এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > ২১ শে জুলাই তৃণমূলে যোগদান নিয়ে মুখ খুললেন বিজেপি নেতা চন্দ্র কুমার বসু

২১ শে জুলাই তৃণমূলে যোগদান নিয়ে মুখ খুললেন বিজেপি নেতা চন্দ্র কুমার বসু



এগিয়ে আসছে ২১ শে জুলাই – সেইদিন রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের শহীদ দিবস পালনের পাশাপাশি, ঘাসফুল শিবিরের কর্মী-সমর্থকদের উৎসাহ থাকে অন্যদল থেকে কে কে যোগ দিলেন তাঁদের দলে। ইতিমধ্যেই বেশ কিছু নেতা-বিধায়ক-সাংসদের নাম নিয়ে জল্পনা ছড়িয়েছে। আর তাঁদের মধ্যে অন্যতম হলেন বিজেপির দুবারের রাজ্যসভার সংসদ চন্দন মিত্র ও গত বিধানসভা নির্বাচনে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিপরীতে বিজেপির টিকিটে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করা চন্দ্রকুমার বসু।

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

এই জল্পনা আরো প্রবল হয়েছিল যেহেতু কিছুদিন আগেই বাংলায় দলীয় নেতৃত্ত্বের বিরুদ্ধে তীব্র ক্ষোভ উগরে দিয়েছিলেন তিনি। এমনকি প্রধানমন্ত্রীর মেদিনীপুরের জনসভাতেও যাননি তিনি। কিন্তু সেই জল্পনায় জল ঢেলে দিয়ে নিজের অফিসিয়াল ট্যুইটার হ্যান্ডেলে আজ চন্দ্রকুমারবাবু লেখেন, একটা জল্পনা ছড়িয়েছে যে আগামী ২১ শে জুলাই আমি রাজ্য বিজেপি ত্যাগ করে অন্য একটি দলে যোগদান করতে পারি। যদিও রাজ্য বিজেপিতে কিছু সাংগঠনিক দুর্বলতা আছে – কিন্তু আমি এখানে থেকেই তা সঠিক পথে নিয়ে যেতে আগ্রহী এবং সেই পথেই বাংলার মানুষের আস্থা জিততে চাই। জয় হিন্দ। এই ট্যুইটে তিনি বঙ্গ-বিজেপি, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাকেও ‘ট্যাগ’ করেন। আর তাঁর এই সরকারি বিবৃতির পরে তাঁর দলবদল নিয়ে সকল জল্পনা-কল্পনার অবসান হল বলেই মত রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!