এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > বিজেপিতে যোগ দিয়েই প্রাক্তন দলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিলেন হেভিওয়েট নেত্রী , জেনে নিন বিস্তারিত !

বিজেপিতে যোগ দিয়েই প্রাক্তন দলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিলেন হেভিওয়েট নেত্রী , জেনে নিন বিস্তারিত !



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – আজ সকালেই কংগ্রেস থেকে বহিষ্কার করা হল অভিনেত্রী খুশবু সুন্দরকে। এরপর নাটকীয় ভাবে আজ বিকেলেই তিনি যোগদান করলেন বিজেপিতে। কংগ্রেস দলের সঙ্গে বেশ কিছুদিন ধরেই দূরত্ব তৈরি হয়েছিল তামিলনাড়ুর এই কংগ্রেস নেত্রীর। বিজেপিতে যোগদান করেই কংগ্রেস দলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিলেন তিনি।

অভিনেত্রী খুশবু সুন্দর একসময় তামিলনাড়ুতে কংগ্রেস দলের এজকজন গুরুত্বপূর্ণ নেত্রী ছিলেন। কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধীর সঙ্গে ঘনিষ্ঠতার কারণে কংগ্রেস দলে গুরুত্বপূর্ণ পদপ্রাপ্তিও ঘটেছিল এই অভিনেত্রীর। সোশ্যাল মিডিয়ায় কংগ্রেসের একজন সক্রিয় নেত্রীও ছিলেন তিনি। কিন্তু কয়েকমাস ধরেই দলের সঙ্গে মানিয়ে নিতে পারছিলেন না তিনি। দলের শীর্ষ নেতৃত্বের সঙ্গে তাঁর বেশ কিছুটা মনোমালিন্য সৃষ্টি হয়েছিল। এই সমস্ত কারনে তামিলনাড়ুর বিধানসভা ভোটের প্রাক্কালে তিনি দল ছাড়ার পরিকল্পনা নিয়েছিলেন।

আজ সকালে কংগ্রেস থেকে তাঁকে বহিষ্কার করা হয়। আবার আজ বিকেলেই বিজেপিতে যোগ দেন তিনি। পদত্যাগপত্র পাঠিয়ে ছিলেন তিনি সোনিয়া গান্ধীর কাছে। যেখানে তিনি জানিয়েছিলেন যে, দলে অন্যায়ভাবে তাঁকে দমিয়ে রাখা হয়েছিল। এমন সমস্ত নেতাদের কথা শুনতে বাধ্য করা হয়েছিল, যাদের সঙ্গে বাস্তবের কোন যোগাযোগই নেই, মাটিতে যাদের পা পড়ে না।

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

তবে, কংগ্রেসের অভিযোগ, তাঁর এই দলত্যাগ সম্পূর্ণ পূর্বপরিকল্পিত। তামিলনাড়ুর কংগ্রেসের অভিযোগ, নিজের হাতে ক্ষমতা কুক্ষিকে গত রাখতেই তিনি যোগদান করেছেন বিজেপিতে। তবে তাঁর বিজেপিতে যোগদান করাতে তামিলনাড়ুর কংগ্রেস দলে কোনো প্রভাব পড়বে না বলে কংগ্রেসের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

আজ বিকেলে বিজেপিতে যোগ দিয়েই পূর্ব দল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে একরাস ক্ষোভ প্রকাশ করলেন অভিনেত্রী। প্রাক্তন কংগ্রেস নেত্রী খুশবু সুন্দর অভিযোগ করলেন যে, কংগ্রেস দলে এমন কিছু নেতারা রয়েছেন যাদের সঙ্গে মানুষের কোন যোগাযোগ নেই। অথচ তাদের কথাই সর্বদা মেনে চলতে বাধ্য করা হয়। আর কংগ্রেসের মধ্যে থেকে যারা দলের হয়ে কাজ করতে চান, তাদেরকে কাজ করতে দেওয়া হয় না। সে কারণেই দলে তাঁকে দমিয়ে রাখা হয়েছিল। এ বিষয়ে তিনি আরও জানান যে, তিনি মানুষের জন্য কাজ করতে চান বলেই কংগ্রেস ছেড়ে তিনি যোগদান করেছেন বিজেপিতে।

কংগ্রেসের বিরুদ্ধে প্রাক্তনীর এভাবেই চললো বিষেদাগার। কংগ্রেস যাই সাফাই দিক না কেন, আগামী বিধানসভা নির্বাচনের আবহে দাপুটে নেত্রীর এই দলবদলে লাভবান হতে চলছে বিজেপি।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!