এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > বিজেপি > সেলিব্রিটি প্রার্থী নিয়ে বিস্ফোরক তথাগতকে জবাব দিলেন দিলীপ, জেনে নিন

সেলিব্রিটি প্রার্থী নিয়ে বিস্ফোরক তথাগতকে জবাব দিলেন দিলীপ, জেনে নিন



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – বাংলার বিধানসভা নির্বাচনে 200 আসনের টার্গেট পূরণ করতে পারেনি ভারতীয় জনতা পার্টি। তৃণমূলের পথে হেঁটে এবার বেশিরভাগ আসনে জয়লাভ করতে বিজেপির পক্ষ থেকে একাধিক তারকা প্রার্থী করা হয়েছিল। বিশিষ্ট অভিনেতা-অভিনেত্রীদের প্রার্থী করে বিভিন্ন বিধানসভা কেন্দ্রে পদ্মফুল ফোটানোর চেষ্টা করেছিল ভারতীয় জনতা পার্টি। তবে তৃণমূলের পক্ষ থেকে তারকা প্রার্থী হলেও, তারা বেশিরভাগ আসনে জয়লাভ করেছেন।

কিন্তু বিজেপির পক্ষ থেকে যারা তারকা প্রার্থী হয়েছিলেন, তারা জয়লাভ করতে পারেননি। শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায় থেকে শুরু করে তনুশ্রী চক্রবর্তী, পায়েল সরকারের মত অভিনেত্রীরা রীতিমত তৃণমূল প্রার্থীদের কাছে পরাজিত হয়েছেন। আর এরপরই গোটা বিষয় নিয়ে বিজেপির অন্দরে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। সম্প্রতি এই ব্যাপারে একটি বিতর্কিত পোস্ট করেন বিজেপি নেতা তথাগত রায়।

যেখানে এই সমস্ত ব্যক্তিকে পার্থী করে কি লাভ হয়েছে, সেই ব্যাপারে প্রশ্ন তুলে দেন তিনি। স্বাভাবিক ভাবেই বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষকে উদ্দেশ্য করেই যে রাজ্য বিজেপির প্রাক্তন রাজ্যপাল তথা বর্ষিয়ান নেতা তথাগত রায় এই প্রশ্ন ছুঁড়ে দিলেন, সেই বিষয়টি কার্যত স্পষ্ট হয়ে গিয়েছিল সকলের কাছে। তবে পূর্বসূরি তথা বর্ষীয়ান নেতার এই বক্তব্যের কড়া ভাষায় জবাব দিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি তথা সাংসদ দিলীপ ঘোষ।

সূত্রের খবর, এদিন তথাগত রায়ের এই মন্তব্যের কড়া ভাষায় জবাব দেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তিনি বলেন, “আমি পালিয়ে যাওয়ার লোক নই। আমরা লড়াই করেছি। আজ পর্যন্ত রেকর্ড সিট আমরা জিতেছি। যেটা কেউ কল্পনা করেননি। আমরা এখনও লড়াই করছি। আগামী দিনেও লড়াই করব। আগের থেকে ভালো ফল হয়েছে। আজ নয়ত কাল পরিবর্তন হবেই।” অর্থাৎ দলের প্রাক্তন রাজ্য সভাপতি তারকাদের প্রার্থী করা নিয়ে বর্তমান রাজ্য নেতৃত্বের দিকে কটাক্ষ ছুড়ে দিয়েছিলেন।

আর বিজেপির বর্তমান রাজ্য সভাপতি পূর্বসূরীর সেই বক্তব্যকে কার্যত খন্ডন করে বুঝিয়ে দিলেন, দল অতীতে পশ্চিমবঙ্গে এত ভালো ফল করতে পারেনি। তাই এসব কথা বলার যে কোনো বাস্তব ভিত্তি নেই, তা নিজের মন্তব্যের মধ্যে দিয়ে বুঝিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। পাশাপাশি এই গোটা ঘটনায় তথাগত রায় বনাম দিলীপ ঘোষের বিভাজন প্রকাশ্যে চলে এল বলেই দাবি একাংশের।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বিজেপি এবার কার্যত কোমর বেঁধে ময়দানে নেমেছিল। তারা আত্মবিশ্বাসী ছিল, এবার পশ্চিমবঙ্গে 200 আসন দখল করবে ভারতীয় জনতা পার্টি। এক্ষেত্রে তৃণমূলকে পরাজিত করে বিজেপির বেশিরভাগ প্রার্থীরা জয়লাভ করবেন বলে কার্যত আত্মবিশ্বাসী ছিলেন রাজ্য এবং কেন্দ্রীয় বিজেপি নেতারা। কিন্তু শেষ পর্যন্ত 80 আসন পার করতে পারেনি গেরুয়া শিবির।

আর তার মাঝেই সেলিব্রিটি প্রার্থী নিয়ে তথাগত রায়ের সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট রীতিমত গেরুয়া শিবিরের রাজ্য নেতৃত্বের অস্বস্তি বাড়িয়ে দিয়েছিল। তবে তার সাথে সাথেই সেই মন্তব্যের পাল্টা মন্তব্য করে কার্যত পূর্বসূরীকে জবাব দেওয়ার পাশাপাশি শোরগোল তুলে দিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। সব মিলিয়ে গোটা পরিস্থিতি কোথায় গিয়ে দাঁড়ায়, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!