এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > কংগ্রেস থেকে তৃণমূলে যাওয়ার মাঝেই প্রদেশ নেতৃত্ত্বকে জল্পনা বাড়িয়ে দিল্লিতে ডাকলেন রাহুল

কংগ্রেস থেকে তৃণমূলে যাওয়ার মাঝেই প্রদেশ নেতৃত্ত্বকে জল্পনা বাড়িয়ে দিল্লিতে ডাকলেন রাহুল



খাতায় কলমে রাজ্যের বিধানসভায় বিরোধী বেঞ্চে মূল দল হিসাবে কংগ্রেস থাকলেও একের পর এক বিধায়ক সেই বেঞ্চ ছেড়ে বর্তমানে শাসকদল তৃনমূলের দিকে পা বাড়াচ্ছেন। একদা কংগ্রেস গড় হিসাবে পরিচিত মালদা, মুর্শিদাবাদেও  সংগঠনের মজবুত ভিত ভেঙে পড়তে শুরু করেছে। আর পশ্চিমবঙ্গে দলীয় সংগঠনের এহেন রক্তক্ষরন আটকাতে আগামী 6 জুলাই রাজ্য প্রদেশ কংগ্রেসের নেতাদেরকে দিল্লীতে ডেকে পাঠিয়েছেন কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভাপতি রাহুল গান্ধী। সোমবারই দিল্লী থেকে এ ব্যাপারে রাজ্য প্রদেশ দপ্তরে ফোন আসে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

 এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

প্রদেশ কংগ্রেস সূত্রের খবর, কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভাপতি রাহুল গান্ধী নিজেই প্রদেশ কংগ্রেসকে এই প্রস্তাব দেন।জানা গেছে, 6 জুলাই এর এই বৈঠকে রাজ্যের সমস্ত প্রাক্তন প্রদেশ সভাপতি, বর্তমান ও প্রাক্তন কংগ্রেস সদস্য এবং রাজ্যের কংগ্রেস বিধায়কদের ডাকা হবে। জানা গেছে, কদিন আগে কংগ্রেসের সাংসদ আবু হাসেম খান চৌধুরী  তৃনমূল মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে দেখা করে তৃনমূলের সাথে কংগ্রেসের জোটের ব্যাপারে আলোচনা করলে প্রবল অস্বস্তিতে পড়তে হয় প্রদেশ কংগ্রেসকে। এদিন সেই প্রসঙ্গে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী বলেন, “ডালুবাবুকে কেউ এমন দ্বায়িত্ব দেয়নি। তাই ওনার এধরনের কাজ নিয়ে দলের কোনো সম্পর্ক নেই।” সূত্রের খবর, কদিন আগেই প্রদেশ কংগ্রেসের সাধারন সম্পাদক ওমপ্রকাশ মিশ্র লোকসভায় বামেদের সাথে জোট চেয়ে আলিমুদ্দিন ষ্ট্রীটে চিঠি পাঠালে অনেক বাম নেতাই ” প্রদেশ কং সভাপতি পাঠালে বিবেচনা করতাম” বলে মন্তব্য করেছেন। এদিন ঘুরিয়ে সেই বাম নেতাদের  জোট করার পক্ষে সওয়াল করলেন অধীর চৌধুরী। তৃনমূলের সাথে জোট করে যা আসন পেয়েছে কংগ্রেস, তার থেকে 2016 য় বামেদের সাথে জোট করে বালো ফল হয়েছে বলে দাবি তাঁর। সূত্রের খবর, যেভাবে রাজ্যে কংগ্রেস নেতা, বিধায়কদের ভয় দেখিয়ে নিজেদের দলে টানছে তৃনমূল সে ব্যাপারে রাহুল গান্ধীকে নিজের মতামত দেবেন অধীর চৌধুরী। এখন ভেঙে পড়া সংগঠনকে গুরে দাড় করাতে 6 জুলাইয়ের বৈঠকে রাজ্যের প্রদেশ কংগ্রেসকে ঠিক কি রাজনৈতিক টনিক দেন দলের সর্বভারতীয় সভাপতি সেদিকেই তাকিয়ে বিধান ভবনের নেতারা।

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!