এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > হেভিওয়েট নেতার নিশানায় মুখ্যমন্ত্রী, ভাঙতে চলেছে সরকার ? জল্পনা তুঙ্গে!‌

হেভিওয়েট নেতার নিশানায় মুখ্যমন্ত্রী, ভাঙতে চলেছে সরকার ? জল্পনা তুঙ্গে!‌



বিজেপিকে হারিয়ে মহারাষ্ট্রে এনসিপি, শিবসেনা এবং কংগ্রেস জোট সরকার গঠন করেছিল। তাই প্রথম থেকেই সেই সরকারের অস্তিত্ব নিয়ে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিতে দেখা গেছে ভারতীয় জনতা পার্টিকে। এমনকি মাঝেমধ্যে সেই বিজেপির কথা সত্যি করে জোট সরকারের অভ্যন্তরীণ কোন্দল সামনে চলে এসেছে। আর এবার জোট সরকারের শরিক এনসিপি সুপ্রিমো শরদ পাওয়ারের আক্রমণের মুখে পড়লেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে।

কিন্তু হঠাৎ কেন শরিক দলের প্রধান তথা মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে আক্রমণ শানালেন শরদ পাওয়ার! বস্তুত, সম্প্রতি ভীম কোরেগাঁও মামলার তদন্তভার রাজ্য পুলিশের হাত থেকে জাতীয় তদন্তকারী সংস্থাকে দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। আর কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তকে সমর্থন করেছে মহারাষ্ট্রের সরকার। আর এতেই রীতিমতো আপত্তি তুলেছেন শরদ পাওয়ার।

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

এদিন তিনি বলেন, “ভীমা কোরেগাঁও তদন্তে রাজ্য পুলিশের কয়েকজন কর্তার ভুমিকা আপত্তিকর। আমি চেয়েছিলাম, তাদের বিষয়ে তদন্ত হোক। কিন্তু আচমকাই সকালে রাজ্যের মন্ত্রীরা পুলিশ কর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করলেন। সেদিন দুপুরে কেন্দ্র তদন্তের নির্দেশ দিল। আইনশৃঙ্খলা রাজ্যের তালিকাভুক্ত। কেন্দ্র এভাবে তদন্তভার সরিয়ে অসাংবিধানিক কাজ করেছে। এটা অন্যায়। আর সেই ভুল সিদ্ধান্ত সমর্থন করে রাজ্য সরকারও অন্যায় করেছে।”

আর মহারাষ্ট্র সরকারের বিরুদ্ধে মন্তব্য করে শরদ পাওয়ার নিজেদেরই জোট সরকার তথা শিবসেনার বিরুদ্ধে সরব হলেন বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। কেননা মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী শিবসেনার উদ্ধব ঠাকরে। তাই এদিন এই তদন্তের ভার বদলে যাওয়ায় সেই শিবসেনাকে কটাক্ষ করে ভেতরের অন্তর্দ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে নিয়ে চলে এলেন এনসিপি সুপ্রিমো বলে মত রাজনৈতিক মহলের।

সব মিলিয়ে এবার মহারাষ্ট্রে বিজেপি বিরোধী সরকার গড়ে উঠলেও, ভেতরে বনিবনা যে ঠিকমত হচ্ছে না, তা কার্যত এই ঘটনা থেকেই পরিষ্কার হয়ে গেছে। এখন এই পরিস্থিতিতে শরদ পাওয়ারের এই ধরনের মন্তব্য জোট সরকারের ওপর কতটা প্রভাব ফেলে, সেদিকেই নজর রাজনৈতিক মহলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!