এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কংগ্রেসের সঙ্গে জোট নিয়ে এবার চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে বামফ্রন্ট

কংগ্রেসের সঙ্গে জোট নিয়ে এবার চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে বামফ্রন্ট



বাম-কংগ্রেস জোট নতুন নয়। ২০১৬র বিধানসভা ভোটে জোট শক্তি হিসেবেই পশ্চিমবঙ্গে লড়েছিলো এই দুই জাতীয় রাজনৈতিক দল। তবে এবার বিজেপি-বিরোধী আন্দোলনে সমস্ত বিরোধী শক্তিকেই একজোট হওয়ার আহ্বান জানিয়েছে সিপিআইএম। সেক্ষেত্রে বাম-কংগ্রেসকে কি আবার জোট বাঁধতে দেখা যাবে ? এই প্রসঙ্গে জল্পনা তৈরি হয়েছে ।
বঙ্গে বিজেপির উত্থান তাৎপর্যপূর্ণ। সেক্ষত্রে প্রধান বিরোধী দল হিসেবে সিপিআইএম কে সরিয়ে বিজেপি সেই স্থান দখল করে নিয়েছে। কিন্তু বিজেপিকে হটিয়ে নিজেদের জায়গা ফিরে পেতে মরিয়া সিপিআইএম । তাই বিজেপি-বিরোধী আন্দোলনে সরব হওয়ার ডাক দিয়েছে সিপিআইএম ।আর এই বিজেপি-বিরোধী আন্দোলনে কি তাহলে কংগ্রেসকে শামিল করবে সিপিআইএম এই প্রশ্নই ঘুরপাক খাচ্ছে রাজনৈতিক মহলে। কেননা কয়েকজন নেতা ছাড়া দলের সিংহভাগেরই কংগ্রেসের সঙ্গে সমঝোতা নিয়ে আপত্তি রয়েছে। কারণ হিসেবে বলা হয়েছে,এর আগে জোটের পরেও বামেদের ভোট ব্যাঙ্কে বিশেষ সুবিধা হয়নি ।পাশাপাশি গত সবং নির্বাচনে কংগ্রেস ও সিপিআইএম দুজনেই আলাদা আলাদা প্রার্থী দিয়েছে। কিন্তু তবুও সিপিএমের-য়ের সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি বিজেপি বিরোধিতায় বিকল্প কর্মসূচির বিষয়ে বিজেপি-বিরোধী জোটে কংগ্রেসকে সামিল করার পক্ষপাতী।আর তাই এদিন সিপিএমের ২৬তম সম্মেলনে দলের সহকারী সাধারণ সম্পাদক গুরুদাস দাশগুপ্ত কংগ্রেসের সাথে জোট সমর্থনের দিকে ফের ইঙ্গিত করলেন।তবে কংগ্রেসের সঙ্গে সমঝোতা নিয়ে আপত্তি থাকলেও তারা এই ইস্যুটি দলের পার্টি কংগ্রেসের উপর ছেড়ে দিতে চেয়েছে। আন্দোলনের জোটে কংগ্রেসকে শামিল করতে সম্মত হলেও তারা আর কোনো দলের সঙ্গে নির্বাচনী সমঝোতায় যেতে রাজি নয়, সেকথাও বুঝিয়েছে সিপিআই’র রাজ্য নেতৃত্ব।আর এই সব নিয়েই প্রশ্ন যে সামনেই নির্বাচন গুলিতে কি আবার জোট দেখা যাবে ?

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!