এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > মঞ্জু বসুর পর আবার ভুল স্বীকার, নোয়াপাড়ায় ব্যাকফুটে বিজেপি

মঞ্জু বসুর পর আবার ভুল স্বীকার, নোয়াপাড়ায় ব্যাকফুটে বিজেপি

Priyo Bandhu Media


নোয়াপাড়া বিধানসভায় ফলাফল কি হতে চলেছে তা বোঝা যাবে আগামী ১ লা ফেব্রুয়ারী ইভিএম খুললে। কিন্তু তার আগে একের পর এক ভুল স্বীকার করে রাজ্য বিজেপি যথেষ্ট ব্যাকফুটে। এর আগে নোয়াপাড়ায় প্রাক্তন তৃণমূল বিধায়ক মঞ্জু বসু বিজেপিতে যোগদান না করলেও তাঁকে প্রার্থী ঘোষণা করে দেওয়া হয়, কিন্তু এরপরেই সাংবাদিকদের তিনি জানিয়ে দেন, নোয়াপাড়ায় বিজেপি তাঁর অনুমতি না নিয়েই তাঁকে প্রার্থী ঘোষণা করে দিয়েছে। তিনি এখনো তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্ত্বে আস্থাশীল ফলে বিজেপির প্রার্থী হওয়ার কোনো প্রশ্নই নেই। সামগ্রিক ঘটনায় যথেষ্ট ব্যাকফুটে চলে যায় বিজেপি। পরে প্রকাশ্য সভামঞ্চ থেকে বিজেপিনেতা মুকুল রায় গোটা ঘটনা নিয়ে দলীয় কর্মীদের কাছে ভুল স্বীকার করেন।

আর আজ, ভোটের দিন নোয়াপাড়া জুড়ে ‘সন্ত্রাস’ চালাচ্ছে শাসকদল, সকল থেকেই এমন দাবি করতে থাকেন বিজেপি নেতারা। আর এরপর সন্ত্রাসের ‘প্রমান’ হিসাবে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পরে এক ব্যক্তির গুলিবিদ্ধ হওয়ার ছবি। শাসকদলের তরফ থেকে প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই ‘ভিত্তিহীন’ বলে দাবি করা হয়। এমনকি ব্যারাকপুর পুলিশ কমিশনারেট এই ঘটনাকে ‘ভিত্তিহীন’ বলে বিবৃতি দিয়ে জানিয়ে দেয়, কোথাও কোনো গুলি চলে নি। আর এরপরেই বিজেপির মিডিয়া সেলের নেতারা স্পষ্ট স্বীকার করে নিলেন, ওই ছবি ভুয়ো। ভালো করে খতিয়ে দেখে জানা গেছে এই অভিযোগের কোনো ভিত্তি নেই। সোশ্যাল মিডিয়ায় কেউ ওই ছবি ছড়িয়ে দিয়েছিল, তা থেকেই বিভ্রান্তি ছড়ায়। বিতর্ক এড়াতে বিজেপি কার্যত ‘ভুল স্বীকার’ করে নিলেও তা নিয়ে এবার চাপ বাড়াতে শুরু করে দিয়েছে শাসকদলের নেতা-কর্মীরা। সোশ্যাল মিডিয়ায় বিভিন্ন পোস্ট ছেয়ে যাচ্ছে, যার মোদ্দা কথা – প্রথমে প্রার্থী নির্বাচনে মুখে ‘চুন-কালি’ মেখেছে বিজেপি, তারপর ভোটের দিন ‘মুখ পোড়াল’, আর ফলাফল প্রকাশের পর আর মুখ দেখাতেই পারবেন না মুকুল রায় সহ বিজেপির নেতারা।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!