এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > সিবিআই নোটিশ নিয়ে বিজেপিকে কড়া বার্তা অভিষেকের, জেনে নিন!

সিবিআই নোটিশ নিয়ে বিজেপিকে কড়া বার্তা অভিষেকের, জেনে নিন!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – সম্প্রতি তৃণমূলের অস্বস্তি বাড়িয়ে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সহধর্মীনি রুজিরা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নোটিশ পাঠানো হয়। আর তারপর থেকেই রীতিমত তৃণমূলের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়, প্রতিহিংসাপরায়ন হয়ে বিজেপি নির্বাচনের আগে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং তার দলকে কলঙ্কিত করতে চাইছে। এমনকি হুগলির জনসভা থেকে এই ব্যাপারে রীতিমতো হুংকার দিয়ে বিজেপিকে কাঠগড়ায় দাঁড় করান তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়‌।

কিন্তু অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সহধর্মিনীকে সিবিআইয়ের পক্ষ থেকে জেরা করা হলেও, এই ব্যাপারে কি বলেন সেই অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, তার দিকে নজর ছিল সকলের। অবশেষে এই ব্যাপারে মুখ খুলতে দেখা গেল তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভাপতি তথা সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে। যেখানে এই ধরনের নোটিশ পাঠিয়ে কোনভাবেই যে তাদের কাবু করা যাবে না, তা বুঝিয়ে দিলেন তিনি।

সূত্রের খবর, আজ ঠাকুরনগরে তৃণমূলের পক্ষ থেকে একটি জনসভার আয়োজন করা হয়। যেখানে উপস্থিত ছিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। আর সেই জনসভা থেকেই এই ব্যাপারে গেরুয়া শিবিরকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করেন তিনি‌। তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভাপতি বলেন, “সিবিআই, ইডি দেখিয়েও দমাতে পারবে না। যাকে খুশি পাঠান। আমি মেরুদন্ড বিক্রি করব না।”

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এই কথা বলে বুঝিয়ে দিতে চাইলেন, তিনি কোনো চাপের কাছে মাথানত করতে রাজি নন। অর্থাৎ তার সহধর্মিনীকে নোটিশ পাঠালেও, তিনি যে এর ফলে বিন্দুমাত্র বিচলিত নন এবং বিজেপির বিরুদ্ধে তাদের লড়াই যে জারি থাকবে, তা আরও একবার নিজের এই মন্তব্যের মধ্যে দিয়ে বুঝিয়ে দিলেন যুব কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভাপতি বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।


ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

অনেকে বলছেন, মুকুল রায় থেকে শুরু করে শুভেন্দু অধিকারী তৃণমূল কংগ্রেস থেকে বিজেপিতে যোগদান করার পর, সিবিআইয়ের চাপে তারা নত স্বীকার করেছে বলে অভিযোগ করতে শুরু করেছিল তৃণমূল কংগ্রেস। যদিওবা সেই সমস্ত অভিযোগ সম্পূর্ণ রূপে অস্বীকার করে দিয়েছিলেন সেই সমস্ত নেতারা। তবে বিধানসভা নির্বাচনের দিন ঘোষণা যখন শুধু সময়ের অপেক্ষা ।

তখনই সিবিআইয়ের পক্ষ থেকে জেরা করতে চেয়ে নোটিশ পাঠানো হয় অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সহধর্মীনি রুজিরা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং তার শ্যালিকা মেনকা গম্ভীরাকে। যার ফলে তৃণমূল অত্যন্ত চাপে পড়ে যাবে বলে মনে করেছিলেন সকলে। কিন্তু তা যে কোনমতেই হচ্ছে না, তা ঠাকুরনগরের সভা থেকে নিজের বার্তার মধ্যে দিয়ে স্পষ্ট করে দিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। সব মিলিয়ে গোটা পরিস্থিতি কোথায় গিয়ে দাঁড়ায়, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!