এখন পড়ছেন
হোম > অন্যান্য > চুলপড়া বা টাক সমস্যার ঘরোয়া সমাধান! সামান্য এই কয়েকটা কাজ করলেই মিলবে এক রাশ ঘন কালো চুল!

চুলপড়া বা টাক সমস্যার ঘরোয়া সমাধান! সামান্য এই কয়েকটা কাজ করলেই মিলবে এক রাশ ঘন কালো চুল!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – এক ঢাল কালো চুল আপনার সৌন্দর্যকে আলাদা স্টেটমেন্ট দিতে যথেষ্ট। তাই লম্বা চুল থেকে শুরু করে চুলকে কালো রাখতে, সুন্দর করে তুলতে অনেকেই নিয়ে ফেলেন অনেক পন্থা। চোখ, ত্বক বা দাঁতের মতো চুলও যে মানুষকে কতটা আকর্ষণীয় করে তুলতে পারে তা বলাই বাহুল্য। তবে এই দূষণের পরিবেশে অনেকেরই চুল নিয়ে দেখা যায় অনেক সমস্যার। চুল পেকে যাওয়া থেকে শুরু করে টাক পড়ে যাওয়ার মত অনেক সমস্যা তৈরি হয়েছে এখন। তবে চুলকে সুন্দর, দূষণমুক্ত, ঝলমলে, কালো রাখতে কি উপায় বেছে নিলে পেতে পারেন সুফল? জেনে নিন এখনি।

চুল পড়া থেকে বাঁচতে:-

*আপনার প্রতিদিনের ডায়েটে তিন থেকে চার লিটার জল বাধ্যতামূলক করতে হবে। কারণ আপনার দেহে জলের পরিমাণ আপনার চুলকে সঠিকভাবে হাইড্রেটেড করতে পারবে।

* শুধুমাত্র জলই নয়, সাথে প্রয়োজন সুষম খাবারের। তারমধ্যে সবুজ শাকসবজি, কলা, মরসুমি ফল, বাদাম, ছোলা প্রভৃতি রাখতে পারেন।

* সপ্তাহে অন্তত ৩ দিন চুলে হট অয়েল ম্যাসাজ করতে পারেন। এতে চুলের গোড়ায় রক্ত সঞ্চালন ভালো হয় এবং চুল তাড়াতাড়ি বৃদ্ধি পায়।

* চেষ্টা করবেন তিন মাস অন্তর অন্তর চুলের ডগা কেটে নিতে। এর ফলে স্প্লিট এন্ডস এর সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

টাক পড়া থেকে বাঁচতে:-

* আপনার চুলের ধরন হিসাবে বেছে নিতে পারেন আপনার শ্যাম্পু। চুলের গোড়ায় সরাসরি শ্যাম্পু ব্যবহার না করে, প্রথমে হাতের তালুতে অল্প পরিমাণ শ্যাম্পু নিয়ে তাতে জল দিয়ে ফেনা করে নিয়ে আপনার মাথায় দিন।

* যে চিরুনি আপনি ব্যবহার করছেন সেই চিরনি টিকে হতে হবে পরিষ্কার। কারণ কোন ব্যাকটেরিয়া বা ফাংগাস থাকলে সেই চিরুনি থেকে আপনার চুলের গোড়ায় নানারকম ইনফেকশন হতে পারে।

* টাক সমস্যার সমাধানে ওটস অনেক সময় কাজে আসে। এতে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার, জিংক, ওমেগা-সিক্স ফ্যাটি অ্যাসিড, পলিআনস্যাচুরেটেড ফ্যাটি অ্যাসিড, ভিটামিন বি রয়েছে, যা চুল পড়া আটকাতে সাহায্য করে।

* এছাড়া আখরোটেও রয়েছে প্রচুর ওমেগা ফ্যাটি অ্যাসিড, ভিটামিন বি- সেভেন। যা চুল পড়া কমায়, চুলের ফলিকর বা গোড়া মজবুত করতে সাহায্য করে বলেই মনে করা হয়। এর পাশাপাশি নতুন চুল গজাতেও সাহায্য করে।

* ডিম ও দুগ্ধজাত খাবারে রয়েছে বায়োটিন, ভিটামিন বি সেভেন যা চুলের বৃদ্ধি ঘটাতে সাহায্য করে বলে মনে করা হয়। এছাড়া যাদের মাথায় টাক পড়া শুরু হয়েছে, তারা নিজেদের খাবারের তালিকায় ডিমের সঙ্গে দুধ, দই, পনিরও রাখতে পারেন। এই সমস্ত খাবারে থাকা প্রোটিন, ভিটামিন বি-টুয়েল্ভ, আয়রন, জিঙ্ক ও ওমেগা-সিক্স ফ্যাটি অ্যাসিড, চুল পড়া আটকে মাথায় টাক পড়তে দেয় না।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!