এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > কর্নাটকে জোট সরকার গড়ার আগেই কি চির ধরলো জল্পনা তুঙ্গে

কর্নাটকে জোট সরকার গড়ার আগেই কি চির ধরলো জল্পনা তুঙ্গে



এদিন সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমান করতে না পেরে ইস্তফা দেন ইয়েদুরাপ্পা। কিন্তু তখনি তিনি দাবি তোলেন যে কর্ণাটকের মানুষ বিজেপিকে চেয়েছিলো তাই বিজেপি এত আসন পেয়েছিলো কিন্তু কংগ্রেস-জেডি(এস) জোট বেঁধে তা হতে দিলো না কিন্তু কংগ্রেস-জেডি(এস) সরকার ও বেশি দিন টিঁকবে না। অন্যদিকে রাজনৈতিক মহলের অনেকের ধারণা ছিল যে খুব একটা ভুল বলছেন না ইয়েদুরাপ্পা। আর সেই জোটের সরকার হাতে না হতেই ফাটল ধরতে শুরু করেছে প্রশ্ন উঠেছে রাজনৈতিকমহলে ? কংগ্রেস কর্ণাটকে দ্বিগুণেরও বেশি আসন পেয়েছে কিন্তু তাতেও বিজেপিকে আটকাতে জেডিএসকে নিঃস্বার্থ সমর্থনের কথা ঘোষণা করেছে কংগ্রেস। এমনকি মুখ্যমন্ত্রী পদ ও ছেড়ে দিয়েছে জেডিএস-এর কুমারস্বামীকে। এদিন বর্ষীয়ান কংগ্রেস নেতা মল্লিকার্জুন খাড়গে-র মন্তব্য বিতর্ক বাড়ালো।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এদিন তিনি বলেন, জাতীয় দল হওয়া সত্ত্বেও ছোট আঞ্চলিক দলকে সমর্থন করার পিছনে একটা দেওয়া-নেওয়ার সম্পর্ক অবশ্যই আছে। অন্যদিকে পালা করে মুখ্যমন্ত্রীর পদ বদল নয়। কংগ্রেসকে মুখ্যমন্ত্রীর পদ ছাড়বেন না বলে সাফ জানিয়ে দিলেন কর্ণাটকের হবু মুখ্যমন্ত্রী এইচ ডি কুমারস্বামী। তিনি বলেছেন, ‘মুখ্যমন্ত্রী পদে ফের বদল হবে না। মুখ্যমন্ত্রী আমিই থাকব।’‌ জানা যাচ্ছে মুখ্যমন্ত্রী পদ নিয়ে কিছু না বললেও মন্ত্রিত্ব ভাগাভাগি নিয়ে দর-‌কষাকষি হচ্ছে কংগ্রেস আর জেডিএস-এর মধ্যে। জানা গেছে যে জানা গেছে, মন্ত্রিসভায় জেডিএসের ২০ এবং কংগ্রেসের ১৩ জনকে নেওয়া হবে। আজ দিল্লিতে কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী এবং ইউপিএ চেয়ারপার্সন সোনিয়া গান্ধীর সঙ্গে দেখা করবেন কুমারস্বামী। সেখানেই চূড়ান্ত হবে রফা। আর সব ঠিক থাকলে আগামী বুধবার শপথগ্রহন অনুষ্ঠান হবে।

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!