এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > “বহিরাগত” বলা নিয়ে তৃণমূল নেতার সহধর্মিনীকে নিয়ে প্রশ্ন! বিতর্ক উস্কে দিলেন দিলীপ!

“বহিরাগত” বলা নিয়ে তৃণমূল নেতার সহধর্মিনীকে নিয়ে প্রশ্ন! বিতর্ক উস্কে দিলেন দিলীপ!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – 2021 এর বিধানসভা নির্বাচনের আগে গোটা বাংলা জুড়ে এখন বহিরাগত ইস্যু নিয়ে মাতামাতি শুরু হয়েছে। বিজেপির পক্ষ থেকে একাধিক কেন্দ্রীয় নেতা যখন বাংলায় আসছেন, তখন তাদের বহিরাগত বলে আক্রমণ করতে শুরু করেছে তৃণমূলের শীর্ষ নেতৃত্ব। যারা বাংলার কৃষ্টি এবং সংস্কৃতি জানে না, তারা কিভাবে বাংলার নেতৃত্ব দেবে, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলতে দেখা যাচ্ছে ঘাসফুল শিবিরকে। তবে তৃণমূলের একাংশ দিল্লির নেতাদের বহিরাগত বললেও পাল্টা বিজেপির পক্ষ থেকে সকলেই ভারতীয় বলে দাবি করা হচ্ছে।

আর এবার এই ব্যাপারে বিস্ফোরক মন্তব্য করে তৃণমূলকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। যেখানে তাদের নেতাদের বহিরাগত বলা হলেও তৃণমূলের নেতা পাঞ্জাবের মেয়েকে বিয়ে করে নিয়ে এসেছেন বলে দাবি করতে দেখা যায় মেদিনীপুরের বিজেপি সাংসদকে। স্বাভাবিকভাবেই রাজনীতিতে রাজনৈতিক তরজার পাশাপাশি এইভাবে ব্যক্তিগত দিক নিয়ে দিলীপ ঘোষ প্রশ্ন করায় ক্রমশ শোরগোল পড়ে গেল রাজ্য রাজনীতিতে।

সূত্রের খবর, রবিবার চৌরঙ্গীতে চা-চক্রে উপস্থিত হন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। আর সেখানেই বহিরাগত ইস্যুতে জবাব দিতে দেখা যায় তাকে। বিজেপির রাজ্য সভাপতি বলেন, “দিদি কেন্দ্রীয় মন্ত্রীদের বহিরাগত বলছে। অথচ বাড়িতে পাঞ্জাব থেকে বউ এনেছে।” আর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সম্পর্কে দিলীপ ঘোষ এই ধরনের মন্তব্য করায় এখন রীতিমত চাঞ্চল্য তৈরি হয়ে গিয়েছে। অনেকেই বলছেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজের বাড়িতে পাঞ্জাব থেকে বউ এনেছেন বলে কি বোঝাতে চাইলেন দিলীপ ঘোষ!


ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

একাংশ বলছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভাইপো অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এর সহধর্মীনি ভিন রাজ্যের বাসিন্দা তাহলে কি নাম না করে তাকেই বোঝাতে চাইলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি এই কথার মধ্য দিয়ে তিনি কি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্দেশ্যে বুঝিয়ে দিতে চাইলেন যে কেউ বহিরাগত নয় সেক্ষেত্রে তিনিও নিজের পরিবারে বহিরাগত মেনেছেন বলে তৃণমূল নেতৃত্বের বার্তা দেওয়ার চেষ্টা করলেন মেদিনীপুরের বিজেপি সাংসদ এখন তা নিয়ে প্রশ্ন ক্রমশ বাড়তে শুরু করেছে।

পর্যবেক্ষকরা বলছেন, বহিরাগত ইস্যু নিয়ে বিতর্ক এখানেই বন্ধ হওয়া উচিত। কেননা বাংলার যে প্রদেশেই যে ব্যক্তি থাকুন না কেন, তিনি অন্য প্রদেশে যেতেই পারেন। এক্ষেত্রে কেউ বহিরাগত নন। সকলের একটাই পরিচয় তারা ভারতীয়। তাই রাজনৈতিকভাবে যেমন এই বহিরাগত ইস্যু বন্ধ হওয়া উচিত, ঠিক তেমনই ব্যক্তিগত বিষয় নিয়ে তরজা বন্ধ করা উচিত বলে দাবি করছেন সকলে। তবে ভোট বড় বালাই। তাই সেই বিষয় নিয়ে বিতর্ক ক্রমশ বাড়তে শুরু করেছে। আর এদিন দিলীপ ঘোষের এই ধরনের মন্তব্য রাজনৈতিক তরজাকে যে কার্যত ব্যক্তিগত স্তরে নিয়ে চলে যাবে, সেই ব্যাপারে নিশ্চিত বিশেষজ্ঞরা। সব মিলিয়ে গোটা পরিস্থিতি কোথায় গিয়ে দাঁড়ায়, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!