এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > Breaking News, স্বাস্থ্যবিধি অমান্য করায় মাত্র ১১ মিনিটেই সভা বন্ধ করে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী

Breaking News, স্বাস্থ্যবিধি অমান্য করায় মাত্র ১১ মিনিটেই সভা বন্ধ করে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – গতকাল রাতেই মুখ্যমন্ত্রী জানিয়ে ছিলেন যে, করোনা সংক্রমণ মাত্রাছাড়া ভাবে বৃদ্ধি পাওয়ায় কলকাতায় তিনি আর মাত্র একটি প্রতীকী সভা করবেন, রাজ্যের অন্যান্য স্থানেও সর্বাধিক ৩০ মিনিটের সভা করবেন। ১৫ থেকে ২০ মিনিটের মধ্যেই সভা শেষ করে দেওয়ার চেষ্টা করবেন তিনি। এরপর আজ করোনা বিধি অমান্য করার কারণে মাত্র ১১ মিনিট ১০ সেকেন্ডেই মুখ্যমন্ত্রী তাঁর বক্তব্য শেষ করে দিলেন কালিয়াগঞ্জের সভাতে।

আজ উত্তর দিনাজপুর জেলার কালিয়াগঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্রে এক জনসভায় যোগদান করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বহু মানুষ একত্রিত হয়েছিলেন এই সভাতে, যাদের মধ্যে অধিকাংশই ছিলেন মহিলা। অভিযোগ উঠেছে, অনেকেই মাস্ক পরিধান করেননি, সামাজিক দূরত্বও মান্য করেননি। একারণে অল্প সময়ের মধ্যেই সভায় বক্তব্য শেষ করে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

আজ কালিয়াগঞ্জে মাত্র ১১ মিনিট ১০ সেকেন্ড বক্তব্য রাখলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই সভা থেকে তিনি জানালেন, গত ৬ মাস ধরে বিজেপি করোনার ভ্যাকসিন না দেয়ার কারণেই, রাজ্যে করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পাচ্ছে। নির্বাচন কমিশনের কাছে শেষ দু’দফা একদিনে করার অনুরোধ করেছেন তিনি। দেশে করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধির জন্য কেন্দ্রীয় সরকার তথা বিজেপিকে অভিযুক্ত করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

জনগণের উদ্দেশ্যে মুখ্যমন্ত্রী জানালেন, তাদের একটি ভোটও যেন নষ্ট না হয়, একটি ভোটও যেন তারা বিজেপিকে না দেন। মুখ্যমন্ত্রী জানালেন, বিজেপি ক্ষমতায় এলে এনআরসি হবে, কিন্তু তৃণমূল এনআরসি, এনপিআর করতে দেবে না। তৃণমূল চায় মানুষ বিনামূল্যে খাদ্য পাক, নারীরা সুরক্ষা পাক, মান সম্মান নিয়ে বেঁচে থাকুক। বিজেপিকে ভোট না দেওয়ার নিদান দিলেন তিনি। জনগণের উদ্দেশ্যে তিনি জানালেন, বিজেপিকে রাজনৈতিকভাবে জবাব দিতে।

প্রসঙ্গত, গত ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে কালিয়াগঞ্জে বিরাট ব্যবধানে পিছিয়ে পড়েছিল তৃণমূল। যদিও পরবর্তীতে কালিয়াগঞ্জ থেকে উপনির্বাচনে অপ্রত্যাশিত জয়লাভ করেছিল তৃণমূল। এই জয়ের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ কান্ডারী ছিলেন শুভেন্দু অধিকারী, এখন তিনি বিজেপির কান্ডারী। তাই এবারের বিধানসভা নির্বাচনে এই কেন্দ্রে কি হতে চলেছে? সে দিকেই লক্ষ্য রয়েছে সকলের।

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!