এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > পুরুলিয়া-ঝাড়গ্রাম-বাঁকুড়া > মুখ্যমন্ত্রীর বিকৃত ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে পুলিশের জালে বিজেপি কর্মী

মুখ্যমন্ত্রীর বিকৃত ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে পুলিশের জালে বিজেপি কর্মী



খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি বিকৃত করে সোশাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে এবার শালবনী থেকে গ্রেপ্তার করা হল এক বিজেপি কর্মীকে। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গত 27 জুলাই এক যুবক রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের একটি অশালীন ছবি ফেসবুকে পোষ্ট করে। যা মুহুর্তের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ে সাইবার দুনিয়ায়। আর এরপরেই গত সোমবার শালবনীর এক ব্যাক্তির অভিযোগের ভিত্তিতে মঙ্গলবার বিজেপি কর্মী বলে পরিচিত বাবুয়া ঘোষকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রের খবর,  ধৃত এই বিজেপি কর্মীর বাড়ি শালবনীর শৌলা গ্রামে। তাঁর বিরুদ্ধে 67 আইটি অ্যাক্ট, ভারতীয় দন্ডবিধির 292 ধারায় মামলিও রুজু হয়েছে। এদিকে এদিন সেই ধৃত বিজেপি কর্মীকে মেদিনীপুর আদালতে তোলা হলে তাকে দুদিনের পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক বলে সরকারপক্ষের আইনজীবি সৈয়দ হাজিম হাবিব।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

অন্যদিকে এই মুখ্যমন্ত্রীর বিকৃত ছবি ফেসবুকে পোস্ট করাতেই দলীয় কর্মীকে গ্রেপ্তার করাতেই তৃনমূলের বিরুদ্ধে সরব হয়েছে বিজেপি। এ প্রসঙ্গে এদিন জেলা বিজেপি সভাপতি সমিত দাস বলেন, “সোশাল মিডিয়ায় যে কোনো বিকৃত ছবি পোস্ট করা কাম্য নয়। কিন্তু আমাদের দলের এই দুই কর্মী শালবনীর তৃনমূল নেতা নেপাল সিং ও তাঁর ছেলে রতন সিংয়ের কিছু অনিয়মের ভিডিও পোস্ট করায় তাঁদেরকে গ্রেপ্তার করা হল।” তবে বিজেপির এই দাবিকে সম্পূর্নরুপে উড়িয়ে দিয়ে শালবনী ব্লকের তৃনমূল সভাপতি নেপাল সিংহ বলেন, “এখানে আমাদের কোনোও বিষয় নেই। পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে। নিশ্চয়ই তদন্ত করে দেখবে।”

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!