এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > জঙ্গলমহলে বিজেপির উত্থানের পর ছত্রধর মাহাতোর মুক্তি নিয়ে গভীর সমস্যায় প্রশাসন

জঙ্গলমহলে বিজেপির উত্থানের পর ছত্রধর মাহাতোর মুক্তি নিয়ে গভীর সমস্যায় প্রশাসন



জঙ্গলমহল আন্দোলনের অন্যতম মুখ ছত্রধর মাহাতো গত ৯ বছর ধরে জেলবন্দি। তৎকালীন বিরোধীনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, ছত্রধর মাহাতোর সঙ্গে একমঞ্চ থেকে সভা করলেও, তিনি ক্ষমতায় আসার পরও মুক্তি পান না ছত্রধর মাহাতো। যদিও এই ৯ বছরে বিভিন্ন জায়গা থেকে ছত্রধর মাহাতোর মুক্তির জন্য মুখ্যমন্ত্রীর কাছে অনুরোধ গেছে বলে সূত্রের খবর। এরপরে তৃণমূল কংগ্রেস ত্যাগ করে বিজেপিতে যোগদান করেই মুকুল রায় ব্যাপারটি নিয়ে নতুন করে আক্রমন করেন তৃণমূল নেত্রীকে। এমনকি পঞ্চায়েত নির্বাচনের প্রচারও তিনি শুরু করেন ছত্রধর মাহাতোর বাড়ি থেকে। সূত্রের খবর, ছত্রধর মাহাতোর নিয়তি মাহাতোকে পঞ্চায়েত নির্বাচনে সরাসরি বিজেপির প্রার্থী হওয়ার প্রস্তাব দেওয়া হয়। আর এরপরেই কাকতালীয়ভাবে ছত্রধর মাহাতোর মুক্তির বিষয়টি নিয়ে নড়েচড়ে বসে প্রশাসন।

শোনা যায়, ছত্রধর মাহাতোকে মুক্তি দেওয়ার পাশাপাশি তাঁর পুত্রদের সরকারি চাকরি দেওয়া হবে। আর এরফলেই কিনা জানা নেই, এতদিন যে যে নিয়তি মাহাতো লুকিয়ে-চুরিয়ে কোনোরকমে ভোট দিতেন, তাকেই দেখা যায় শাসকদলের মিছিলের একদম সামনের সারিতে পা মেলাতে। নিন্দুকেরা বলতে শুরু করেছেন নিয়াতিদেবীর বিজেপি যাত্রা ঠেকাতেই নাকি ছত্রধর মাহাতোর মুক্তি বা তাঁর পুত্রদের সরকারি চাকরির ব্যাপারটি ভেসে উঠেছিল। কিন্তু এবারের পঞ্চায়েত নির্বাচনে দেখা গেছে, জঙ্গলমহলে রীতিমত ভালো ফল করেছে গেরুয়া শিবির। এই অবস্থায় ছত্রধর মাহাতোর মুক্তি ও তাঁর পুত্রদের সরকারি চাকরি হল – অথচ একই ‘অপরাধে’ অন্যান্য বন্দিরা এখনো জেলে রায়ে গেল – এতে হিতে বিপরীত হাতে পারে। অন্যদিকে, যদি নিন্দুকদের কথা সত্যি হয় – তাহলে ছত্রধর মাহাতোর মুক্তি না হলে বা তাঁর পুত্ররা সরকারি চাকরি না পেলে, যদি তিনি বিজেপিতে চলে যান – সে সম্ভাবনাও রয়েছে। ফলে সবমিলিয়ে বেশ অস্বস্তিতে রাজ্য প্রশাসন বলে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের ধারণা। তবে সূত্রের খবর, আপাতত একই রকম মামলায় অভিযুক্ত বা দোষী হিসাবে যাঁরা জেলে, তাঁদের সকলকে এক নীতির আওতায় এনে মুক্তির ব্যবস্থা চলছে, তবে চাকরি বা অন্যান্য সরকারি সুবিধা হয়তো এই মুহূর্তে দেওয়া সম্ভব হবে না। যদিও এই নিয়ে আপাতত কোনো বিশদ তথ্য প্রশাসনিক মহলে জানা যাচ্ছে না, ফলে বিষয়টি নিয়ে জল্পনা ক্রমশ বাড়ছে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!