এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > প্রার্থী তালিকায় একগুচ্ছ অরাজনৈতিক মুখ রেখে বাংলায় কি সত্যিই কামাল করতে পারবে বিজেপি?

প্রার্থী তালিকায় একগুচ্ছ অরাজনৈতিক মুখ রেখে বাংলায় কি সত্যিই কামাল করতে পারবে বিজেপি?



আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বাংলায় তাদের মূল টার্গেট বলে বারে বারেই রাজ্য নেতৃত্বকে এই বাংলায় দলীয় সংগঠনকে আরও চাঙ্গা করার জন্য একগুচ্ছ নির্দেশ দিয়েছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। আর সেইমতো আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের দামামা বেজে যাওয়ার সাথে সাথে বাংলায় শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে তড়িঘড়ি প্রার্থী প্রকাশ করে দেওয়া হলেও বিজেপির পক্ষ থেকে ঠিক কাদের কাদের প্রার্থী করা হয় তার দিকেই নজর ছিল সমস্ত রাজনৈতিক দলগুলোর।

তবে সূচনাতেই বিলম্ব লক্ষ্য করা গেছে বিজেপির প্রার্থী তালিকায়। অনেক দেরি করে প্রার্থী তালিকা প্রকাশের পর বাংলায় বিভিন্ন কেন্দ্রে এমন কয়েকজন মুখ প্রার্থী হিসেবে নিয়ে এসেছে গেরুয়া শিবির, যাদের রাজনৈতিক ময়দানে সেইভাবে দেখাই যায় নি বলে অভিযোগ বিজেপির নিচুতলার একাংশের।

এমনকি সদ্য তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেওয়া কোচবিহারের নিশীথ প্রামাণিক, ব্যারাকপুরের অর্জুন সিংহ এবং সিপিএম ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেওয়া মালদহের খগেন মুর্মুর মতো একাধিক ব্যক্তিদের প্রার্থী করা হলেও গেরুয়া শিবিরের অন্দরে প্রবল বিক্ষোভ শুরু হয়।

এমনকি রাজ্যের বিভিন্ন কেন্দ্রে দলের প্রার্থী হিসেবে যাকে চেয়েছিল নিচুতলার কর্মীরা, তাকে প্রার্থী করে উল্টে ভিন জেলা থেকে অচেনা মুখকে প্রার্থী করায় সেই আসনগুলি বিজেপির সেফ সিট হলেও এই অচেনা মুখ প্রার্থী হওয়াতে সেই আসন কতটা ধরে রাখা যাবে তা নিয়েও প্রশ্নচিহ্ন তৈরি হয়েছে দলের অন্দরে।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

আর এখানেই রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের অনেকের প্রশ্ন, যে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব থেকে রাজ্য নেতৃত্ব রাজ্যে গেরুয়া ঝড় তোলার স্বপ্ন দেখছেন, সেই বিজেপি আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে চেনা রাজনৈতিক ব্যক্তিদের প্রার্থী করা অপেক্ষা যেভাবে অচেনা ও কিছুটা অরাজনৈতিক ব্যক্তিত্বদের বিভিন্ন লোকসভা কেন্দ্রে প্রার্থীপদের জন্য টিকিট দিল তাতে কতটা তাদের হাতে জয় আসবে তা নিয়ে সামান্য ধন্দ্ব রয়েছেই।

তবে এই সমস্ত ব্যাপারকে আমল দিতে নারাজ রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব। তাদের মতে, “আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বাংলার তৃনমূলকে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত করাই মূল চ্যালেঞ্জ। তাই প্রার্থী কে হল সেটা না দেখে বাংলার 42 টি লোকসভা কেন্দ্রেই সকলে নরেন্দ্র মোদিকে ভোট দেবেন।” তবে বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্বের এই দাবি বাস্তবের সঙ্গে আদৌ মেলে কিনা তা দেখবার জন্য অপেক্ষা করতেই হবে আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের ভোটবাক্স খোলা পর্যন্ত।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!