এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > Breaking News, নেপথ্যে কয়লা পাচার, ইডির পর এবার সিবিআইয়ের জোরদার তল্লাশি

Breaking News, নেপথ্যে কয়লা পাচার, ইডির পর এবার সিবিআইয়ের জোরদার তল্লাশি



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – দু’দিন আগেই কয়লা বাজার কান্ডের তদন্তে তল্লাশি চলেছিল রাজ্যের ১২ টি স্থানে। এরপর গতকাল ব্যবসায়ী গণেশ বাগাড়িয়ার বাঙুর এভিনিউর তিনটি ফ্ল্যাট সিল করে দিয়েছেন ইডির আধিকারিকেরা। এরপর আজ কয়লা পাচার কান্ডের তদন্তে রাজ্যের মোট ১০ টি জায়গায় চললো সিবিআই তল্লাসি। সিবিআই আধিকারিকেরা কলকাতা, দুর্গাপুর, রানীগঞ্জ, আসানসোল সহ রাজ্যের মোট ১০ টি স্থানে ব্যাপক তল্লাশি চালালেন।

কয়লা পাচার কাণ্ডের মূল অভিযুক্ত অনুপ মাঝি বা লালার ঘনিষ্ঠ একাধিক ব্যবসায়ীর বাড়িতে সিবিআই আধিকারিকেরা অভিযান চালালেন। এর সঙ্গেই গরু পাচারের অভিযোগে অভিযুক্ত ব্যবসায়ী বিনয় মিশ্রের বাড়িতেও চলে সিবিআই তল্লাশি। বড় বাজারে ব্যবসায়ী সঞ্জয় সিংয়ের বাড়িতে তল্লাশি চালালেন সিবিআই আধিকারিকরা। আজ কলকাতার বড় বাজার, লেকটাউনে চললো সিবিআই তল্লাশি। এছাড়া হুগলি, উত্তর ২৪ পরগনাকে নিয়ে মোট ১০ টি স্থানে আজ তদন্ত চললো।


দেশে যে কোনো দিন ব্যান হয়ে যেতে পারে হোয়াটস্যাপ। তাই এখন থেকে আমরা শুধুমাত্র টেলিগ্রাম ও সিগন্যাল অ্যাপে। প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার নিউজ নিয়মিতভাবে পেতে যোগ দিন –

টেলিগ্রাম গ্রূপটাচ করুন এখানে

সিগন্যাল গ্রূপটাচ করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

গতকাল বাঙুর এভিনিউতে গণেশ বাগাড়িয়ার ৩ টি ফ্ল্যাটে সিল করে দিয়েছে ইডি। আজও সেখানে যান সিবিআই আধিকারিকেরা। আগামী দিনগুলিতেও সিবিআই তল্লাশি এখানে চলতে পারে বলে, গোয়েন্দা সূত্রে জানা যাচ্ছে। কয়লা পাচার কান্ডের তদন্তে পাওয়া একাধিক তথ্যের ভিত্তিতে চলছে সিবিআই তল্লাশি। তবে, এখনো পর্যন্ত কয়লা পাচার কাণ্ডের মূল অভিযুক্ত অনুপ মাঝি বা লালা ফেরার। তাঁকে দ্রুত গ্রেফতারের চেষ্টা চালাচ্ছেন সিবিআই আধিকারিকেরা।

অন্যদিকে, সম্প্রতি হুগলির কোন্নগরের দুজন ব্যবসায়ী অমিত সিং ও নিরজ সিং-এর বাড়িতে দু’দিন আগে ইডির আধিকারিকরা অভিযান চালালেন। এই দুই ব্যবসায়ীর বাড়িতে গত ৩১ সে ডিসেম্বর সিবিআই তল্লাশি চলে। কয়লা কাণ্ডের মূল অভিযুক্ত লালার সঙ্গে এই দুই ব্যবসায়ীর ঘনিষ্ঠতার কথা জানতে পেরেছেন গোয়েন্দারা। এরপরই তাদের বাড়িতে অভিযান চলে।

একাধিক বিশ্লেষক জানিয়েছেন গরু পাচারকারী এনামুল বা কয়লা পাচার কান্ডের অনুপ মাঝি এরা হিমশৈলের চূড়া মাত্র। তদন্ত আরও এগোলে বিপাকে পড়তে পারেন বেশ কিছু রাঘব বোয়াল। ফলত, আগামী বিধানসভা নির্বাচনের পূর্বেই বিপাকে পড়তে পারেন এই রাঘব বোয়ালরা। সবকিছু নিয়েই রুদ্ধশ্বাস পরিস্থিতি।

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!