এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > জোর চাঞ্চল্য,শুভেন্দুর গড়ে বিজেপির হাতে মার খেলো তৃণমূল

জোর চাঞ্চল্য,শুভেন্দুর গড়ে বিজেপির হাতে মার খেলো তৃণমূল



শুভেন্দুর গড়ে তৃণমূল নেতা কর্মীকে মারধর,অভিযোগের তীর বিজেপির দিকে। যা ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে রাজনৈতিকমহলে। যেখানে দাপুটে নেতা কংগ্রেসের ঘর ভেঙে একের পর এক নেতা কর্মী ঘরে তুললেন সেখানে তাঁর গড়ে বিজেপির হাতে তাঁর দলের লোকেরা মার্ খাওয়ায় চঞ্চল্য ছড়ালো রাজনৈতিকমহলে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এদিন দুপুরে নন্দীগ্রামে তৃণমূল নেতা-কর্মীদেরকে মারধরের অভিযোগ উঠলো বিজেপির বিরুদ্ধে।জানা গেছে স্থানীয় একটি হোটেলে খাওয়া-দাওয়া নিয়ে ঝামেলার সূত্রপাত। সেই হোটেলটি স্থানীয় তৃণমূল নেতার। মনোনয়ন জমা দেবার পর হোটেলে খেতে গেলে অশান্তি বাঁধে। উভয়পক্ষের মধ্যে হাতাহাতি শুরু হয়। এর পর পরিস্থিতি খারাপ হয়। মোহন ঘড়াই, চন্দন জানা সহ তৃণমূলের ৮ নেতা-কর্মীকে মারধর করে বিজেপি এমনটাই অভিযোগ।এরপর পুলিশ এসে তাদের উদ্ধার করে চিকিৎসা করে।ঘটনায় জড়িত থাকায় ৫ জন বিজেপি কর্মীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। উত্তেজনা থাকায় এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।এই নিয়ে নন্দীগ্রাম ২ নম্বর ব্লক তৃণমূল সভাপতি মলিনা দাস বলেন, “আমরা ক্ষমতায় আছি। ওদের রুখে দিতে পারতাম। কিন্তু, আমরা অশান্তি চাইনি। সেই সুযোগে ওরা বাঁশ, লাঠি নিয়ে এসে আমাদের নেতা-কর্মীদের উপর হামলা চালাল। বিজেপির মারে আমাদের ৮ জন নেতা-কর্মী আহত হয়েছেন।”যদিও তৃণমূলের সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছে বিজেপি। এদিন বিজেপি তমলুক সাংগঠনিক জেলা সভাপতি প্রদীপ দাস বলেন, “নন্দীগ্রামের বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারী বলেছিলেন, নন্দীগ্রামে প্রার্থী দিতে পারব না। কিন্তু আমরা আজ নন্দীগ্রাম ২ নম্বর ব্লকের সব আসনেই প্রার্থী দিয়েছি। যা তৃণমূলের ভয়ের কারণ। তাই শান্তিপূর্ণভাবে মনোনয়ন জমা পড়লেও এভাবেই অশান্তি তৈরি করেছে তৃণমূল।”

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!