এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > কংগ্রেস > বিজেপিকে কোনঠাসা করতে এবার রাহুলের পথেই অভিষেক ব্যানার্জী, কর্মীদের প্রশংসার ঝড়

বিজেপিকে কোনঠাসা করতে এবার রাহুলের পথেই অভিষেক ব্যানার্জী, কর্মীদের প্রশংসার ঝড়



সারা বিশ্বের করোনা পরিস্থিতি এই মুহূর্তে অত্যন্ত ভয়াবহ অবস্থায় পৌঁছেছে। এরমধ্যে ভারতেও পরিস্থিতি ক্রমশ অসহনীয় হয়ে পড়ছে আর তার মধ্যেই করোনা পরিস্থিতির মধ্যেই ভারতের প্রতিবেশী রাজ্য চীন দেশের সীমান্তে উত্তেজনার সৃষ্টি করছে বলে সম্প্রতি বার্তা দেয় প্রতিরক্ষামন্ত্রক। অন্যদিকে চীন ভারতের কিছু অংশ দখল করে নিয়েছে বলেও একটি গুঞ্জন শোনা যায় সেই সময়। তবে, দেশের সীমান্তে সেনা বাহিনীকে তৎপর থাকতেও দেখা যায়।

দেশের সীমান্ত পরিস্থিতি এবার সোজা চলে এল দেশের রাজনৈতিক বাক-বিতণ্ডার মধ্যে। সম্প্রতি কংগ্রেসের রাহুল গান্ধী কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে সরাসরি আক্রমণ করেছিলেন ভারতের সীমান্তের পরিস্থিতি বর্ণনা করে। গতকাল কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ একটি ভার্চুয়াল জনসভায় ভারতের সীমান্ত রক্ষা নিয়ে মন্তব্য করেন। তারপরেই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে রাহুল গান্ধী অমিত শাহকে কটাক্ষ করে বলেন, ‘মন ভালো রাখতে ভালো চিন্তাধারা দরকার৷’

অমিত শাহের পরে রাজনাথ সিংকেও রাহুল গান্ধী টুইট করে লেখেন, ‘চিন ভারতীয় ভূখণ্ড দখল করেছে কি করেনি?’ রাহুল গান্ধীর সুরে সুর মিলিয়ে এবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে একইভাবে আক্রমণ করলেন তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ভার্চুয়াল সভা করেন এদিন। আর তার আগেই তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় সোজাসুজি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে টুইট করে লেখেন, ‘ভারতীয় ভূখণ্ড কি চিনা সেনা দখল করেছে?’

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

ওদিকে অমিত শাহ ভার্চুয়াল জনসভা থেকে গর্বের সঙ্গে দাবি জানান, ভারতের প্রতিরক্ষা নীতি স্বীকৃতি পেয়েছে বর্তমানে বিশ্বব্যাপী। এখনো পর্যন্ত গোটা বিশ্ব মেনে নিয়েছে আমেরিকা এবং ইজরায়েলের পর নিজেদের সীমান্তে চূড়ান্ত নিরাপত্তা বজায় রেখেছে ভারত। তিনি আরো বলেন বিজেপির শাসনকালের আগে সীমান্ত দিয়ে যে কেউ প্রবেশ করতে পারত এবং সীমান্ত রক্ষাকারী জওয়ানদের সঙ্গে সংঘর্ষ বাঁধাত। কিন্তু বিজেপির শাসনকালে উরি ও পুলওয়ামার মতো ঘটনার উল্লেখ করেন তিনি। পাশাপাশি এদিন তিনি তাঁর ভার্চুয়াল মন্তব্যে তুলে আনেন সিএএ এর প্রাসঙ্গিকতা।

তবে বিশেষজ্ঞদের মতে, ভারতীয় সীমান্তে বর্তমানে চীনের সঙ্গে ভারতের উত্তেজনা দেখা দিয়েছিল ঠিকই কিন্তু দেশের প্রতিরক্ষা মন্ত্রক সঠিক সিদ্ধান্তের মাধ্যমে তা সামাল দেয় বলে জানা গেছে। অন্যদিকে কেন্দ্রের বিরোধিতা করতে যেভাবে একের পর এক বিরোধী নেতারা ময়দানে নামছেন সে কথা মাথায় রেখে কেন্দ্রের পক্ষ থেকেও এবার একের পর এক বিজেপি নেতারা বিরোধীদের ধরাশায়ী করতে রাজনৈতিক ময়দানে নামছেন বলে জানা গেছে।

ইতিমধ্যে অনিচ্ছা অমিত শাহ দেশজুড়ে ভার্চুয়াল জনসভা চালাচ্ছেন বলে খবর। এবং এই জনসভার মাধ্যমে তুমুল জনপ্রিয়তা লাভ করছে কেন্দ্রীয় দল বিজেপি। তাই রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের দাবি, বিরোধীদল যতই দেশের শাসক দলকে কোণঠাসা করার চেষ্টা চালাক না কেন কেন্দ্রীয় দল যে তাঁদের পাত্তা না দিয়ে নিজেদের মতন করে সংগঠন এগিয়ে নিয়ে চলেছে তা লক্ষ্যণীয়। অন্যদিকে, তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে করা টুইট ঘিরে বর্তমানে রাজ্যের শাসক দলে রীতিমত প্রশংসার ঝড় উঠেছে বলে জানা যাচ্ছে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!