এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > বিজেপিকে তীব্র কটাক্ষ তৃণমূল মুখপাত্রের

বিজেপিকে তীব্র কটাক্ষ তৃণমূল মুখপাত্রের



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – আজ পটাশপুরে তৃণমূলের জনসভা থেকে বিজেপি নেতৃত্বকে প্রবল আক্রমণ তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল ঘোষের। বিজেপি নেতা শোভন চট্টোপাধ্যায়, শুভেন্দু অধিকারী, মুকুল রায় প্রমুখকে একেবারে চাঁচাছোলা ভাষায় নজিরবিহীন আক্রমণ করলেন তৃণমূল মুখপাত্র কুনাল ঘোষ। গতকাল শোভন চট্টোপাধ্যায়, বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রতি তিনি তির্যক মন্তব্য করেছিলেন। আজ আবার তাদের তীব্র আক্রমণ করলেন তিনি।

গতকাল শোভন চট্টোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে কুণাল ঘোষের কটাক্ষের জবাবে বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন যে, শোভন চট্টোপাধ্যায়কে ঘুষ নিতে দেখেননি তিনি। এর উত্তরে কুনাল ঘোষ জানালেন যে, বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন শোভন চট্টোপাধ্যায়কে তিনি ঘুষ নিতে দেখেননি। তাঁর কটাক্ষ, বেডরুমে নয়, তিনি ঘুষ নিয়েছিলেন তাঁর চেম্বার থেকে। তৃণমূল মুখপাত্র কুনাল ঘোষ জানালেন, শোভন চট্টোপাধ্যায় কখনোই আঁচল ছাড়া বের হতে পারেন না।

শোভন চট্টোপাধ্যায়ের পর শুভেন্দু অধিকারীকে তিনি প্রবল কটাক্ষ ও সেইসঙ্গে হুঁশিয়ারি দিলেন। কুনাল ঘোষ শুভেন্দু অধিকারীকে চ্যালেঞ্জ করে জানালেন যে, কোথা থেকে তিনি পরাজিত হতে চান? তা তিনি ঠিক করে নিন। শুভেন্দু অধিকারীকে কটাক্ষ করে জানালেন যে, এমন ভাবে তাঁকে তিনি রসগোল্লা দেবেন, যেন বোঝা যায় যে, তা কোথা থেকে এসেছে। বিজেপি নেতৃত্বের উদ্দেশ্যে তিনি জানালেন যে, বাইরের রাজ্য থেকে পশ্চিমবঙ্গে মিটিং-মিছিল করতে এলে, রসগোল্লা দিয়ে আপ্যায়ন করা হবে বিজেপি নেতাদের।


দেশে যে কোনো দিন ব্যান হয়ে যেতে পারে হোয়াটস্যাপ। তাই এখন থেকে আমরা শুধুমাত্র টেলিগ্রাম ও সিগন্যাল অ্যাপে। প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার নিউজ নিয়মিতভাবে পেতে যোগ দিন –

টেলিগ্রাম গ্রূপটাচ করুন এখানে

সিগন্যাল গ্রূপটাচ করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

তৃণমূল মুখপাত্র কুনাল ঘোষ জানালেন যে, শুভেন্দু অধিকারী তাঁকে মানহানির মামলার নোটিশ পাঠিয়েছিলেন। সে মামলা লড়তে তাঁর কিছুটা দেরি হয়ে যাওয়ায় তাঁকে জরিমানা দিতে হয়েছিল। তিনি অভিযোগ করেছেন যে, তিনি যখন বন্দি ছিলেন, তখন তাঁর অনুপস্থিতির সুযোগ নিয়ে তাঁর পরিবারের সর্বনাশ করেছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। এবার সুদীপ্ত সেনের বয়ান নিয়ে সে মামলা লড়বার হুঁশিয়ারি দিলেন তিনি।

সম্প্রতি, শুভেন্দু অধিকারী একাধিকবার অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে ভাইপো বলে কটাক্ষ করেছিলেন। এর জবাবে কুনাল ঘোষ জানালেন যে, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় যদি বাংলার ভাইপো হন, তাহলে কাঁথির ভাইপো হলেন শুভেন্দু অধিকারী। শুভেন্দু অধিকারীকে তিনি কটাক্ষ করে জানান যে, এখন বিজেপির কথা শোনাচ্ছেন শুভেন্দু অধিকারী, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আক্রমণ করছেন তিনি।

তৃণমূলের রাজ্যসভার প্রাক্তন সাংসদ কে ডি সিংয়ের গ্রেপ্তারি প্রসঙ্গেও বক্তব্য রাখলেন তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল ঘোষ। এ প্রসঙ্গে মুকুল রায়ের প্রতি অভিযোগ করে তিনি জানালেন যে, কে ডি সিংয়ের সঙ্গে একসময় হাত মিলিয়েছিলেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়। আদালতের কাছে একথা জানিয়েছেন সারদার কর্ণধার সুদীপ্ত সেন। বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের নামে তিনি জানালেন যে, ৫০ লক্ষ ড্রাফট নেবার নামে একজন নগদ অর্থ নিয়েছিলেন। তাঁর কি কোন বিচার হবে না? তিনি শুধু অন্যের দিকেই আঙ্গুল তুলবেন? প্রশ্ন করলেন তিনি।

মুকুল রায়ের প্রতি কটাক্ষ করে তিনি জানান যে, বাংলার ভোটাধিকার ছেড়ে দিয়েছেন মুকুল রায়। তিনি পালিয়ে গেছেন। আজ পটাশপুরের জনসভা থেকে তৃণমূল মুখপাত্র জানালেন, আগামী বিধানসভা নির্বাচনে রাজ্যের ২৯৪ টি বিধানসভা আসনের মধ্যে ২২৫ টি আসন নিয়ে তৃতীয়বারের জন্য সরকার গঠন করবে তৃণমূল। তিনি জানান, আজকের জনসভাতে দূরের কোন বাস আনা হয়নি। স্থানীয় মানুষরাই শুধু এসেছেন। বিজেপির মত মেচেদার স্টিকার দেওয়া বাস নিয়ে মিছিল করতে হয়নি তৃণমূলকে।

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!