তবে শনিবার তাদের রিপোর্ট আসার পর সেই 2 ব্যক্তির করোনা পজেটিভ বলে খবর পাওয়া যায়।

স্বাভাবিক ভাবেই তাদের দুজনকেও চন্ডিপুরের করোনা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আর দিনকে দিন গোটা জেলা জুড়ে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় এখন রীতিমত আতঙ্ক বাড়ছে মেদিনীপুরে। তবে এদিন বড়মা কোভিড হাসপাতাল থেকে করোনা মুক্ত হয়ে প্রায় 23 জন বাড়িতে ফিরে গিয়েছেন বলে খবর। কিন্তু যেভাবে রাজ্যের এক হেভিওয়েট মন্ত্রী এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে পড়লেন, তাতে আশঙ্কা ক্রমশ বাড়তে শুরু করেছে। সকলেই বলছেন, এই সময়টা সামাজিক দূরত্ব পালন করে লকডাউন ঠিকমত মেনে চলা উচিত। না হলে ভবিষ্যতে আরও কঠিন হয়ে উঠতে পারে। সব মিলিয়ে গোটা পরিস্থিতি কোথায় গিয়ে দাঁড়ায়, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!