এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > কংগ্রেসের বাকি প্রার্থী তালিকা আজ, যাদবপুর নিয়ে থাকতে চলেছে বড় সিদ্ধান্ত

কংগ্রেসের বাকি প্রার্থী তালিকা আজ, যাদবপুর নিয়ে থাকতে চলেছে বড় সিদ্ধান্ত



আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে রাজ্যে বাম এবং কংগ্রেস হাতে হাত ধরে চলে শাসকদল তৃণমূল এবং বিরোধী দল বিজেপিকে ঠেকাতে প্রথম থেকে জোটের কথা ভাবলেও পরবর্তীতে বাম এবং কংগ্রেসের মধ্যে সেই জোট ভেস্তে গিয়েছে। আর সেইমতো রাজ্যের অনেক কেন্দ্রে বাম এবং কংগ্রেস পৃথক পৃথক ভাবে তাদের প্রার্থী দিলেও যাদবপুর লোকসভা কেন্দ্রে বামেদের প্রার্থী বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্যকে পরোক্ষে সমর্থন করার কথাই ভাবতে চলেছে প্রদেশ কংগ্রেস।

সূত্র খবর রাজ্যের বাকি আসনে প্রার্থী তালিকা নিয়ে দলের কেন্দ্রীয় নির্বাচন কমিটির সাথে বৈঠক করবেন রাজ্য প্রদেশ কংগ্রেসের সভাপতি সোমেন মিত্র। আর সেখানেই রাজ্যের অন্যান্য লোকসভা কেন্দ্রে প্রার্থী দিলেও যাদবপুর লোকসভা কেন্দ্রে প্রার্থী বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্যের বিরুদ্ধে তারা কোনো প্রার্থী দেবে না বলে কংগ্রেস হাইকমান্ডের কাছে জানাবেন সোমেন বাবু বলে মনে করছে কংগ্রেসের একাংশ।

কিন্তু যেখানে রাজ্যের সমস্ত লোকসভা কেন্দ্রের বাম এবং কংগ্রেস পৃথক পৃথকভাবে প্রার্থী দিচ্ছে, সেখানে কেন এই যাদবপুর লোকসভা কেন্দ্রে বামেরা প্রার্থী দিলেও তারা পৃথকভাবে তাদের প্রার্থী দেবে না!


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে, বিশিষ্ট আইনজীবী তথা যাদবপুর লোকসভা কেন্দ্রের বাম প্রার্থী বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্য রাজ্যের শাসকদলের বিরুদ্ধে সারদা কেলেঙ্কারি নিয়ে সুপ্রিম কোর্টে লড়াই করেছিলেন। এমনকি নারদ মামলাতেও কংগ্রেস নেতা তথা রাজ্য বিধানসভার বিরোধী দলনেতা আব্দুল মান্নানের মামলায় সিবিআই তদন্ত যাতে আনা যায় তার জন্যও লড়াই করেছেন বিকাশবাবু।

তাই সেই আইনি লড়াইয়ে কংগ্রেসের পাশে থাকার জন্যই ব্যক্তিগতভাবে সেই বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্যকে কিছুটা রিলিফ দিতেই এই যাদবপুর লোকসভা কেন্দ্রে কংগ্রেস কোনোই প্রার্থী দিচ্ছে না বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। তবে শুধু যাদবপুর লোকসভাই নয়, রাজ্যের আরও পাঁচটি আসনে কংগ্রেস কোনোরূপ প্রার্থী দেবে না বলে খবর রয়েছে।

অন্যদিকে গত শনিবার মালদহের চাচোলে এই কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভাপতি রাহুল গান্ধীর সভাকে ঘিরে যে চরম বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হয়েছিল, এদিন সেই সম্পর্কেও দুঃখপ্রকাশ করতে দেখা যায় প্রদেশ কংগ্রেসের সভাপতি সোমেন মিত্রকে।

পাশাপাশি মালদহে তৃণমূল এবং মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সম্পর্কে নানা কটাক্ষ করায় সেই রাহুল গান্ধীকে পাল্টা তৃণমূলের পক্ষ থেকে কটাক্ষ করা হলে এদিন সেই প্রসঙ্গে সোমেন মিত্র বলেন, “রাজ্যে তৃণমূলের জন্যই বিজেপির এই বাড়বাড়ন্ত। তাই ওদের মুখে বড় বড় কথা মানায় না।”

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!